তিন মাসের মধ্যে সর্বোচ্চ লেনদেন পুঁজিবাজারে

তিন মাসের মধ্যে সর্বোচ্চ লেনদেন পুঁজিবাজারে

ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের শেয়ারে মিশ্র প্রবণতায় লেনদেন হলেও বিমা ও বস্ত্র খাতের দাপটে উত্থানের যাত্রায় হাঁটছে দেশের পুঁজিবাজার। তারই ছোঁয়ায় সপ্তাহের প্রথম কার্যদিবস রোববার (২ মে) দেশের প্রধান পুঁজিবাজার ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সূচক বেড়েছে ৩৭ পয়েন্ট। অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) প্রধান সূচক বেড়েছে ১২৯ পয়েন্ট।

সূচকের পাশাপাশি বেড়েছে বেশির ভাগ কোম্পানির শেয়ারের দাম ও লেনদেন। এদিন বেক্সিমকো, বেক্সিমকো ফার্মা, প্রভাতী ইন্স্যুরেন্স এবং ন্যাশনাল ফিড মিলসসহ বেশ কিছু শেয়ারের লেনদেনকে কেন্দ্র করে ডিএসইতে তিন মাস সাতদিনের মধ্যে সর্বোচ্চ লেনদেন হয়েছে।

রোববার ডিএসইতে মোট ১ হাজার ৪০৬ কোটি ৯৬ লাখ ৪৩ হাজার টাকা লেনদেন হয়েছে। এর আগে চলতি বছরের ২৪ জানুয়ারি এ বাজারে ১ হাজার ৫৮৫ কোটি ২২ লাখ ৯ হাজার টাকা লেনদেন হয়েছিল। সেই হিসেবে তিন মাস সাতদিনের মধ্যে সর্বোচ্চ লেনদেন হয়েছে রোববার।

শুধু লেনদেনেই রেকর্ড গড়েনি এদিন, ডিএসইর প্রধান সূচকও সাড়ে ৫ হাজার পয়েন্ট অতিক্রম করেছে দেড় মাস পর। এর আগে গত ১৬ মার্চ ডিএসইর সূচক ছিল ৫ হাজার ৫১৬ পয়েন্টে। তার আগের দিন সূচক ছিল ৫ হাজার ৫৩২ পয়েন্টে।

গত দু'সপ্তাহের মতো বোরবারও বিমা তালিকাভুক্ত ৫০টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দাম বেড়েছে ২৫টির, কমেছে ২২টির, আর অপরিবর্তিত ছিল তিনটির শেয়ারের। ফলে দাম বাড়ার শীর্ষ ১০-এর তালিকায় উঠে এসেছে বেশ কয়েকটি বিমা কোম্পানির শেয়ার। এছাড়াও বস্ত্র খাতে তালিকাভুক্ত ৫৬টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দাম বেড়েছে ৪৮টির, কমেছে চারটির, আর অপরিবর্তিত ছিল চারটি কোম্পানির শেয়ারের।

এসব প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি বহুজাতিক কোম্পানি গ্রামীণফোন, ম্যারিকো এবং বার্জার পেইন্টসসহ বেশ কিছু বড় মূলধনী কোম্পানির শেয়ারের দাম বেড়েছে। আর তাতে সূচক ও লেনদেন উভয় বেড়েছে বলে মনে করেন বাজার সংশ্লিষ্টরা।

ডিএসইর তথ্য মতে, রোববার বাজারটির প্রধান সূচক ডিএসইএক্স আগের দিনের তুলনায় ৩৭ দশমিক ৪০ পয়েন্ট বেড়ে ৫ হাজার ৫১৭ পয়েন্টে দাঁড়িয়েছে। শরিয়াহভিত্তিক কোম্পানি নিয়ে গঠিত ডিএসইএস ৫ দশমিক ২৯ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১ হাজার ২৫৫ পয়েন্টে। তবে বাছাই করা কোম্পানি নিয়ে গঠিত ডিএস-৩০ সূচক ১২ দশমিক ৪০ পয়েন্ট বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২ হাজার ১২৩ পয়েন্টে।

লেনদেন হওয়া কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১৮০টির, কমেছে ১০৪টির, অপরিবর্তিত রয়েছে ৭৭টির। মোট লেনদেন হয়েছে ১ হাজার ৪০৬ কোটি ৯৬ লাখ ৪৩ হাজার টাকা। আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ১ হাজার ১৭২ কোটি ৫১ লাখ ৯৬ হাজার টাকা। অর্থাৎ আগের দিনের চেয়ে প্রায় তিনশ কোটি টাকা লেনদেন বেড়েছে।

দাম বাড়ার শীর্ষে থাকা কোম্পানিগুলো হচ্ছে- কেপিসিএল, ম্যাকসন স্পিনিং, মতিন স্পিনিং, প্যারামাউন্ট টেক্সটাইল, অর্গান ডেনিমস, মালেক স্পিনিং, মোজাফ্ফার হোসেন স্পিনিং, ড্রাগন সোয়েটার, মেট্রো স্পিনিং এবং কুইন সাউথ টেক্সটাইল লিমিটেড।

ডিএসইতে লেনদেনের শীর্ষে ছিল- বেক্সিমকো, প্রভাতী ইন্স্যুরেন্স, ন্যাশনাল ফিড মিলস, বেক্সিমকো ফার্মা, লঙ্কাবাংলা ফাইন্যান্স, সোনার বাংলা ইন্স্যুরেন্স, সামিট পাওয়ার, সিটি জেনালে ইন্স্যুরেন্স এবং ম্যাকসন স্পিনিং লিমিটেড।

দেশের অপর পুঁজিবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) প্রধান সূচক সিএএসপিআই ১২৯ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৫ হাজার ৯৭৩ পয়েন্টে।

লেনদেন হওয়া কোম্পানি ও মিউচ্যুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১৪৫টির, কমেছে ৮২টির, আর অপরিবর্তিত রয়েছে ৪০টির। লেনদেন হয়েছে মোট ৩১ কোটি ৭৭ লাখ ৭৩ হাজার টাকা। এর আগের দিন লেনদেন হয়েছিল ৫৭ কোটি ১৩ লাখ ১৬ হাজার টাকা।

যাযাদি/এসআই

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে