১০ জনের আতালান্তার বিপক্ষে রিয়ালের কষ্টের জয়

১০ জনের আতালান্তার বিপক্ষে রিয়ালের কষ্টের জয়

বেশিরভাগ সময় এক জন বেশি নিয়ে খেলার সুবিধা কাজে লাগাতে পারছিল না রিয়াল মাদ্রিদ। ভুগছিল আতালান্তার জমাট রক্ষণ ভাঙতে। আচমকা দূর পাল্লার শটে প্রতিরোধ ভাঙলেন ফেরলঁদ মঁদি। ইতালি থেকে জয় নিয়ে ফিরল জিনেদিন জিদানের দল।

উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে বুধরাত রাতে শেষ ষোলোর প্রথম লেগে ১-০ গোলে জিতেছে স্প্যানিশ চ্যাম্পিয়নরা। সপ্তদশ মিনিটে মঁদিকে ফাউল করায় লাল কার্ড দেখেন রেমো ফ্রয়লার।

প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী আক্রমণাত্মক শুরু করে আতালান্তা। চোটের জন্য অনেক শক্তি হারানো রিয়ালের মনোযোগ ছিল খেলার গতি কমিয়ে রাখার দিকে।

প্রতিপক্ষের রক্ষণে গিয়ে ভুগছিল দুই দলই। এরই মধ্যে সপ্তদশ মিনিটে ১০ জনের দলে পরিণত হয় আতালান্তা। ডি-বক্সের বাইরে মঁদিকে ফাউল করলে ফ্রয়লারকে সরাসরি লাল কার্ড দেখান রেফারি।

এক জন কম নিয়ে খেললেও কমেনি আতালান্তার খেলার গতি। যদিও বল দখল, গোলের জন্য শট ও লক্ষ্যে শটে বেশ এগিয়ে ছিল রিয়াল। তবে সেভাবে ভালো সুযোগ কমই তৈরি করেছে ইউরোপের সফলতম দলটি।

চোটের জন্য ৩০তম মিনিটে মাঠ ছাড়েন আতালান্তা ফরোয়ার্ড দুভান জাপাতা।

৩৮তম মিনিটে ইসকোর সামনে সুযোগ আসে দলকে এগিয়ে নেওয়ার। তার শট এক জনের গায়ে লেগে একটুর জন্য বাইরে দিয়ে চলে যায়। প্রথমার্ধের যোগ করা সময়ে গোল প্রায় পেয়েই যাচ্ছিল রিয়াল। টনি ক্রুসের ফ্রি কিকে কাসেমিরোর হেড কোনোমতে ফিরিয়ে দেন আতালান্তা গোলরক্ষক।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরু থেকে আতালান্তাকে চেপে ধরে রিয়াল। গোলও প্রায় পেয়ে যাচ্ছিল দ্রুতই। ৪৭তম মিনিটে লুকা মদ্রিচের বুলেট গতির শট এক জনের গায়ে লেগে পোস্ট ঘেঁষে বেরিয়ে যায়।

৫৩তম মিনিটে ভিনিসিউস জুনিয়র ৭ গজ দূর থেকে বল জালে পাঠাতে পারেননি। নষ্ট হয় সফরকারীদের আরেকটি সুযোগ।

কোনোমতেই সেরি আর দলটির জমাট রক্ষণ ভাঙতে পারছিল না রিয়াল। শেষ পর্যন্ত ৮৬তম মিনিটে ডি-বক্সের বাইরে থেকে বাঁকানো শটে ঠিকানা খুঁজে নেন মঁদি। রিয়াল পায় স্বস্তির জয়।

আগামী ১৬ মার্চ রিয়ালের মাঠে আবার মুখোমুখি হবে দল দুটি।

যাযাদি/ এমডি

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে