শুক্রবার, ৩০ অক্টোবর ২০২০ ১৪ কার্তিক ১৪২৭

গত ২৪ ঘন্টার তথ্য

ভারতে আক্রান্তের চেয়ে সুস্থতার হার বেশি

করোনা থেকে সুস্থ হয়ে উঠেছে ৪২ লাখের বেশি মানুষ দেশটিতে সংক্ষিপ্ত হতে পারে পার্লামেন্ট অধিবেশন
ভারতে আক্রান্তের চেয়ে সুস্থতার হার বেশি
একজনের নমুনা সংগ্রহ করা হচ্ছে

ভারতে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ৫৩ লাখ পার হয়ে গেছে। তবে দেশটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থতার হারও বেড়েছে। দেশটির কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের হিসাব অনুসারে, এখন পর্যন্ত দেশটিতে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৫৩ লাখ ৮ হাজার। অন্যদিকে, কোভিড-১৯ সংক্রমণে মৃতু্য হয়েছে মোট ৮৫ হাজার ৬১৯ জনের। সংবাদসূত্র : এনডিটিভি, এবিপি নিউজ

এরই মধ্যে করোনা থেকে সুস্থ হয়ে উঠেছে ৪২ লাখ ৮ হাজার ৪৩১ জন। দেশটিতে বর্তমানে করোনার সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ১০ লাখ ১৩ হাজার ৯৬৪। দেশটিতে ক্রমবর্ধমান কোভিড সংক্রমণ বাড়লেও আশার কথা এটাই, সেখানে করোনাজয়ীর সংখ্যা সক্রিয় রোগীর চার গুণের বেশি।

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে ৯৩ হাজার ৩৩৭ জন। করোনা সংক্রমণে মৃতু্য হয়েছে এক হাজার ২৪৭ জনের। অন্যদিকে, ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়ে উঠেছে ৯৫ হাজার ৮৮১ জন। অর্থাৎ, ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তের চেয়ে সুস্থ রোগীর সংখ্যা বেশি। দেশটিতে গড়ে সুস্থতার হার ৭৯ দশমিক ২৮ শতাংশ। এছাড়া মৃতু্যহার এক দশমিক ৬১ শতাংশ। দৈনিক সুস্থতার সংখ্যায় রেকর্ড হয়েছে ভারতে।

ভারতের কোভিড সংক্রমণে এখন পর্যন্ত শীর্ষে রয়েছে মহারাষ্ট্র। সেখানে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ১১ লাখ পেরিয়ে গেছে। রাজ্যটিতে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছে মোট ১১ লাখ ৪৬ হাজারের বেশি। করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃতু্য হয়েছে ৩১ হাজার ৩৫১ জনের। সুস্থ হয়ে উঠেছে ৮ লাখ ১২ হাজার ৩৫৪ জন। মহারাষ্ট্রে রোগীর সংখ্যা তিন লাখ দুই হাজার ১৩৫।

দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে অন্ধ্রপ্রদেশ। ওই রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা ছয় লাখ দুই হাজার পেরিয়েছে। কোভিড-১৯ সংক্রমণে মৃতু্য হয়েছে পাঁচ হাজার ১৭৭ জনের। এরই মধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছে পাঁচ লাখ ৮ হাজার ৮৮ জন। অন্ধ্রপ্রদেশে সক্রিয় রোগী ৮৮ হাজার ১৯৭।

তৃতীয় অবস্থানে থাকা তামিলনাড়ুতে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা পাঁচ লাখ ২৫ হাজার ৪২০। করোনা সংক্রমণে মৃতু্য হয়েছে ৮ হাজার ৬১৮ জনের। সুস্থ হয়ে উঠেছে চার লাখ ৭০ হাজার ১৯২ জন। তামিলনাড়ুতে সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ৪৬ হাজার ৬১০।

চতুর্থ স্থানে রয়েছে কর্ণাটক। সেখানে করোনায় আক্রান্ত হয়েছে চার লাখ ৯৪ হাজার ৩৫৬ জন। এখন পর্যন্ত কর্ণাটকে কোভিড-১৯ সংক্রমণে মৃতু্য হয়েছে সাত হাজার ৬২৯ জনের। সংক্রমণ থেকে সুস্থ হয়ে উঠেছে তিন লাখ ৮৩ হাজারের বেশি। রাজ্যটিতে বর্তমানে সক্রিয় রোগী এক লাখ তিন হাজার ছাড়িয়েছে।

এদিকে, উত্তরপ্রদেশে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা তিন লাখ ৩৬ হাজার পার হয়েছে। করোনায় মৃতু্য হয়েছে চার হাজার ৭৭১ জনের। সুস্থ হয়ে হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েছে দুই লাখ ৬৩ হাজার ২৮৮ জন। উত্তরপ্রদেশে সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ৬৮ হাজারের বেশি।

ষষ্ঠ স্থানে রয়েছে রাজধানী দিলিস্ন। সেখানে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা দুই লাখ ৩৫ হাজার পেরিয়ে গেছে। কোভিড সংক্রমণে মৃতু্য হয়েছে চার হাজার ৮৭৭ জনের। সুস্থ হয়ে উঠেছে এক লাখ ৯৮ হাজার ১০৩ জন। দিলিস্নতে সক্রিয় রোগী ৩১ হাজার ছাড়িয়েছে।

ভারতে পার্লামেন্ট অধিবেশন সংক্ষিপ্ত হতে পারে

এদিকে, ভারতে এবারের পার্লামেন্ট অধিবেশন শুরু হওয়ার পর এক সপ্তাহও পার হয়নি। এরই মধ্যে কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত হয়েছেন অন্তত ৩০ এমপি। ফলে নির্দিষ্ট সময়ের আগেই অধিবেশন শেষ করে দেওয়া হতে পারে বলে জানিয়েছেন দুই কর্মকর্তা।

করোনা মহামারির কারণে গত প্রায় ছয় মাস ধরে ভারতে পার্লামেন্ট অধিবেশন বসেনি। মহামারি শুরুর পর গত ১৪ সেপ্টেম্বর প্রথমবার পার্লামেন্ট অধিবেশন শুরু হয়, যা আগামী ১ অক্টোবর পর্যন্ত চলার কথা।

কিন্তু এখন যেভাবে এমপিদের মধ্যে ভাইরাসের সংক্রমণ ঘটছে, তাতে হয়তো এক সপ্তাহ আগেই অধিবেশন শেষ করে দেওয়া হতে পারে বলে জানান এ বিষয়ে সংশ্লিষ্ট দুই কর্মকর্তা। মহামারির মধ্যে অধিবেশন শুরু হওয়ায় সংক্রমণের বিস্তার আটকাতে এমপিদের প্রতিদিন কোভিড-১৯ পরীক্ষার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
আইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

Copyright JaiJaiDin ©2020

Design and developed by Orangebd

close

উপরে