বিজেপির রাষ্ট্রপতি প্রার্থী কে এই দ্রৌপদী মুর্মু

ওডিশার ময়ূরভঞ্জ জেলার বাইদাপোসি গ্রামে ১৯৫৮ সালে এক সাঁওতাল পরিবারে জন্ম দ্রৌপদীর। রাজনীতিতে আসার আগে তিনি এক স্কুলের শিক্ষিকা ছিলেন। ঝাড়খন্ডের প্রথম নারী গভর্নর দ্রৌপদী মুর্মু তার রাজনীতি শুরু হয় একজন কাউন্সিলর হিসেবে। ওডিশা থেকে বিজেপির প্রার্থী হিসেবে দুই মেয়াদে আইনপ্রণেতা ছিলেন তিনি। বিজেপির সমর্থন নিয়ে রাজ্য সরকার গঠন করা বিজু জনতা দলের (বিজেডি) মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়েকের মন্ত্রিসভায়ও ছিলেন দ্রৌপদী মুর্মু
বিজেপির রাষ্ট্রপতি প্রার্থী কে এই দ্রৌপদী মুর্মু
দ্রৌপদী মুর্মু

ভারতের আসন্ন রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে নিজেদের প্রার্থী হিসেবে ঝাড়খন্ড রাজ্যের সাবেক গভর্নর দ্রৌপদী মুর্মুর নাম ঘোষণা করেছে দেশটির ক্ষমতাসীন দল বিজেপি। রাষ্ট্রপতি হওয়ার দৌড়ে ওডিশা রাজ্যের আদিবাসী নারী দ্রৌপদী মুর্মুর প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী বিরোধী জোট মনোনীত সাবেক কেন্দ্রীয় মন্ত্রী যশোবন্ত সিনহা।

এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে বলা হচ্ছে, যদি নির্বাচিত হন, তাহলে আদিবাসী সম্প্রদায় থেকে ভারতের প্রথম রাষ্ট্রপতি হতে যাচ্ছেন ৬৪ বছর বয়সি দ্রৌপদী মুর্মু। ভারতের নির্বাচন কমিশন বলেছে, পরবর্তী রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে ভোটগ্রহণ হবে ১৮ জুলাই। ২১ জুলাই হবে ভোট গণনা। এরপর ২৫ জুলাই রাষ্ট্রপতি শপথ নেবেন।

রাষ্ট্রপতি প্রার্থী চূড়ান্ত করতে গত মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বিজেপির পার্লামেন্টারি বোর্ডের বৈঠকের পর বিজেপির প্রার্থী হিসেবে দ্রৌপদী মুর্মুর নাম ঘোষণা করা হয়।

বিজেপি প্রধান জেপি নাড্ডা বলেন, বোর্ড ২০ জনের নাম নিয়ে আলোচনার পর একজন আদিবাসী ও নারীকে বেছে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে বিজেপির প্রার্থী হিসেবে দ্রৌপদী মুর্মুর নাম ঘোষণার পর দলটির নেতা ও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি টুইট করে তাকে অভিনন্দন জানান।

২০১৭ সালে ভারতের রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে বিহার রাজ্যের গভর্নর ও দলিত সম্প্রদায়ের রামনাথ কোবিন্দকে মনোনয়ন দেয় বিজেপি। ক্ষমতাসীন দলের সমর্থনে রাষ্ট্রপতি নির্বাচিত কোবিন্দের মেয়াদ শেষ হচ্ছে ২৫ জুলাই।

ওডিশার ময়ূরভঞ্জ জেলার বাইদাপোসি গ্রামে ১৯৫৮ সালে এক সাঁওতাল পরিবারে জন্ম দ্রৌপদীর। রাজনীতিতে আসার আগে তিনি এক স্কুলের শিক্ষিকা ছিলেন। ঝাড়খন্ডের প্রথম নারী গভর্নর দ্রৌপদী মুর্মু তার রাজনীতি শুরু হয় একজন কাউন্সিলর হিসেবে। ওডিশা থেকে বিজেপির প্রার্থী হিসেবে দুই মেয়াদে আইনপ্রণেতা ছিলেন তিনি। বিজেপির সমর্থন নিয়ে রাজ্য সরকার গঠন করা বিজু জনতা দলের (বিজেডি) মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়েকের মন্ত্রিসভায়ও ছিলেন দ্রৌপদী মুর্মু।

মঙ্গলবার একই দিনে রাষ্ট্রপতি প্রার্থী হিসেবে সাবেক কেন্দ্রীয় মন্ত্রী যশোবন্ত সিনহার নাম ঘোষণা করা হয়। রাষ্ট্রপতি প্রার্থী হতে বিরোধী জোটের পক্ষ থেকে এর আগে তিনজনকে প্রস্তাব দেওয়া হয়। তারা হলেন- ন্যাশনালিস্ট কংগ্রেস পার্টির (এনসিপি) শারদ পাওয়ার, ন্যাশনাল কনফারেন্সের (এনসি) প্রধান ফারুক আবদুলস্নাহ ও মহাত্মা গান্ধীর নাতি গোপালকৃষ্ণ গান্ধী। তারা প্রার্থী হতে রাজি হননি। এরপরই যশোবন্ত সিনহার নাম প্রস্তাব করে বিরোধী জোট।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2022

Design and developed by Orangebd


উপরে