• মঙ্গলবার, ২৬ জানুয়ারি ২০২১, ১২ মাঘ ১৪২৭

বিস্মিত শাওন

বিস্মিত শাওন
মেহের আফরোজ শাওন

এতদিন অন্যদের ভূতুড়ে বিলের কথা শুনলেও খুব একটা আমলে নেননি টিভি ও চলচ্চিত্র অভিনেত্রী মেহের আফরোজ শাওন। কিন্তু এবার নিজের বিদু্যৎ বিল দেখে চমকে গেছেন তিনি। সেই সঙ্গে ক্ষোভও প্রকাশ করেছেন এ তারকা। বিষয়টি নিয়ে নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক আইডি থেকে স্ট্যাটাসটি দেন তিনি। শাওন লিখেন, আমি নিয়মিত বিদু্যৎ বিল দিই। গ্যাস বিল, পানির বিল, ফোন ও ইন্টারনেট বিল সবই নিয়মিত দিই। এটা কোনো প্রশংসনীয় কাজ নয়, এটা দায়িত্ব। নিয়মিত বিল দিই মানে আমি আমার নাগরিক দায়িত্ব পালন করি। হুমায়ূনপত্নী আরও বলেন, নাগরিক দায়িত্ব পালন করে ঠিকমতো আয়কর দেওয়ার কারণে ২০১৭-২০১৮ অর্থবছরে আমি পুরস্কৃত হয়েছি। শ্রেষ্ঠ করদাতাদের তালিকায় অনেক সম্মানি ব্যক্তি এবং প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে ছোট্ট করে আমার নামটাও আছে। তবে এবার বোধহয় খেলাপিদের তালিকায় আমার নাম উঠতে যাচ্ছে! শাওন জানান, মে মাসের বিদু্যৎ বিল পেয়ে আমার এমনটাই অনুভূত হয়েছে। তিনজনের ছোট সংসারে জানুয়ারি মাসে আমার বিদু্যৎ বিল ছিল চার হাজার ৬০৪ টাকা ও ফেব্রম্নয়ারিতে পাঁচ হাজার ৪৫৭ টাকা। কিন্তু করোনার সময় মার্চ মাসে নয় হাজার ৭০ টাকা, এপ্রিলে ২০ হাজার ৬৯৩ টাকা ও মে মাসে ২৯ হাজার ৮০১ বিল এসেছে। তবে এমন ঘটনা শুধু মেহের আফরোজ শাওন একাই নন, অনেকেরই বিদু্যৎ বিল বেশি এসেছে বলে অভিযোগ তুলেছেন। মূলত শাওনের ফেসবুক পোস্টে গিয়ে তারকা-অনুসারীরা এমন অভিযোগ তুলছেন।

প্রসঙ্গত করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের কারণে সরকার ফেব্রম্নয়ারি থেকে এপ্রিল পর্যন্ত তিন মাসের আবাসিক গ্রাহকের বিদু্যতের বিল নেওয়া বন্ধ রাখার ঘোষণা দিয়েছিল। গত তিন মাসের যে বকেয়া বিল গ্রাহকের হাতে ধরিয়ে দেওয়া হয়েছে তা দেখে অনেক গ্রাহক এখন ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে