চলচ্চিত্র পরিচালনায় কেমন করবেন তিন অভিনেত্রী

চলচ্চিত্র পরিচালনায় কেমন করবেন তিন অভিনেত্রী
রোজিনা অরুণা বিশ্বাস হৃদি হক

লাইট-ক্যামেরার সামনে ক্যারিয়ারের দীর্ঘ সময় পার করেছেন চিত্রনায়িকা রোজিনা, অরুণা বিশ্বাস এবং মঞ্চ ও টিভি অভিনেত্রী হৃদি হক। সাবলীল অভিনয়ের দরুন দর্শক ও সুধীমহলে বেশ প্রশংসা কুড়িয়েছেন তারা। সেরা অভিনেত্রী হিসেবে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারও পেয়েছেন রোজিনা-অরুণা। অভিনয়ের পাশাপাশি নাটক পরিচালনাতেও হাত রয়েছে এই তিন অভিনেত্রীর। তবে এবার তারা মাঠে নেমেছেন বিনোদনের সবচেয়ে বড় মাধ্যম চলচ্চিত্র নির্মাণে। অভিনয় ও ছোটপর্দার পরিচালনার অভিজ্ঞতাকে পুঁজি করে প্রথমবারের মতো চলচ্চিত্র পরিচালনা করছেন এই তিন নারী তারকা। যদিও সবগুলো চলচ্চিত্রই সরকারি অনুদানের এবং মুক্তিযুদ্ধভিত্তিক প্রেক্ষপটের। সীমিত বাজেট ও নানা সীমাবদ্ধতার মধ্যেও শুরু করেছেন তাদের চলচ্চিত্র নির্মাণের মিশন। এরই মধ্যে এই তিন নারী অভিনয়শিল্পীর প্রথম পরিচালনা চলচ্চিত্রগুলো নিয়ে আগ্রহ তৈরি হয়েছে দর্শকের। পাশাপাশি এর আগে নারী নির্মাতারা প্রশংসিত হলেও চলচ্চিত্র নির্মাণে কেমন করবেন রোজিনা-অরুণা ও হৃদি- এমন কৌতূহলও রয়েছে দর্শকমনে। চিত্রনায়িকা রোজিনা গত বছরেই শুটিং শেষ করেছেন তার পরিচালনায় প্রথম চলচ্চিত্র 'ফিরে দেখা'। মুক্তিযুদ্ধের সত্য ঘটনা অবলম্বনে এটি তৈরি করা হয়েছে বলে জানান বহু ব্যবসাসফল চলচ্চিত্রের নায়িকা রোজিনা। এতে প্রধান কয়েকটি চরিত্রে অভিনয় করেছেন ইলিয়াস কাঞ্চন, নিরব, স্পর্শিয়া ও রোজিনা নিজেও। এই চলচ্চিত্রের অন্যতম একটি চমক হচ্ছে ইলিয়াস কাঞ্চনের অভিনয়। এর মাধ্যমে দীর্ঘদিন পর অভিনয়ে ফিরেছেন এক সময়ের এই সুপারস্টার। তার সঙ্গেই জুটি বেঁধেছেন রোজিনা। ১০ বছরেরও বেশি সময় পর তারা জুটি হয়ে অভিনয় করেছেন। এতে ইলিয়াস কাঞ্চন-রোজিনাকে দেখা যাবে স্বামী-স্ত্রীর চরিত্রে। এর আগে রোজিনা নাটক পরিচালনা করে প্রশংসিত হয়েছেন। দীর্ঘদিন পর চলচ্চিত্র দিয়ে পরিচালনায় ফিরেছেন। তবে তার এই চলচ্চিত্র কতটা দর্শক টানবে তার জন্য মুক্তির অপেক্ষায় থাকতে হবে। গত ডিসেম্বরে চলচ্চিত্রটি মুক্তির কথা থাকলেও এখনো আলোর মুখ দেখেনি 'ফিরে দেখা'। এটির এখন কারিগরি অংশের কাজ চলছে। চলচ্চিত্রটি স্বাধীনতার মাস মার্চে মুক্তি পাবে বলে উলেস্নখ করে রোজিনা বলেন, 'যেহেতু এটি আমার পরিচালিত প্রথম চলচ্চিত্র, তাই এটির কোনো ত্রম্নটি রাখতে চাই না। সবাই আন্তরিকতা নিয়ে কাজ করেছেন। বিশেষ করে ইলিয়াস কাঞ্চন অনেক দিন পর আমার চলচ্চিত্রের মাধ্যমেই অভিনয়ে ফিরেছেন।' এদিকে এটি মুক্তির আগেই আরেকটি ছবি নির্মাণের পরিকল্পনা হাতে নিয়েছেন রোজিনা। চলচ্চিত্রের আরেক অভিনেত্রী অরুণা বিশ্বাস। যদিও নাট্যকার ও নাট্য পরিচালক হিসেবেও কাজ করেছেন তিনি। তবে চলচ্চিত্র নিয়েই তার ধ্যান-জ্ঞান। প্রায় বছর তিন আগে সর্বশেষ একটি নাটক নির্মাণ করেছিলেন বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ডের এ সদস্য। গত বছরের শেষ দিকে 'এক আজলা আগুন' নামে একটি স্বল্পদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র পরিচালনার পর এবার প্রথমবার নির্মাণ শুরু করেছেন পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র। নিজের প্রযোজনা সংস্থা 'যাত্রা ভিশন'-এর ব্যানারের চলচ্চিত্রের নাম 'অসম্ভব'। মানিকগঞ্জের জাবরা গ্রামে এরই মধ্যে চলচ্চিত্রের ষাট ভাগ দৃশ্য ধারণের কাজ শেষ হয়েছে। সর্বশেষ শুটিং হয় ৭ ডিসেম্বর। বাকি অংশের কাজ শেষ করে চলতি বছরেই চলচ্চিত্রটি মুক্তি দিতে চান অরুণা। চলচ্চিত্রটি দর্শকের জন্য একটি বিশেষ উপহার বলে মনে করছেন এই অভিনেত্রী। অরুণা বিশ্বাস বলেন, 'যেহেতু আমি দীর্ঘদিন ধরেই চলচ্চিত্রে এবং নাটকে অভিনয় করছি, নাটক পরিচালনাও করেছি। এবার পূর্ণদৈর্ঘ্য চলচ্চিত্র পরিচালনা করছি। দর্শকদের জন্য ভালো উপহার দিতে শতভাগ চেষ্টা করছি।' 'অসম্ভব' চলচ্চিত্রের মূল গল্প অরুণা বিশ্বাসের ভাই প্রসূন বিশ্বাস মিঠুর এবং সংলাপ রচনা করেছেন যৌথভাবে প্রসূন বিশ্বাস মিঠু ও মুজতবা সউদ। চলচ্চিত্রটিতে অরুণা বিশ্বাস নিজেও অভিনয় করেছেন। এছাড়া আরও রয়েছেন আবুল হায়াত, শতাব্দী ওয়াদুদ, সোহানা সাবা, গাজী আব্দুন নূর, শাহেদ, স্বাগতা এবং যাত্রা সম্রাজ্ঞী জ্যোৎস্না বিশ্বাস চরিত্রে জ্যোৎস্না বিশ্বাস নিজেই অভিনয় করছেন। মঞ্চ ও টিভি নাটকে দূ্যতি ছড়ানো অভিনেত্রী হৃদি হক পরিচালিত প্রথম চলচ্চিত্রের নাম '১৯৭১ :সেইসব দিন'। মুক্তিযুদ্ধের গল্প অবলম্বনে নির্মিত এ চলচ্চিত্রের প্রথম শুটিং শুরু হয় ২০২০ সালে ঠাকুরগাঁও জেলার একটি গ্রামে। শেষ হয় গত ২৬ সেপ্টেম্বর। হৃদি হক বলেন, 'মুক্তিযুদ্ধের চেয়ে বড় আর কিছু হতে পারে না। সেই গল্পটিই বলা হয়েছে '১৯৭১ সেইসব দিন' চলচ্চিত্রে। তাই আয়োজনটাও বেশ বড়। ১৯৭১ সালের একটি পরিবার এবং সেই সময়ের কিছু ঘটনা তুলে ধরা হয়েছে এ চলচ্চিত্রে।' এ চলচ্চিত্রে অভিনয় করছেন মামুনুর রশীদ, জয়ন্ত চট্টোপাধ্যায়, মুনমুন আহমেদ, শিল্পী সরকার অপু, ফেরদৌস, তারিন, লিটু আনাম, সজল, সাজু খাদেম, সানজিদা প্রীতি প্রমুখ। পরিচালনার পাশাপাশি অভিনয়ও করছেন হৃদি হক। চলচ্চিত্রেটির মূল গল্প ভাবনা সদ্যপ্রয়াত অভিনেতা ডক্টর ইনামুল হকের। দিন তারিখ ঠিক না হলেও তারকাবহুল এ চলচ্চিত্রটি চলতি বছরেই মুক্তি পাচ্ছে। সরকারি অনুদানে মুক্তিযুদ্ধের মতো এত বড় একটা ঘটনা কীভাবে তারা চলচ্চিত্রে তুলে এনেছেন-সেটাই এখন দেখার বিষয়।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

সকল ফিচার

ক্যাম্পাস
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
আইন ও বিচার
হাট্টি মা টিম টিম
কৃষি ও সম্ভাবনা
রঙ বেরঙ

Copyright JaiJaiDin ©2022

Design and developed by Orangebd


উপরে