মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৪ মাঘ ১৪২৯
walton1

সংবাদ সংক্ষেপ

নতুনধারা
  ০৭ ডিসেম্বর ২০২২, ০০:০০
ডিপজল এবার 'আলী ভাই' ম বিনোদন রিপোর্ট ঢাকাই চলচ্চিত্রের দাপুটে খল অভিনেতা মনোয়ার হোসেন ডিপজল। প্রযোজক হিসেবেও সমান সফল তিনি। ঘোষণা দিয়েছিলেন, ১২ মাসে ১২টি সিনেমা প্রযোজনা করবেন। সেই ধারাবাহিকতায় এরই মধ্যে বেশ কয়েকটি সিনেমা নির্মাণ করেছেন। মাঝখানে করোনা ও লকডাউনের কারণে সিনেমা নির্মাণে কিছুটা বেঘাত ঘটে। এবার আবার নতুন সিনেমা প্রযোজনা করছেন ডিপজল। খুব শিগগিরই 'আলী ভাই' নামে নতুন সিনেমার মহরত করা হবে। সিনেমাটি নির্মাণ করবেন মনতাজুর রহমান আকবর। তিনি জানান, নতুন বছরের শুরুতে 'আলী ভাই' নামের সিনেমার কাজ শুরু করা হবে। এতে নাম ভূমিকায় অভিনয় করবেন ডিপজল। এ ছাড়া বিভিন্ন চরিত্রে অভিনয় করবেন মিশা সওদাগর, জয় চৌধুরী, শিরিন শিলা, নবাগত কাজলসহ অনেকে। ইতোমধ্যে 'অমানুষ হলো মানুষ', 'যেমন জামাই তেমন বউ', 'বাংলার হারকিউলিস', 'ঘর ভাঙা সংসার' এবং 'জিম্মি' নামের সিনেমার নির্মাণকাজ শেষ করে মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে। ওয়েব সিরিজের টাইটেল সং গাইলেন পান্থ কানাই ম বিনোদন রিপোর্ট 'কাবাডি'র ওয়েব সিরিজের সূচনা সঙ্গীতে কণ্ঠ দিয়েছেন পান্থ কানাই। সম্প্রতি রাজধানীর একটি স্টুডিওতে এর রেকর্ডিং হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি। রাজীব আশরাফের কথায় এর সঙ্গীতায়োজন করেছেন জাহিদ নীরব। গানটিতে কণ্ঠ দেওয়া প্রসঙ্গে পান্থ কানাই বলেন, 'কাবাডি' দেশের ঐতিহ্যবাহী খেলা। এই খেলার সঙ্গে জীবনের যে সম্পর্ক রয়েছে, সেটা গানে গানে উঠে এসেছে। গানটি গেয়ে ভালো লেগেছে। শ্রোতাদেরও ভালো লাগবে এটি।' ওটিটি পস্ন্যাটফর্ম বায়োস্কোপের জন্য সিরিজটি নির্মাণ করেছেন রুবায়েত মাহমুদ। ওয়েব সিরিজের গানের পাশাপাশি শিগগিরই নতুন একটি সিনেমার গানে কণ্ঠ দেওয়ার কথা রয়েছে তার। যদিও এ বিষয়ে বিস্তারিত জানাতে নারাজ তিনি। এ ছাড়া স্টেজ শো নিয়ে ব্যস্ত সময় কাটছে এই কণ্ঠশিল্পীর। আসছে বইমেলায় প্রকাশ হতে যাচ্ছে তার লেখা আত্মজীবনী 'আমি মুক্তি চেয়েছিলাম'। কিংবদন্তী প্রকাশনী থেকে এটি বাজারে আসবে। এক সঙ্গে ইউনেস্কো সিসিমপুর ম বিনোদন রিপোর্ট শিশুদের কাছে বাংলাদেশে ইউনেস্কোর তিন বিশ্ব ঐতিহ্য সুন্দরবন, ঐতিহাসিক মসজিদের শহর বাগেরহাট ও পাহাড়পুর বৌদ্ধবিহারকে পরিচিত এবং জনপ্রিয় করতে এক সঙ্গে কাজ করবে ইউনেস্কো এবং সিসেমি ওয়ার্কশপ বাংলাদেশ তথা সিসিমপুর। নতুন এই উদ্যোগের আওতায় তথ্য এবং বিনোদনের মাধ্যমে শিশুদের কাছে এই তিন বিশ্ব ঐতিহ্যকে আরও বেশি পরিচিত করতে কাজ করবে সিসিমপুর। শিশুদের কাছে অত্যন্ত প্রিয় সিসিমপুরের চরিত্রগুলোকে দিয়ে এই তিন বিশ্ব ঐতিহ্যের ওপর তৈরি করা হবে এডুটেইনমেন্ট ভিডিও। পাশাপাশি শিশুদের জন্য থাকবে কিছু অংশগ্রহণমূলক কার্যক্রমও। এ উপলক্ষে ৫ ডিসেম্বর ইউনেস্কোর ঢাকা কার্যালয়ে ইউনেস্কো এবং সিসিমপুরের মধ্যে একটি দ্বিপক্ষীয় চুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। ইউনেস্কো-সিসিমপুর নতুন এই উদ্যোগ সম্পর্কে ইউনেস্কো বাংলাদেশের প্রধান সুজান ভাইজ বলেন, 'ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ কনভেনশনের ৫০তম বার্ষিকীতে সিসিমপুরের সঙ্গে এই যৌথ কার্যক্রম শুরু করতে পেরে আমরা আনন্দিত। এর মধ্য দিয়ে হালুম, টুকটুকি, ইকরি এবং শিকুর সঙ্গে আমাদের একটি বর্ণিল এবং ফলপ্রসূ যাত্রার সূচনা হলো। আমি বিশ্বাস করি, এই কার্যক্রম বাংলাদেশের শিশুদের কাছে দেশটির তিন বিশ্ব ঐতিহ্যবাহী স্থানকে আরও ব্যাপকভাবে পরিচিত করে তুলবে।' সিসিমপুরের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মোহাম্মদ শাহ আলম বলেন, 'ইউনেস্কোর এই বিশ্ব ঐতিহ্য আমাদের জন্য গর্বের। কিন্তু শুধু শিশুরাই নয়, আমাদের দেশের এই তিন বিশ্ব ঐতিহ্য সম্পর্কে আমরা অনেকেই ঠিকঠাক জানি না। অথচ এ বিষয়ে সবারই জানা দরকার। নতুন এই উদ্যোগের মাধ্যমে আমরা শিশু এবং নতুন প্রজন্মের তরুণদের কাছে ইউনেস্কোর তিন বিশ্ব ঐতিহ্যকে পরিচিত এবং জনপ্রিয় করতে চাই।'
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে