পি কে হালদারকান্ডে জড়িত ৮৩ জনের তালিকা হাইকোর্টে

পি কে হালদারকান্ডে জড়িত ৮৩ জনের তালিকা হাইকোর্টে

বিদেশে পলাতক এনআরবি গেস্নাবাল ব্যাংকের সাবেক ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) প্রশান্ত কুমার হালদার ওরফে পি কে হালদারের সঙ্গে অর্থ আত্মসাতে জড়িত ৮৩ জনের সংশ্লিষ্টতার পূর্ণাঙ্গ প্রতিবেদন হাইকোর্টে দাখিল করেছে বাংলাদেশ ফিন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিট (বিএফআইইউ)।

শনিবার সংশ্লিষ্ট কোর্টের রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন এ তথ্য জানিয়েছেন। তিনি বলেন, গত ১৩ জানুয়ারি বাংলাদেশ ফিন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিট হাইকোর্টে একটি পূর্ণাঙ্গ প্রতিবেদন দাখিল করেছে। যেখানে তারা উলেস্নখ করেছেন, পি কে হালদার কান্ডে ৮৩ জনের সংশ্লিষ্টতা পাওয়া গেছে। তাদের সব অ্যাকাউন্ট এরইমধ্যে জব্দ করা হয়েছে।

এ তালিকায় পি কে হালদারসহ সম্প্রতি দুদকের হাতে গ্রেপ্তার হওয়া অবন্তিকা বড়ালের নামও রয়েছে।

বিএফআইইউ তার গোয়েন্দা প্রতিবেদনে বলেছে, বিএফআইইউ

ইন্টারন্যাশনাল লিজিং অ্যান্ড ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিসেস লিমিটেডের অফিস পরিদর্শন করে। পরিদর্শন করে বিএফআইইউ দেখে যে, চারটি প্রতিষ্ঠান ২০১৫ সালে আর্থিক প্রতিষ্ঠানটি অধিগ্রহণের পরবর্তী ৩-৪ বছরে দুর্নীতি, জালিয়াতি ও নানাবিধ অনিয়মের মাধ্যমে নামসর্বস্ব ও কাগুজে প্রতিষ্ঠানের ঋণের নামে লেয়ারিংয়ের মাধ্যমে বিভিন্ন ব্যাংক, আর্থিক প্রতিষ্ঠান ও ক্যাপিটাল মার্কেট থেকে ২ হাজার ৪৬৭ কোটি টাকা সরিয়ে নিয়ে আত্মসাৎ করা হয়। আর্থিক প্রতিষ্ঠানটি কর্তৃক বিতরণ করা ঋণের পরিমাণ ৩ হাজার ৬৩৪ কোটি টাকা। অর্থাৎ ৬৭ দশমিক ৯১ ভাগ। এ বিষয়ে গোয়েন্দা প্রতিবেদনে ৪৩টি ঋণগ্রহীতা প্রতিষ্ঠানের নামে দেওয়া ঋণের অর্থের গতিপথসহ প্রকৃত সুবিধাভোগীদের বিষয়ে উলেস্নখ রয়েছে।

প্রতিবেদনে আরও বলা হয়, সার্বিক পর্যালোচনায় ইন্টারন্যাশনাল লিজিংয়ের পরিচালনা পর্ষদ, শীর্ষ ব্যবস্থাপনা, অভ্যন্তরীণ নিরীক্ষা বিভাগ, চিফ ফাইন্যান্সিয়াল অফিসার, ক্রেডিট ডিভিশনের কর্মকর্তাদের সহযোগিতায় পি কে হালদার ও তার সহযোগীরা ৮৩ ব্যক্তির ঋণের আড়ালে নানাবিধ অনিয়ম, দুর্নীতি ও জালিয়াতির মাধ্যমে আর্থিক প্রতিষ্ঠানটির দুই-তৃতীয়াংশের বেশি অর্থ আত্মসাৎ করেছেন মর্মে প্রতীয়মান হয়।

বিএফআইইউর প্রতিবেদন দুদককে দেওয়া হয়েছে। দুদকও এসব বিষয়ে কাজ করছে।

ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল এ কে এম আমিন উদ্দিন মানিক বলেন, পিকে হালদার নিয়ে যে সুয়োমোটো রুল হাইকোর্টে শুনানি চলছে সে বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংক ও বিএফআইইউ তাদের একটা প্রতিবেদন অ্যাটর্নি জেনারেল কার্যালয়ে জমা দিয়েছে। সেটা আমরা ২০ জানুয়ারি আদালতে হলফনামা আকারে দাখিল করব। প্রতিবেদনে দেখা যায় বিএফআইইউ ৮৩ জনের নামের তালিকা দুদককে দিয়েছে। ইতোমধ্যে তাদের ব্যাংক অ্যাকউন্ট জব্দ করা হয়েছে।

এদিকে ৮ জানুয়ারি পি কে হালদারকে গ্রেপ্তারে পরোয়ানা জারি করে ইন্টারপোল।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে