মুশতাকের মৃতু্য 'দুঃখজনক'

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ব্যবহার নিয়ে সরকার সতর্ক :কাদের

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ব্যবহার নিয়ে সরকার সতর্ক :কাদের

অন্যের মতামতকে সম্মান জানানো ও স্বাধীন মত প্রকাশের সীমানাভুক্ত উলেস্নখ করে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহণ ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ব্যবহার নিয়ে সরকার অত্যন্ত সতর্ক রয়েছে।

বাংলাদেশ রোড ট্রান্সপোর্ট অথরিটি (বিআরটিএ) আয়োজিত সেবা সপ্তাহের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি। অনুষ্ঠানে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হন তিনি।

ওবায়দুল কাদের বলেন, কারাগারে লেখক মুশতাক আহমেদের মৃতু্যর ঘটনাকে কেন্দ্র করে একটি কুচক্রী মহল ঘোলা পানিতে মাছ শিকারের অপচেষ্টা করছে। এ মৃতু্য অবশ্যই দুঃখজনক। সঠিক ঘটনা উন্মোচন করতে

ইতোমধ্যে তদন্ত কমিটি করা হয়েছে। আশা করি এর মাধ্যমে ঘটনার রহস্য বের হয়ে আসবে।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশের জন্য একদিকে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন যেমন জরুরি, তেমনি এ আইনের প্রয়োগ যাতে না হয় সে বিষয়ে সরকার সচেষ্ট। সরকার মত প্রকাশের স্বাধীনতায় বিশ্বাসী। স্বাধীনতা মানে এই নয়, যে যার মতো যা খুশি বলার নিরঙ্কুশ বা একচেটিয়া অধিকার পাবে।

রোববার থেকে ড্রাইভিং লাইসেন্স প্রদানের কাজ পুরোদমে শুরু হয়েছে উলেস্নখ করে সড়ক পরিবহণ মন্ত্রী বলেন, আগামী কয়েক দিনের মধ্যে বিভাগীয় পর্যায়েও লাইসেন্স প্রদানের কাজ শুরু করা হবে। লাইসেন্স সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠানকে এ বিষয়ে সর্বোচ্চ পেশাদারিত্বের পরিচয় দিয় কাজ করার নির্দেশ দেন তিনি।

যানবাহনে ফিটনেস গ্রহণের বিষয়ের ওপর গুরুত্ব দিয়ে সেতুমন্ত্রী বলেন, এ ক্ষেত্রে সরকার সেবা সহজিকরণে এবং গ্রাহকদের সুবিধার্থে দেশের যেকোনো সার্কেল অফিস হতে যানবাহনের ফিটনেস সনদ গ্রহণের সুযোগ করে দিয়েছে।

বিআরটিএ-কে একটি সঠিক সেবামুখী প্রতিষ্ঠান হিসেবে গড়ে তোলার নির্দেশ দিয়ে তিনি আরও বলেন, এই প্রতিষ্ঠানের সেবা পেতে এখনও গ্রাহক ভোগান্তি আছে, তবে এ ভোগান্তি প্রযুক্তির ব্যবহারের কারণে কমে আসছে। ডিজিটাল সেবার আওতা বাড়ানো গেলে দুর্নীতি ও অনিয়ম অনেকটা কমে যাবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

ওবায়দুল কাদের বলেন, বিআরটিএ-তে দালালের দৌরাত্ম্য এখনও আছে। অফিসের কিছু কর্মকর্তা-কর্মচারীর সঙ্গে তাদের যোগাযোগ রয়েছে। তাদের সখ্যতায় গড়ে উঠেছে এ চক্র। পরিবহণবিষয়ক যেকোনো অনিয়মের বিরুদ্ধে মোবাইল কোর্ট পরিচালনার জন্য জেলা প্রশাসকের নির্দেশনা নিয়ে কাজ করতে হবে এবং অনিয়মের বিরুদ্ধে সোচ্চার হতে হবে।

সড়ক মহাসড়কে বেপরোয়া গাড়ি চালানো বন্ধ করতে সংশ্লিষ্টদের কঠোর নির্দেশ দিয়ে তিনি আরও বলেন, ইতোমধ্যে সড়ক নিরাপত্তা কাউন্সিলের সভায় এ বিষয়ে কৌশল নির্ধারণে একটি সাব-কমিটি গঠন করা হয়েছে।

এ সময় ঐতিহাসিক ৭ মার্চ উপলক্ষে দলের কেন্দ্র থেকে তৃণমূলে যথাযোগ্য মর্যাদায় বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে পুষ্পার্ঘ্য অর্পণ, আলোচনা সভা ও ভাষণ প্রচারের মধ্য দিয়ে আওয়ামী লীগের সব সহযোগী ও ভ্রাতৃপ্রতিম সংগঠনসহ সবাইকে দিবসটি পালনের আহ্বান জানান।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে