শুধু নামের মিলে কারাভোগের অভিযোগ তদন্তের নির্দেশ

শুধু নামের মিলে কারাভোগের অভিযোগ তদন্তের নির্দেশ

শুধু নামের মিল থাকায় মাদকের মামলায় দন্ডপ্রাপ্ত আসামি মানিক মিয়ার বদলে মানিক হাওলাদারের কারাভোগের অভিযোগের বিচারিক তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। সেই সঙ্গে ৩০ দিনের মধ্যে অনুসন্ধান করে হাইকোর্টে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

প্রকৃত অপরাধীকে চিহ্নিত করতে শরীয়তপুরের চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটকে এই অনুসন্ধান করতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সিরাজগঞ্জের বিশেষ ট্রাইবু্যনাল-১ ও জেল সুপারকে এই অনুসন্ধান কাজে সহযোগিতা করতে বলা হয়েছে।

বিচারপতি জে বি এম হাসান ও বিচারপতি মো. খায়রুল আলমের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এক রিটের প্রাথমিক শুনানি নিয়ে সোমবার রুলসহ এই আদেশ দেন।

এদিকে প্রকৃত নাম ও ঠিকানা যাচাই না করে নামের মিলে মানিক হাওলাদারকে কারাগারে পাঠানোর বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে তার স্ত্রী সালমা বেগম ২ মার্চ রিটটি করেন। আদালতে রিটের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী পার্থ সারথী রায়। রাষ্ট্রপক্ষে শুনানি করেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল তুষার কান্তি রায়।

প্রসঙ্গত, মাদকের এক মামলায় মানিক মিয়া নামে এক ব্যক্তিকে ২০১৯ সালের ফেব্রম্নয়ারিতে চার বছরের কারাদন্ড দেন সিরাজগঞ্জের বিশেষ ট্রাইবু্যনাল-১। তার আগে মানিক মিয়া জামিন নিয়ে পলাতক হন। মামলার সূত্রে নামের আংশিক মিল থাকায় গত বছরের ২৮ নভেম্বর মানিক হাওলাদারকে গ্রেপ্তার করা হয়। সেই থেকে তিনি সিরাজগঞ্জ জেলা কারাগারে আছেন। এ অবস্থায় মানিক হাওলাদারের স্ত্রী রিট করেন।

নাম-পরিচয়ের সত্যতা যাচাই ছাড়া এই মামলায় মানিক হাওলাদারকে গ্রেপ্তার ও কারাগারে পাঠানোর আদেশ কেন আইনগত কর্তৃত্ববহির্ভূত হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল দিয়েছেন হাইকোর্ট। স্বরাষ্ট্রসচিব,

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে