সেনাবাহিনী প্রধানের সঙ্গে শান্তিরক্ষা মিশনের ফোর্স কমান্ডারদের সৌজন্য সাক্ষাৎ

সেনাবাহিনী প্রধানের সঙ্গে শান্তিরক্ষা মিশনের ফোর্স কমান্ডারদের সৌজন্য সাক্ষাৎ

বাংলাদেশে সফররত ইউনাইটেড নেশন্‌স মাল্টিডাইমেনশনাল ইন্টিগ্রেটেড স্ট্যাবিলাইজেশন মিশন ইন দ্য সেন্ট্রাল আফ্রিকান রিপাবলিকের (মিনুসকা) ফোর্স কমান্ডার লেফটেন্যান্ট জেনারেল সিদিকি ড্যানিয়েল ত্রাওর ও ইউনাইটেড নেশনস্‌ মিশন ইন সাউথ সুদানের (আনমিস) ফোর্স কমান্ডার লেফটেন্যান্ট জেনারেল শাইলেশ সাদাশিভ তিনাইকার মঙ্গলবার সেনাবাহিনী সদরদপ্তরে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন।

ফোর্স কমান্ডাররা সাক্ষাৎকালে পারস্পরিক কুশল বিনিময় ছাড়াও চলমান শান্তিরক্ষা কার্যক্রমে উদ্ভূত চ্যালেঞ্জ এবং তা মোকাবিলায় করণীয় বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়। আলোচনায় শান্তিরক্ষা কার্যক্রমে নারীদের বিশেষভাবে সম্পৃক্তকরণ, মিশন এলাকায় এয়ার সহায়তা বৃদ্ধি এবং বৈশ্বিক মহামারি কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে শান্তিরক্ষা অপারেশনের কার্যপ্রণালির ওপর বিশেষ গুরুত্বারোপ করেন জেনারেল আজিজ আহমেদ।

ফোর্স কমান্ডারদের সাক্ষাতের আগে বাংলাদেশে সফররত ভুটান সেনাবাহিনীর ডেপুটি চিফ অব অপারেশনস ব্রিগেডিয়ার জেনারেল দরজি রিনচেন সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন। আলোচনায় জেনারেল আজিজ আহমেদ বলপূর্বক বাস্তুচু্যত মিয়ানমার নাগরিকদের নিজ দেশে ফেরত পাঠানোর ব্যাপারে বাংলাদেশের প্রতি ভুটান সরকারের অকুণ্ঠ সমর্থন বজায় থাকবে বলে পূর্ণ আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

উলেস্নখ্য, মুজিব জন্মশতবার্ষিকী এবং স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উদযাপন উপলক্ষে বহুজাতিক অনুশীলন 'শান্তির অগ্রসেনা' পরিচালিত হয়। এই অনুশীলনের সর্বাপেক্ষা তাৎপর্যপূর্ণ অধ্যায় 'আমি চিফস' কনক্লেভ'। এতে যোগদানের উদ্দেশ্যে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনের ফোর্স কমান্ডাররা বাংলাদেশে আসেন। সফর শেষে তারা মঙ্গলবার ঢাকা ত্যাগ করেন। এ ছাড়া ভুটান সেনাবাহিনীর ডেপুটি চিফ অব অপারেশনস্‌ ব্রিগেডিয়ার জেনারেল দরজি রিনচেন 'আর্মি চিফস' কনক্লেভ' এবং বহুজাতিক অনুশীলন 'শান্তির অগ্রসেনা'তে অংশগ্রহণের জন্য ঢাকায় আগমন করেন। সফর শেষে তিনি আজ ঢাকা ত্যাগ করবেন। আইএসপিআর

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে