অ্যামনেস্টির প্রতিবেদন মধ্যপ্রাচ্যের চার দেশেই বিশ্বের মোট মৃতু্যদন্ডের ৮৮ শতাংশ

অ্যামনেস্টির প্রতিবেদন মধ্যপ্রাচ্যের চার দেশেই বিশ্বের মোট মৃতু্যদন্ডের ৮৮ শতাংশ

২০২০ সালে বিশ্বে মৃতু্যদন্ড দেওয়ার হারে শীর্ষে থাকা প্রথম পাঁচটি দেশের চারটিই মধ্যপ্রাচ্যের। বিশ্বের মোট মৃতু্যদন্ডের ৮৮ শতাংশই এই চারটি দেশে ঘটেছে বলে জানিয়েছে আন্তর্জাতিক মানবাধিকার সংগঠন অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, ২

এই চারটি দেশ হলো ইরান, মিসর, ইরাক ও সৌদি আরব। বিশ্বের ১৮টি দেশে ২০২০ সালে ৪৮৩টি মৃতু্যদন্ডের তথ্য পেয়েছে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল। এর মধ্যে ইরানে ২৪৬-এর বেশি, মিসরে ১০৭-এর বেশি, ইরাকে ৪৫-এর বেশি এবং সৌদি আরবে ২৭ জনের মৃতু্যদন্ড দেওয়া হয়েছে। তবে এই হিসাবে চীনকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়নি। বলা হয়ে থাকে, চীনে প্রতি বছর হাজারো মানুষকে অপরাধী বিবেচনায় মৃতু্যদন্ড দেওয়া হয়ে থাকে। তবে এ বিষয়ে দেশটি প্রকৃত হিসাব কখনোই প্রকাশ করে না।

অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল বলছে, এর মধ্য দিয়ে প্রমাণিত হয়েছে, কোভিড-১৯ মহামারির মধ্যেও মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলো মৃতু্যদন্ড দিচ্ছে এবং এটি নির্দয় বিচারব্যবস্থার পরিচায়ক।

অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের হিসাব অনুযায়ী, বিশ্বব্যাপী মৃতু্যদন্ডের দিক থেকে এক দশকের মধ্যে সবচেয়ে কম সংখ্যা এবার।

বুধবার অ্যামনেস্টির প্রকাশিত বার্ষিক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ২০২০ সালে মধ্যপ্রাচ্য ও উত্তর আফ্রিকায় মোট ৪৩৭টি মৃতু্যদন্ডের ঘটনা ঘটেছে। ২০১৯ সালে এই সংখ্যাটি ছিল ৫৭৯। সেই হিসাবে এই দুই অঞ্চলে মৃতু্যদন্ডের পরিমাণ কমেছে।

প্রতিবেদন অনুযায়ী, সৌদি আরবে মৃতু্যদন্ডের পরিমাণ আগের বছরের তুলনায় ৮৫ শতাংশ কমেছে। আর ইরাকে কমেছে ৫০ শতাংশ। তবে মিসরে মৃতু্যদন্ডের পরিমাণ ৩০০ শতাংশ বৃদ্ধি পাওয়ায় মধ্যপ্রাচ্য অঞ্চল বিবেচনায় মৃতু্যদন্ডের মোট সংখ্যায় তার কোনো প্রভাব পড়েনি।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে