সামনে অন্ধকার দিন দেখছে যুক্তরাষ্ট্র

করোনার ডেল্টা ধরনে ফ্লোরিডা ও লুইজিয়ানায় রোগী সর্বোচ্চ পর্যায়ের কাছাকাছি
সামনে অন্ধকার দিন দেখছে যুক্তরাষ্ট্র

একদিন আগেই যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষ চিকিৎসা উপদেষ্টা এবং মহামারি ও সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ ডক্টর অ্যান্থনি ফাউচি আশঙ্কা করেছিলেন, চলমান করোনাভাইরাস মহামারির আরও অবনতি হতে পারে যুক্তরাষ্ট্রে। তার কথাকে সত্য প্রমাণ করে দেশটির দক্ষিণাঞ্চলীয় রাজ্য ফ্লোরিডা ও লুইজিয়ানায় মহামারিতে একদিনে হাসপাতালে ভর্তি হওয়া রোগীর সংখ্যা সর্বোচ্চ বা সর্বোচ্চ পর্যায়ের কাছাকাছি পৌঁছে গেছে। করোনাভাইরাসের 'ডেল্টা' ধরনটি ছড়াতে থাকায় সোমবার পরিস্থিতি এ পর্যায়ে পৌঁছে। সামনে 'সবচেয়ে অন্ধকার দিন' দেখতে হতে পারে বলে সতর্ক করেছেন অঙ্গরাজ্য পর্যায়ের একজন শীর্ষ চিকিৎসা কর্মকর্তা। সংবাদসূত্র : রয়টার্স

রোববার ফ্লোরিডায় ১০ হাজারের বেশি রোগীকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সংখ্যাটি রাজ্যটিতে একদিনে সর্বোচ্চ রোগী ভর্তি হওয়ার আগের রেকর্ডটি ছাপিয়ে গেছে।

লুইজিয়ানায় পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে আগের রেকর্ডটি ভেঙে যাবে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এমন পরিস্থিতিতে রাজ্যটির ডেমোক্র্যাট দলীয় গভর্নর জন বেল এডওয়ার্ডস বাসিন্দাদের ঘরের ভেতরেও মাস্ক ব্যবহার করার নির্দেশ দিয়েছেন। এডওয়ার্ডসের সঙ্গে এক সংবাদ সম্মেলনে

'আওয়ার লেডি দ্য লেক রিজিওনাল মেডিকেল সেন্টার'র প্রধান চিকিৎসা কর্মকর্তা ডা. ক্যাথরিন ও'নিল বলেন, 'মহামারির সবচেয়ে অন্ধকার দিন এগুলো। আমরা আর রোগীদের পর্যাপ্ত সেবা দিতে পারছি না।' তিনি লুইজিয়ানাবাসীকে টিকা নিয়ে নেওয়ার আহ্বান জানিয়ে বলেন, হাসপাতালগুলো রোগীতে উপচে পড়ছে। অনেক নার্স করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন, তাই রাজ্যটি ছয় হাজার কর্মীর ঘাটতিতে পড়েছে বলেও জানান তিনি।

প্রতিবেশী আরকানসাস অঙ্গরাজ্যেও হাসপাতালে ভর্তির সংখ্যা বাড়ছে এবং শেষ পর্যন্ত আগের রেকর্ড ভেঙে যেতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

ক্যালিফোর্নিয়া রাজ্যের সান ফ্রান্সিসকো বে এরিয়ার আটটি কাউন্টির ইনডোর পাবলিক পেস্নসগুলোতে মঙ্গলবার থেকে ফের মাস্ক ব্যবহার করার নির্দেশ দিয়েছে স্থানীয় কর্তৃপক্ষগুলো।

নিউইয়র্ক ও নিউ জার্সি রাজ্যের গভর্নররা বলেছেন, কারাগার, হাসপাতাল ও নার্সিং হোমের কর্মীদের টিকা নিতে হবে, অথবা নিয়মিত পরীক্ষা করাতে হবে।

কলোরাডো অঙ্গরাজ্যের রাজধানী শহর ডেনভারের মেয়র মাইকেল হ্যানকক জানিয়েছেন, নগরীটির ১১ হাজারের বেশি কর্মীর জন্য টিকা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।

নিউইয়র্কের গভর্নর অ্যান্ড্রু কুমো বার, রেস্তোরাঁ ও ব্যক্তি-মালিকানাধীন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানগুলোকে ক্রেতাদের প্রবেশের আগে টিকা দেওয়ার বাধ্যবাধকতা রাখার আহ্বান জানিয়েছেন। আক্রান্তের সংখ্যা না কমলে নার্সিং হোমের কর্মী, শিক্ষক ও স্বাস্থ্যকর্মীদের টিকা বাধ্যতামূলক করা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

নিউ জার্সির গভর্নর ফিল মারফি বলেছেন, রাজ্যের বাসিন্দা ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের ওপর ফের বিধিনিষেধ আরোপ করতে পারেন তিনি।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে