কম্বোডিয়ার বিপক্ষে বাংলাদেশের টানা তৃতীয় জয়

কম্বোডিয়ার বিপক্ষে বাংলাদেশের টানা তৃতীয় জয়
কম্বোডিয়ার বিপক্ষে গোল করার পর রাকিবকে নিয়ে সতীর্থদের উচ্ছ্বাস -সংগৃহীত

শুরুতে অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়া হাতছাড়া করলেন দারুণ সুযোগ। রাকিব হোসেন উপহার দিলেন চমৎকার এক গোল। সেটিই শেষ পর্যন্ত গড়ে দিল ম্যাচের ব্যবধান।র্ যাংকিংয়ে এগিয়ে থাকা কম্বোডিয়াকে হারিয়ে জয়খরা কাটাল বাংলাদেশ। কম্বোডিয়ার জাতীয় স্টেডিয়ামে বৃহস্পতিবার আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে ১-০ গোলে জিতেছে বাংলাদেশ পুরুষ ফুটবল দল। কম্বোডিয়ার বিপক্ষে এটি বাংলাদেশের টানা তৃতীয় জয়।

সব মিলিয়ে দুই দলের পাঁচ সাক্ষাতে চারবারই জিতেছে বাংলাদেশ। অন্য ম্যাচটি ড্র। কম্বোডিয়ার বিপক্ষে ৫ ম্যাচে ৬ গোল করেছে বাংলাদেশ, খেয়েছে দুটি। কম্বোডিয়ার বিপক্ষে বৃহস্পতিবার

মাঠে নামার আগে জামাল ভূঁইয়ারা প্রেরণা খুঁজে নিয়েছিলেন সাফ নারী চ্যাম্পিয়নশিপজয়ী সাবিনা খাতুনদের কাছ থেকে। হতাশ করেননি জামালরা। উইঙ্গার রাকিব হোসেনের একমাত্র গোলে এদিন ফিফা প্রীতি ম্যাচে কম্বোডিয়াকে হারিয়েছে বাংলাদেশ।

দুই দলের সর্বশষে সাক্ষাৎ ছিল ২০১৯ সালের মার্চে কম্বোডিয়ার নমপেনের অলিম্পিক স্টেডিয়ামে। রবিউল হাসানের একমাত্র গোলে সেই ম্যাচ জিতেছিল বাংলাদেশ। এর আগের জয়টি আসে ২০০৯ সালে। সেই ফিফা প্রীতি ম্যাচে বাংলাদেশ জিতেছিল ১-০ গোলে। আর সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে সাত ম্যাচ আর ১০ মাস পর জয়ের দেখা পেল বাংলাদেশ। এর আগে সবশেষ গত বছরের নভেম্বরে তারা শ্রীলংকার প্রাইম মিনিস্টার মাহিন্দা রাজাপাকসা ট্রফিতে মালদ্বীপের বিপক্ষে জিতেছিল ২-১ গোলে। এরপর সাত ম্যাচের পাঁচটিতেই হেরেছিল, ড্র হয়েছিল বাকি দুটি।

ফিফা র?্যাংকিংয়ে ১৭৪তম কম্বোডিয়ার বিপক্ষে অপরাজেয় যাত্রা অব্যাহত রাখল ১৯২ নম্বরে থাকা বাংলাদেশ। এ নিয়ে পাঁচ ম্যাচের চারটি তারা জিতল, ড্র একটি। চলতি বছরের শুরুতে দায়িত্ব নেওয়া হাভিয়ের কাবরেরার কোচিংয়ে বাংলাদেশের প্রথম জয় এটি। ১৪ মিনিটে প্রথম উলেস্নখযোগ্য সুযোগ পেয়ে হারায় বাংলাদেশ। ডান দিক থেকে বিশ্বনাথ ঘোষের লম্বা থ্রো-ইন ডি-বক্সে পেয়ে ঠিকমতো শট নিতে পারেননি জামাল। তার প্রচেষ্টা পোস্টের সামান্য বাইরে দিয়ে যায়।

১৯তম মিনিটে দারুণ সেভ করে জাল অক্ষত রাখেন বাংলাদেশ গোলরক্ষক আনিসুর রহমান জিকো। অনেকটা দূর থেকে সিন কাকাডার বুলেট গতির শট লাফিয়ে এক হাতে ক্রসবারের ওপর দিয়ে পাঠান তিনি। তিন মিনিট পরই এগিয়ে যায় বাংলাদেশ। মতিন মিয়ার দারুণ পাস ডি-বক্সের সামনে খুঁজে পায় রাকিবকে। বল নিয়ন্ত্রণে নিয়ে একটু ভেতর ঢুকে ডান পায়ের জোরাল শটে গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন ২৩ বছর বয়সি এই ফরোয়ার্ড।

আর দ্বিতীয়ার্ধেও রক্ষণ জমাট রেখে খেলে বাংলাদেশ। ফলে তেমন সুবিধা করতে পারেনি স্বাগতিকরা। ৭৪তম মিনিটে ব্যবধান দ্বিগুণ হতে পারত। বক্সের বাইরে থেকে মতিন মিয়ার জোরাল শট ক্রসবারে লাগে। দুই মিনিট পর প্রতিপক্ষের একটি হেড ঠেকান জিকো। আর যোগ করা সময় আবারও ব্যবধান বাড়ানোর সুযোগ হারান দ্বিতীয়ার্ধে বদলি নামা মোহাম্মদ ইব্রাহিম। ভালো পজিশনে থেকে শট লক্ষ্যে রাখতে পারেননি এই ফরোয়ার্ড। শেষতক ১-০ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়েন জামাল ভূঁইয়ারা। আগামী মঙ্গলবার নেপালের মাঠে পরবর্তী প্রীতি ম্যাচে খেলবে বাংলাদেশ দল।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2022

Design and developed by Orangebd


উপরে