শনিবার, ২৩ জানুয়ারি ২০২১, ৯ মাঘ ১৪২৭

কিশোরী হাফসানা হত্যার রহস্য উদ্ঘাটন

কিশোরী হাফসানা হত্যার রহস্য উদ্ঘাটন

নেত্রকোনার দুর্গাপুর উপজেলার 'নো ম্যানস ল্যান্ড'র কাছাকাছি দুর্গম পাহাড়ের চূড়ায় কচুর লতা কুড়াতে গিয়ে নিখোঁজের ৩৬ ঘণ্টা পর পাহাড়ি আলু তোলার গর্ত থেকে কিশোরী হাফসানা বেগমের (১৬) লাশ উদ্ধারের ঘটনার প্রকৃত রহস্য উদ্ঘাটন করেছে পুলিশ। নেত্রকোনার পুলিশ সুপার আকবর আলী মুন্সী বৃহস্পতিবার সম্মেলনকক্ষে প্রেস ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, হাফসানার ভগ্নিপতি কলিকাপুর গ্রামের আবু হানিফের ছেলে আবুল কাশেম পাহাড়ে শ্যালিকাকে একা পেয়ে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে। হাফসানা ঘটনাটি সবাইকে বলে দিতে চাইলে তাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে কাশেম। শ্যালিকার জন্য তার অতি মায়া কান্না এবং ঘটনার দুদিন পর তার উপর মুখোশধারীদের হামলার ঘটনা সাজিয়ে তদন্ত ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করার অপচেষ্টার কারণে পুলিশের সন্দেহ হয়। আবুল কাশেমকে থানায় এনে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করায় বৃহস্পতিবার জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয় সে। পুলিশ সুপার জানান, দুর্গাপুর সদর ইউনিয়নের ভারতীয় সীমান্তবর্তী কলিকাপুর গ্রামের দিনমজুর আবু ছালেকের মেয়ে ১ জুলাই পাহাড়ি টিলার পাশে কচুর লতা কুড়াতে গিয়ে আর বাড়ি ফিরে আসেনি। পরিবারের লোকজন খোঁজাখুঁজি করেও কোনো সন্ধান পায়নি। ২ জুলাই স্থানীয়রা ভারতীয় সীমান্তবর্তী বিএসএফ ক্যাম্পের কাছাকাছি ঝর্ণা থেকে পানি আনতে গিয়ে পাহাড়ি আলু তোলার গর্তে তার লাশ দেখতে পায়। প্রেস ব্রিফিংয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফখরুজ্জামান জুয়েল, আল-আমিন হোসেন, মোরশেদা খাতুন, সহকারী পুলিশ সুপার মাহমুদা শারমিন নেলী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে