রোববার, ১৭ জানুয়ারি ২০২১, ৩ মাঘ ১৪২৭

পুলিশের মানবিকতায় পরিবার ফিরে পেল প্রতিবন্ধী রোকসানাকে

পুলিশের মানবিকতায় পরিবার ফিরে পেল প্রতিবন্ধী রোকসানাকে

দিনাজপুরের পার্বতীপুর মডেল থানা পুলিশের মানবিকতায় মানসিক প্রতিবন্ধী একটি মেয়ে ফিরে পেয়েছে তার পরিবার। ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার বিকেলে। মেয়েটির নাম রোকসানা (৩০)। বাসা নীলফামারীতে।

জানা গেছে, সোমবার রাত আনুমানিক ৩টায় ডিউটিরত অবস্থায় এসআই আবুল বাশার পার্বতীপুরের ভবানীপুর মোড় রেললাইনের পাশে একটি মেয়েকে ঘোরাফেরা করতে দেখেন। সেই সঙ্গে দেখতে পান কিছু দূরে কয়েকটি ছেলে ওই মেয়েকে অনুসরণ করছে। কিছুক্ষণ তাদের দিকে নজর রাখার পর বুঝতে পারেন ছেলেগুলো অসৎ উদ্দেশে মেয়েটিকে অনুসরণ করছে। তখন তিনি মেয়েটির কাছে গিয়ে নাম-ঠিকানা জিজ্ঞাসা করেন। কিন্ত মেয়েটি কিছুই বলতে পারেন না, শুধু হাসতে থাকেন। বিষয়টি তাৎক্ষণিক পার্বতীপুর মডেল থানার ওসি (তদন্ত) সোহেল রানাকে জানান এবং মেয়েটিকে থানায় নিয়ে যান। থানায় নারী পুলিশ সদস্য মেয়েটিকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তার নাম রোকসানা বলে জানান। কিন্তু ঠিকানা বলতে পারেন না। মঙ্গলবার সকালে ওসি সোহেল রানা থানায় এসে মেয়েটির সঙ্গে কথা বলার এক পর্যায়ে তিনি নীলফামারীর দাড়োয়ানী স্কুলে পড়াশোনা করেছেন বলে জানান। কিন্তু বাড়ি ও বাবার নাম বলতে পারেননি। শুধুমাত্র স্কুলের ঠিকানার সূত্র ধরে ওসি সোহেল নীলফামারীতে যোগাযোগ করেন। পরবর্তীতে স্কুলের প্রধান শিক্ষকের ফোন নম্বর সংগ্রহ ও তাকে কল করে মেয়েটির নাম এবং ঠিকানা জানতে পারেন। মেয়েটির বাবার নাম রফিকুল ইসলাম, বাড়ি নীলফামারীর শাহাপাড়া গ্রামে। এরপর তিনি ওই এলাকার ইউনিয়ন চেয়ারম্যানের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। ইউপি সদস্য মেয়েটির বাবাকে জানালে মঙ্গলবার বিকালে রফিকুল ইসলাম থানায় এসে মেয়েকে নিয়ে যান। এ সময় রফিকুল জানান, তার মেয়ে দীর্ঘদিন ভুল চিকিৎসার কারণে মানসিক ও বুদ্ধি প্রতিবন্ধী হয়েছে এবং তার বয়স ৩০ বছর। গত সোমবার সকালে বাড়ি থেকে বের হয়ে আর ফেরেনি।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে