রাজশাহীতে ধর্ষিতাকে বিয়ে করে মুক্তি পেলেন চিকিৎসক

রাজশাহীতে ধর্ষিতাকে বিয়ে করে মুক্তি পেলেন চিকিৎসক

ধর্ষণের শিকার শিক্ষানবিস নারী আইনজীবীকে আদালত চত্বরে বিয়ে করে জামিন পেয়েছেন রাজশাহীর এক চিকিৎসক। বুধবার বিকালে রাজশাহী নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবু্যনাল-১ বিচারকের সামনে ওই বিয়ে হয়। আসামি এসএম সাখাওয়াত হোসেন রানা (৪৬) রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চক্ষু বিভাগের সহকারী রেজিস্ট্রার। ভিকটিম একজন শিক্ষানবিশ আইনজীবী। ওই নারীর (২৭) বাড়ি চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলায়। তিনি রাজশাহী নগরে বান্ধবীর বাসায় সাবলেট থাকেন। আর চিকিৎসকের গ্রামের বাড়ি নওগাঁর পোরশায়। তার স্ত্রী-সন্তান রয়েছে। তিনি রাজশাহী নগরের টিকাপাড়া এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকেন।

বাদীপক্ষের আইনজীবী জাহাঙ্গীর আলম জানান, ওই শিক্ষানবিশ আইনজীবীকে ধর্ষণের অভিযোগে গত ২৫ জুলাই চিকিৎসক সাখাওয়াত গ্রেপ্তার হন। গত ১২ নভেম্বর তার বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করা হয়। তিনি বলেন, অভিযোগপত্র দাখিলের পর রানার বাবাসহ তার পরিবারের সদস্যরা বিয়ের প্রস্তাব দিয়ে আসছিলেন। সবশেষ গত সোমবার রানার বাবা তার ছেলেকে বিয়ে করতে ওই নারীকে প্রস্তাব দেন। পরে ওই নারী বিয়েতে রাজি হন। এরপর সেদিনই আদালতে একটি পিটিশন করা হয়- মামলার বাদী ও আসামি বিয়ে করতে চান। আসামিকে যেন জামিন দেওয়া হয়। এদিন বিচারক আসামিকে বুধবার আদালতে হাজির করার নির্দেশ দেন। বিচারক সিদ্ধান্ত দেন, আদালতেই তাদের বিয়ে হবে। সে অনুযায়ী চিকিৎসক রানাকে কারাগার থেকে আদালতে আনা হয়। এরপর বিচারকের সামনেই বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হয়।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে