পাবনা পৌরসভায় জমে উঠেছে ভোটের প্রচারণা

পাবনা পৌরসভায় জমে উঠেছে ভোটের প্রচারণা

পাবনা পৌরসভার নির্বাচন ৩০ জানুয়ারি। কে হবেন পৌর মেয়র এই নিয়েই চলছে পুরো শহরে নানা গুঞ্জন। কাকডাকা ভোর থেকেই প্রার্থীরা প্রচার-প্রচারণায় ব্যস্ত সময় পার করছেন। ভোটারদের দিচ্ছেন নানা প্রতিশ্রম্নতি। পুরো জেলার দৃষ্টি যেন পড়েছে পাবনা সদর পৌরসভার নির্বাচনে। উৎসবমুখর পরিবেশে নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা জমে উঠেছে। পাড়া-মহলস্না মাইকিং, নির্বাচনী অফিস, পোস্টারিং, প্যানা সাইনে ভরপুর। আঞ্চলিক সড়কগুলোর দু'পাশের টাঙানো পোস্টারে আকাশ ঢেকে যাওয়ার উপক্রম।

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, আওয়ামী লীগ, বিএনপি, জাতীয়পার্টি ও স্বতন্ত্রপ্রার্থী মিলে মেয়রপদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন ৫ জন। আর সাধারণ কাউন্সিল ৭৪ এবং সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ১৭ মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন। আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের মনোনীত প্রার্থীর বিপক্ষে অবস্থান নিয়ে স্বতন্ত্রপ্রার্থীর পক্ষে পৌর, সদর ও জেলা পর্যায়ের অধিকাংশ নেতাকর্মী অবস্থান নেওয়ায় প্রতিযোগিতামূলক নির্বাচনী প্রচার-প্রচারণা জমে উঠেছে।

তথ্যমতে, ১৮৭৬ সালে প্রতিষ্ঠিত পাবনা পৌরসভা। ১৫টি ওয়ার্ড নিয়ে গঠিত এ পৌরসভায় মোট ভোটারের সংখ্যা ১ লাখ ১২ হাজার ২৪৪ জন। ৩৯টি কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত হবে নির্বাচন। নির্বাচনে জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক আলী মুর্তজা বিশ্বাস সনি (নৌকা), জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির নুর মোহাম্মদ মাসুম বগা (ধানের শীষ), জেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি ও স্বতন্ত্রপ্রার্থী শরীফ উদ্দিন প্রধান (নারিকেল গাছ), জাতীয় পার্টির রাজন ইসলাম (লাঙল মার্কা) ও বাংলাদেশ ইসলামী শাসনতন্ত্র'র আবু বকর সিদ্দিকী (হাতপাখা) মেয়র পদে লড়ছেন।

পৌর এলাকার বড় বাজার, অনন্ত মোড়, লাইব্রেরি বাজার, কলেজ গেট, আব্দুল হামিদ সড়ক, শালগাড়িয়া, রাধানগর, সিংগা বাইপাস, সোনাপট্টি, কসাইপট্টি, কৃষ্ণপুর, আটুয়া, আরিফপুর, পৈলানপুর, চকছাতিয়ানি, কাঁলাচাদপাড়া, জেলাপাড়া, কোটচত্বর, মাসুমবাজার, বালিয়াহালট, নুরপুরসহ বেশ কয়েকটি মহলস্না ঘুরে দেখা যায়, প্রার্থীরা বাড়িবাড়ি, দোকানপাট, বাজার, শপিংমলসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে গিয়ে ভোট প্রার্থনা করছেন। এসময় তারা এলাকার উন্নয়নে আগামী দিনের বিভিন্ন প্রতিশ্রম্নতিও দিয়ে যাচ্ছেন।

অভিজ্ঞ মহল বলছেন, নির্বাচনে নৌকার প্রার্থী আলী মুর্তজা বিশ্বাস সনির সঙ্গে মূলত নারিকেল গাছ প্রতীকের স্বতন্ত্রপ্রার্থী শরীফ উদ্দিন প্রধানের ভোট যুদ্ধ হবে। তবে পক্ষে বিপক্ষে অবস্থানকারী এই দুই যুবলীগ নেতার ভোট লড়াইয়ে সুবিধাজনক অবস্থানে রয়েছেন ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী নুর মোহাম্মদ মাসুম বগা।

নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আলী মুর্তজা বিশ্বাস সনি বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর প্রতীক নৌকা। স্বাধীনতার পক্ষের শক্তি শেখ হাসিনার দেওয়া প্রতীককে কখনো মাথা নিচু করতে দেবেন না। দলীয় নেতাকর্মী ও সমর্থকদের পাশাপাশি সচেতন ভোটার পাবনা পৌরসভার উন্নয়নে এবং নাগরিক সুযোগ সুবিধা নিশ্চিতে অবশ্যই নৌকা প্রতীকে তাদের মূল্যবান ভোট দিয়ে জয়ী করবেন। তিনি পাবনা পৌরসভাকে আধুনিক ও যুগোপযোগী পৌরসভায় পরিণত করা ছাড়াও শহরের তীব্র যানজট নিরসন ও জলাবদ্ধতা দূরীকরণে অগ্রণী ভূমিকা রাখবেন এমন প্রতিশ্রম্নতির কথাই জানালেন।

ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থী নুর মোহাম্মদ মাসুম বগা বলেন, বিএনপির আন্দোলনের অংশ হিসেবেই এই নির্বাচনে অংশগ্রহণ করা হয়েছে। আওয়ামী লীগ সরকারের আমলে নির্বাচন গ্রহণযোগ্য ও বিশ্বাসযোগ্য নয়। তারপরও যদি ভোটাররা ভোট কেন্দ্রে গিয়ে স্বতঃস্ফূর্তভাবে তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারেন, তাহলে শতভাগ বিজয় নিশ্চিত।

নির্বাচন নিয়ে জেলার সিনিয়র নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং অফিসার মাহবুবুর রহমান বলেন, ছোটখাটো অভিযোগ ছিল। প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে। যে কোন ধরনের অনিয়ম বরদাস্ত করা হবে না। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটরা মাঠে রয়েছেন। নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে যাবতীয় প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট গ্রহণের কথাই জানালেই এই নির্বাচন কর্মকর্তা।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে