দোকানের বারান্দাতেই রাত কাটে রজব আলীর

দোকানের বারান্দাতেই রাত কাটে রজব আলীর

রুগ্‌ণ-শুকনো চেহারা। পরনে গেঞ্জি। মাথার নিচে পোটলা দিয়ে পরম সুখে ঘুমোচ্ছেন শার্টার বন্ধ দোকানের বারান্দায়। ধুলা-বালুতে মাখামাখি পুরো শরীর। খাবার পাবে না ভেবে মশারাও কাছে আসছে না। অচেনা কেউ দেখলে হয়তো ভাববে পাগল। আর পরিচিতরা তো জানেই তিনি কে। বলছিলাম ৫৯ বছরের বৃদ্ধ রজব আলীর কথা। শনিবার রাতে মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলার জয়চন্ডী ইউনিয়নের গিয়াসনগর মাদ্রাসা বাজারে আবুল মিয়ার দোকানের বারান্দায় শুয়ে থাকা রজব আলীর সঙ্গে কথা হয়। দীর্ঘ নিঃশ্বাস ছেড়ে তিনি বলেন, বয়স হয়ে যাওয়ায় এখন আর কেউ কাজে ডাকে না। এলাকার লোকজনের ঝাঁকি জাল তৈরি করে যা পান তা দিয়ে কোনোরকম বাজারের হোটেলে খান। কখনো ১-২ দিন না খেয়েও কাটাতে হয়। রাতে লোকজন দোকান বন্ধ করে চলে যাওয়ার পর বারান্দায় গিয়ে শুয়ে থাকেন। প্রধানমন্ত্রী সারাদেশে গৃহ ও ভূমিহীনদের ঘর দিচ্ছেন শুনে আশায় বুক বেঁধেছিলেন। সেই আশায় স্থানীয় চেয়ারম্যানের সুপারিশ নিয়ে সহকারী কমিশনারের (ভূমি) দরবারে একাধিকবার ধরনা দিয়েও কোনো লাভ হয়নি। উপজেলা চেয়ারম্যান এবং নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) কার্যালয়ে একাধিকবার গিয়েও দেখা পাননি। এ ব্যাপারে জয়চন্ডী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান কমর উদ্দিন আহমদ কমরু জানান, রজব আলী প্রকৃতপক্ষে একজন গৃহ ও ভূমিহীন হতদরিদ্র লোক। তিনি ইউনিয়ন পরিষদের প্যাডে সুপারিশ করে প্রত্যয়নপত্রও দিয়েছিলেন।

এ ব্যাপারে কুলাউড়ার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এ টি এম ফরহাদ চৌধুরী জানান, বিষয়টি আগে তার জানা ছিল না। রজব আলীকে একটি ঘরের ব্যবস্থা করে দিতে তিনি আপ্রাণ চেষ্টা করবেন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
আইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে