কাশিমপুর বীজ উৎপাদন খামার

উপ-পরিচালকের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ

উপ-পরিচালকের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ

ময়মনসিংহের মুক্তাগাছার কাশিমপুর বীজ উৎপাদন খামারের উপ-পরিচালকের বিরুদ্ধে শ্রমিকদের বেতন ও ঈদ বোনাসের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ উঠেছে। ভুয়া বিল ভাউচার দেখানো, শ্রমিকের বেতন ও বোনাসের টাকা আত্মসাৎসহ খামারে নানা অনিয়ম-দুর্নীতির অভিযোগ এনে শ্রমিকরা খামারের উপ-পরিচালক আব্দুল আহাদের বিরুদ্ধে সুষ্ঠু তদন্তের দাবি জানিয়েছেন। ভুক্তভোগী শ্রমিকরা এ বিষয়ে মুক্তাগাছা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) বরাবরে একটি লিখিত অভিযোগ করেন। অভিযোগে জানা যায়, বিএডিসি'র কাশিমপুর বীজ উৎপাদন কৃষি ফার্মের উপ-পরিচালক আব্দুল আহাদ তার অধীনস্থ ৬০ জন শ্রমিকের ঈদ বোনাসের টাকার জায়গায় তার বিশ্বস্ত ১৮ জন শ্রমিকের ঈদ বোনাস দিয়ে বাকিদের টাকা আত্মসাৎ করেন। পরবর্তীতে বোনাসের টাকা চাইতে গেলে তিনি টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানান এবং তাদের কাছ থেকে বের করে দেবেন বলেও শাঁসিয়ে দেন।

ভুক্তভোগী শ্রমিক গফুর জানান, 'আমি ২০০০ সালের আগে থেকে এই ফার্মে কাজ করছি। তবে আমরা কোনো সময়ই বেতন-বোনাস ঠিকমত পাই না। মাসে ৮-১০ দিন কাজ দেয় আমাকে। বছরে দুই ঈদে ১৫ হাজার টাকা বোনাস পেতাম। আহাদ স্যার ৩৮০০ টাকা বোনাস দিতে চান। টাকা নিতে অস্বীকৃতি জানালে মামলা করতে বলেন এবং পরবর্তীতে আর কাজ দেবেন না বলে শাঁসিয়ে দেন। ৩০ দিনের হাজিরায় স্বাক্ষর নিয়ে আমাদের ১০-১২ দিনের টাকা দেন। ফার্মে কীটনাশক ছিটানোর জন্য স্প্রে মেশিন দেওয়ার কথা থাকলেও তা না করে আমাদের নিজের টাকায় কিনে নিতে চাপ দেন।'

এসব অভিযোগ অস্বীকার করে কাশিমপুর বীজ উৎপাদন খামারের উপ-পরিচালক আব্দুল আহাদ বলেন, 'কিছু শ্রমিক কাজ না করেই বেতন ভাতা দাবি করে। দিতে অস্বীকার করায় কিছু শ্রমিক মিথ্যে কুৎসা রটাচ্ছে, যা মোটেই সত্য নয়। তারা ঠিকমত তাদের পাওনা পেয়ে থাকে।' মুক্তাগাছার ইউএনও আব্দুলস্নাহ আল মনসুর বলেন, 'বীজ উৎপাদন খামারের শ্রমিকদের অভিযোগ পেয়েছি, আমার এখতিয়ারাধীন না থাকায় এ বিষয়ে কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি।'

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2022

Design and developed by Orangebd


উপরে