মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ৩১ আষাঢ় ১৪৩১

পলস্নী বিদু্যৎকর্মীদের কর্মবিরতি অব্যাহত

স্বদেশ ডেস্ক
  ১১ জুলাই ২০২৪, ০০:০০
পলস্নী বিদু্যৎকর্মীদের কর্মবিরতি অব্যাহত

অভিন্ন সার্ভিস কোড বাস্তবায়ন এবং চুক্তিভিত্তিক ও অনিয়মিত কর্মকর্তা-কর্মচারীদের চাকরি স্থায়ীকরণের দাবিতে সারাদেশে চলমান পলস্নী বিদু্যৎ সমিতির কর্মকর্তা-কর্মচারীদের আন্দোলন অব্যাহত রয়েছে। আন্দোলনের দশম দিন বুধবার দেশের ৮০টি পলস্নী বিদু্যৎ সমিতির কর্মকর্তা-কর্মচারীরা একযোগে এ কর্মবিরতি পালন করছেন। প্রতিনিধিদের পাঠানো বিস্তারিত খবর-

শালিখা (মাগুরা) প্রতিনিধি জানান, শালিখাসহ মাগুরার পলস্নী বিদু্যৎ সমিতির সব কর্মকর্তা-কর্মচারীর কর্মবিরতি পালন অব্যাহত রয়েছে ১ জুলাই থেকে। বুধবার মাগুরা পলস্নী বিদু্যৎ সমিতির অফিস চত্বরে কর্মবিরতির সমর্থনে অনুষ্ঠিত সভায় বক্তব্য রাখেন শালিখার ডিজিএম মো. আলমগীর হোসেন মুসলেমী, ডিজিএম রঞ্জন কুমার (টেকনিক্যাল), ডিজিএম মো. রাহাদ, এজিএম মো. মাসুদ রানাসহ অন্যান্য এজিএম, জেই, এলটি, এলএম, এলসিএলরা। সভায় বক্তারা পলস্নী বিদু্যৎতায়ন বোর্ড কর্তৃক গুণগত মানহীন মালামাল ক্রয় করে গ্রাহকের ভোগান্তি বৃদ্ধি করা ও অভিন্ন চাকরিবিধি বাস্তবায়ন করাসহ বিভিন্ন দাবি আদায়ে এবং স্মার্ট ও টেকসই বাংলাদেশ বিনির্মাণে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেন।

ভালুকা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি জানান, ময়মনসিংহের ভালুকায় ময়মনসিংহ পলস্নী বিদু্যৎ সমিতি-২ এর কার্যালয়ে দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত কর্মকর্তা-কর্মচারীরা বিদু্যৎ ব্যবস্থ্যা সচল রেখে অনির্দিষ্টকালের জন্য কর্মবিরতির পালন করছেন। এরই ধারাবাহিকতায় বুধবার সকাল ১০টা থেকে ময়মনসিংহ পলস্নী বিদু্যৎ সমিতি-২ এর কার্যালয় চত্বরে সব কর্মকর্তা-কর্মচারীরা কাজে যোগদান না দিয়ে বিভিন্ন দাবিসংবলিত ব্যানার-ফ্যাস্টুন নিয়ে ও বিভিন্ন স্স্নোগান দিয়ে এক সমাবেশে মিলিত হয়ে কর্মবিরতি পালন করছে।

জানা যায়, পলস্নী বিদু্যতায়ন বোর্ড কর্তৃক পলস্নী বিদু্যৎ সমিতিসমূহে শোষণ, নির্যাতন, নিপীড়ন অব্যাহত রাখা, গুণগতমানহীন মালামাল ক্রয় করে গ্রাহক ভোগান্তি বৃদ্ধি করার প্রতিবাদে ও স্মার্ট-টেকসই বাংলাদেশ বিনির্মাণে বিআরইবি-পিবিএস একীভূতকরণসহ অভিন্ন চাকরিবিধি বাস্তবায়ন ও সব চুক্তিভিত্তিক/অনিয়মিত কর্মচারীদের চাকরি নিয়মিতকরণের দাবিতে তাদের এ কর্মবিরতি।

এ সময় কর্মবিরতি সমাবেশে বক্তব্য রাখেন সদরদপ্তরসহ বিভিন্ন জোনাল অফিসের এজিএম, ডিজিএমসহ বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা।

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে