এস কে সিনহার বিরুদ্ধে ভাতিজার সাক্ষ্য

এস কে সিনহার বিরুদ্ধে ভাতিজার সাক্ষ্য

সাবেক প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার সিনহার বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিয়েছেন তার ভাতিজা শঙ্খজিৎ সিনহা। বুধবার ঢাকার চতুর্থ বিশেষ জজ শেখ নাজমুল আলমের আদালতে সাক্ষ্য দেন তিনি।

জবানবন্দিতে শঙ্খজিৎ বলেন, চাচা এসকে সিনহার নির্দেশে উত্তরার শাহজালাল ব্যাংকে তিনি ও তার বাবা একটি যৌথ অ্যাকাউন্ট খোলেন। সেই অ্যাকাউন্টে পরে দুই কোটি ২৩ লাখ টাকা স্থানান্তর করা হয়। এই অর্থ স্থানান্তরের বিষয়ে তার কিছু জানা ছিল না।

জবানবন্দিতে তিনি আরও উলেস্নখ করেন, এই টাকার মধ্য থেকে পরে ঢাকা ব্যাংক সাভারের ইপিজেড শাখায় তার ব্যক্তিগত অ্যাকাউন্টে ৭৮ লাখ টাকা স্থানান্তর করা হয়, যার মধ্যে ঢাকা ব্যাংক ইপিজেড শাখায় দুটি সঞ্চয়পত্রে যথাক্রমে ৫০ ও ১০ লাখ টাকা জমা রাখেন। আর বাকি ১৮ লাখ টাকা একই ব্যাংকে জমা রাখেন। আর এই পুরো কাজটি তিনি এসকে সিনহার নির্দেশেই করেছেন।

উপস্থিত আসামিপক্ষের আইনজীবীরা শঙ্খজিৎকে জেরা করবেন না বলে জানান। আদালত পরবর্তী সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য আগামী ২ ফেব্রম্নয়ারি দিন ধার্য করেন। এই মামলায় রাষ্ট্রপক্ষে মোট ১৮ জন সাক্ষী ছিল। তবে বুধবার দুদক কৌঁসলি মীর আহম্মেদ আলী সালাম মামলায় ফারমার্স ব্যাংকের আরও তিনজনকে সাক্ষী হিসেবে গ্রহণের আবেদন করেন। আদালত সেই আবেদন মঞ্জুর করেন। তাই এই মামলায় সবমিলিয়ে মোট ২১ সাক্ষীর ১৬ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ হলো।

সাক্ষ্য দিতে না আসায় গত ৮ ডিসেম্বর নরেন্দ্র কুমার সিনহা ও ভাতিজা শঙ্খজিৎ সিনহার বিরুদ্ধে পরোয়ানা জারি করেন।

এই মামলার মোট আসামি ১১ জন। এর মধ্যে কারাগারে থাকা আসামি মাহবুবুল হক চিশতি ওরফে বাবুল চিশতিকে এদিন আদালতে হাজির করা হয়। এছাড়া জামিনে থাকা এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট ও প্রাক্তন ক্রেডিট প্রধান কাজী সালাহউদ্দিন, সাবেক এমডি এবিএম শামীম, ভাইস প্রেসিডেন্ট লুৎফুল হক, ফার্স্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট স্বপন কুমার রায়, টাঙ্গাইলের মো. শাহজাহান ও নিরঞ্জন কুমার সাহা আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

এই মামলায় এসকে সিনহাসহ মোট ৪ আসামি এখন পলাতক। তারা হলেন- ফার্স্ট ভাইস প্রেসিডেন্ট সফিউদ্দিন আসকারী আহমেদ, সাভারের শ্রীমতি সান্ত্রী রায় (সিমি) ও শ্রী রণজিৎ চন্দ্র সাহা।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে