রোববার, ১৭ জানুয়ারি ২০২১, ২ মাঘ ১৪২৭

দেশীয় সংস্কৃতি ধরে রাখতে হবে :তথ্যমন্ত্রী

দেশীয় সংস্কৃতি ধরে রাখতে হবে :তথ্যমন্ত্রী

বাংলার সংস্কৃতি ধরে রাখার আহ্বান জানিয়ে তথ্যমন্ত্রী ডক্টর হাছান মাহমুদ বলেন, 'আকাশ সংস্কৃতির হিংস্র থাবায় আমাদের দেশের সংস্কৃতি এখন হুমকির মুখে। আমাদের দেশে আগে বিয়ে, গায়েহলুদের অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের গান গাওয়া হতো। আমাদের ছেলেমেয়েরা দেশীয় সাজসজ্জা নিয়েই হাজির হতো। এখন তা বদলে যাচ্ছে ধীরে ধীরে। এটি অত্যন্ত বেদনাদায়ক। এখন আর বাংলা গান না হয়ে, অনেক সময় হিন্দি গান হয়। অনেক ক্ষেত্রে ইংরেজি গান হয়। সেখানে সাজগোজেও কিন্তু হিন্দি সিরিয়াল দেখে করা হচ্ছে। এগুলো আমাদের সংস্কৃতির ওপর প্রচন্ড আঘাত আনছে। দেশীয় সংস্কৃতিগুলোকে ধরে রাখতে হবে।'

পুরান ঢাকার ধুপখোলা মাঠে সাকরাইন উৎসব উপলক্ষে এক অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে তথ্যমন্ত্রী এসব কথা বলেন। এ সময় তিনি ঘুড়ি ওড়ান। বৃহস্পতিবার ঢাকার স্থানীয় সাংবাদিকদের সংগঠন ঢাকা সাংবাদিক হ

ফোরাম এই আয়োজন করে।

অনুষ্ঠানের শুরুতে আলোচনা সভায় তথ্যমন্ত্রী বলেন, 'আমাদের সংস্কৃতিকে ধরে রাখা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এই সংস্কৃতি উদ্‌যাপনে করোনা মহামারির মধ্যেও আমাদের তরুণদের উৎসাহিত করা হচ্ছে। এগুলো আমাদের সংকট পাড়ি দিতে সহায়তা করে।'

মন্ত্রী আরও বলেন, 'সাকরাইন উৎসব শুধু পুরান ঢাকার উৎসব নয়, বাংলাদেশের উৎসব। এটি পুরান ঢাকার ঐতিহ্য তো বটেই, পাশাপাশি আমাদের আবহমান বাংলার ঐতিহ্য ও সংস্কৃতির অংশ। আগে শিশু-কিশোরেরা প্রায় সবাই ছোটবেলায় ঘুড়ি উড়িয়েছে। এখন যদিওবা শহরে ঘুরে বেড়ানোর সুযোগ নেই; বড় শহরগুলোয় অন্তত কমে গেছে। ঢাকা-চট্টগ্রামসহ বড় শহরগুলোয় এখন আর খেলার মাঠগুলো নেই। ছাদের ওপরে গিয়ে যে ঘুড়ি ওড়াব, সেই সুযোগটা অনেক সংকুচিত হয়ে গেছে। যে কারণে আমাদের তরুণেরা-কিশোরেরা আর ঘুড়ি ওড়াতে পারে না।'

সংগঠনের সভাপতি শামিম সিদ্দিকীর সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক আকতার হোসেনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ডেইলি অবজারভার পত্রিকার সম্পাদক ও প্রধানমন্ত্রীর সাবেক তথ্যবিষয়ক উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক বিপস্নব বড়ুয়া, সাবেক সাংসদ সাবিনা আকতার, ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বেনজীর আহমেদ, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু আহাম্মদ, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি শরিফুল ইসলাম প্রমুখ।

সংগঠনের সাবেক সাধারণ সম্পাদক শাকিল আহমেদ বলেন, 'আজ আমরা ফেসবুক ব্যবহার করছি মাথা নিচু করে। আর ঘুড়ি ওড়াই মাথা উঁচু করে।'

আয়োজন সম্পর্কে সংগঠনের সহসভাপতি লাবণ্য ভূঁইয়া বলেন, ঢাকাইয়াদের অনেক ঐতিহ্য রয়েছে। অনেক কিছু হারিয়ে যাচ্ছে। পুরান ঢাকার ঐতিহ্য-সংস্কৃতিগুলো তুলে ধরার অংশ হিসেবে সাকরাইন উৎসব আয়োজন করা হয়েছে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে