শেখ হাসিনার জাদুকরি নেতৃত্বে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ :তথ্যমন্ত্রী

শেখ হাসিনার জাদুকরি নেতৃত্বে এগিয়ে যাচ্ছে বাংলাদেশ :তথ্যমন্ত্রী
ডক্টর হাছান মাহমুদ

বাংলাদেশ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জাদুকরি নেতৃত্বে এগিয়ে যাচ্ছে উলেস্নখ করে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও তথ্যমন্ত্রী ডক্টর হাছান মাহমুদ বলেছেন, উন্নয়নের সব সূচক অর্জিত হওয়ার কারণে বাংলাদেশ ইতোমধ্যে স্বল্প উন্নত দেশ থেকে মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হয়েছে।

রোববার দুপুরে নওগাঁর আত্রাই উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রিবার্ষিক কাউন্সিল অধিবেশনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তথ্যমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

আত্রাই উপজেলা পরিষদ মাঠে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নৃপেন্দ্রনাথ দত্ত দুলালের সভাপতিত্বে সম্মেলনে প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন খাদ্যমন্ত্রী ও নওগাঁ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাধন চন্দ্র মজুমদার। বিশেষ অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যাবিষয়ক সম্পাদক ডা. রোকেয়া সুলতানা, নওগাঁ সদর আসনের সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার নিজাম উদ্দিন জলিল জন ও আত্রাই-রানীনগর আসনের সংসদ সদস্য মো. আনোয়ার হোসেন হেলাল। সম্মেলন উদ্বোধন করেন নওগাঁ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক সংসদ সদস্য মো. আব্দুল মালেক।

সম্মেলনের দ্বিতীয় পর্যায়ে নৃপেন্দ্রনাথ দত্ত দুলালকে সভাপতি ও মো. আক্কাস আলীকে সাধারণ সম্পাদক করে আত্রাই উপজেলা আওয়ামী লীগের আংশিক কমিটির নাম ঘোষণা করা হয়।

হাছান মাহমুদ বলেন, অর্থনৈতিক ও সামাজিক সব সূচকে বাংলাদেশ ইতোমধ্যে পাকিস্তানকে ছাড়িয়ে গেছে। অনেক ক্ষেত্রে ভারতকেও আমরা ছাড়িয়ে গেছি। বিশ্বে এখন বাংলাদেশের নাম উচ্চারিত হয় অর্জনের জন্য, সাফল্যের জন্য। বিদেশের পার্লামেন্টে এখন বাংলাদেশের উন্নয়ন নিয়ে আলোচনা হয়।

তিনি বলেন, বিদেশিদের কাছে এখন বাংলাদেশ উন্নয়নের রোল মডেল। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হওয়ার পর ইমরান খান যখন বলেছিলেন আগামী ১০ বছরে পাকিস্তানকে সুইডেন বানিয়ে দেবেন, তখন সে দেশের মানুষ বলেছিলেন আগামী ১০ বছরে পাকিস্তানকে সুইডেন নয় বরং বাংলাদেশ বানিয়ে দেন। আমাদের মাথাপিছু আয় ভারতের মানুষের মাথাপিছু আয়কে ছাড়িয়ে গেছে। বিগত ১২ বছরে সব ক্ষেত্রে বাংলাদেশের যত অর্জন হয়েছে তার সঙ্গে জড়িয়ে রয়েছে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নাম। শেখ হাসিনার দূরদর্শী নেতৃত্বের কারণে এসব অর্জন সম্ভব হয়েছে।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সূদুরপ্রসারি পরিকল্পনার ফলে বাংলাদেশের করোনা পরিস্থিতি অনেক সহনীয় পর্যায়ে ছিল। পৃথিবীর অনেক উন্নত দেশে বিপুলসংখ্যক মানুষ করোনায় আক্রান্ত ও মৃতু্যর ঘটনা ঘটলেও বাংলাদেশে তেমন পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়নি। বিএনপি নেতাসহ সরকারের সমালোচকরা করোনা শুরুর প্রথম থেকে বলে আসছে বাংলাদেশে কোটি কোটি মানুষ আক্রান্ত হবে আর লাখ লাখ মানুষ মারা যাবে। কিন্তু সব ধরনের পূর্বাভাস মিথ্যা করে দিয়ে শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ নেতৃত্বে বাংলাদেশ করোনা মোকাবিলায় সাফল্য দেখায়। বস্নুমবার্গের প্রতিবেদনে উঠে আসে বাংলাদেশ শীর্ষ ২০ দেশের মধ্যে ১৭তম করোনা মোকাবিলায়। বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থাও শেখ হাসিনার ভূয়সী প্রশংসা করেছে করোনা মোকাবিলায় তার সরকারের দক্ষ নেতৃত্বের জন্য।

তিনি আরও বলেন, বিএনপি নেতারা বলেছিলেন করোনা পরিস্থিতিতে দেশে হাজার হাজার মানুষ অনাহারে মারা যাবে। কিন্তু সরকারের যথাযথ পদক্ষেপের কারণে গত এক বছরে একজন মানুষও অনাহারে মারা যায়নি। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে সারাদেশে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী মানুষের পাশে ছিল। যার ফলে সরকারের মন্ত্রী, এমপি, উপদেষ্টা ও কয়েক হাজার নেতাকর্মী করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন। অনেকে মৃতু্যবরণ করেছেন। আমি নিজেও করোনা আক্রান্ত হয়েছিলাম। অথচ যারা রাজপথে সরকারের সমালোচনায় মুখর ছিল দেশের মানুষের পাশে তারা ছিল না।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে