মায়ের মৃতু্যতে ছাড়া পেলেন জুয়াড়ি, দাফনের সময় মারা গেল নিজ সন্তানও

মায়ের মৃতু্যতে ছাড়া পেলেন জুয়াড়ি, দাফনের সময় মারা গেল নিজ সন্তানও

জুয়া খেলার অপরাধে আটক আব্দুল কুদ্দুসের পরিবারের দুটি প্রাণ ঝরে গেছে। নিহতরা হলেন-আব্দুল কুদ্দুসের মা কুলসুম বেওয়া ও তার সদ্য ভূমিষ্ঠ শিশুসন্তান জিসান। কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলার নাওডাঙ্গা ইউনিয়নের পশ্চিম ফুলমতি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, শুক্রবার বিকালে ফুলবাড়ী উপজেলার পশ্চিম ফুলমতি গ্রামে ফুলবাড়ী থানা পুলিশ জুয়া প্রতিরোধে অভিযান পরিচালনা করে। এ সময় ওই গ্রামের একটি পরিত্যক্ত বাড়ি থেকে আব্দুল কুদ্দুসসহ (৩৫) ৭ জুয়াড়িকে আটক করে পুলিশ।

আব্দুল কুদ্দুস পুলিশের হাতে আটক হয়েছে এমন খবর শুনে তার অসুস্থ মা কুলসুম বেওয়া গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন। এর কিছুুক্ষণ যেতে না যেতে মারা যান কুলসুম বেওয়া। মায়ের মৃতু্যর খবর শুনে মানবিক দিক বিবেচনা করে আটক জুয়াড়ি আব্দুল কুদ্দুসকে থানা লকাব থেকে মুক্ত করে দেয় পুলিশ।

শুক্রবার রাতে থানা থেকে মুক্ত হয়ে মাকে দাফনের জন্য প্রস্তুতি নেয় আব্দুল কুদ্দুস। পারিবারিক সিদ্ধান্ত অনুযায়ী শনিবার সকালে কুলসুম বেওয়াকে দাফন করার কথা থাকলেও সকালে আব্দুল কুদ্দুসের সদ্যভূমিষ্ঠ তিন দিন বয়সি শিশু জিসান হঠাৎ করে মৃতু্যর কোলে ঢলে পড়ে। এতে আব্দুল কুদ্দুসের কাঁধে দুটি লাশ দাফনের ভার আসে। অবশেষে শনিবার বেলা ১১টায় পারিবারিক কবরস্থানে মা কুলসুম বেওয়া ও শিশুসন্তান জিসানকে দাফন করা হয়। এ ঘটনায় এলাকাটি শোকাচ্ছন্ন হয়ে পড়ে।

এ ব্যাপারে ফুলবাড়ী থানা ওসি রাজীব কুমার রায় সাংবাদিকদের জানান, জুয়া খেলার অপরাধে আটক আব্দুল কুদ্দুসকে তার মায়ের মৃতু্যর কারণে মানবিক দিক বিবেচনায় ও পুলিশের সংশ্লিষ্ট কর্র্তৃপক্ষের নির্দেশে শুক্রবার রাতে থানা থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে