গাইবান্ধায় হাসান হত্যা

ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রেখে বিক্ষোভ, ওসির গ্রেপ্তার দাবি

ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রেখে বিক্ষোভ, ওসির গ্রেপ্তার দাবি

পাদুকা ব্যবসায়ী হাসান আলীকে হত্যার প্রতিবাদে গাইবান্ধায় মানববন্ধন, বিক্ষোভ মিছিল-সমাবেশ ও এসপি অফিস ঘেরাও কর্মসূচি পালন করেছেন ব্যবসায়ীসহ সর্বস্তরের মানুষ। সোমবার সকাল ১১টায় সব ওষুধের দোকানসহ মার্কেট-শপিংমল ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রেখে ব্যবসায়ীরা শহরের ডিবি রোডে সমবেত হয়ে বিক্ষোভ কর্মসূচিতে অংশ নেন।

গাইবান্ধা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের আয়োজিত আসাদুজ্জামান মার্কেটের সামনে অনুষ্ঠিত মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে সদর থানার ওসিকে গ্রেপ্তার, ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্ত কমিটি গঠনসহ হত্যাকান্ডের সুষ্ঠু বিচার দাবি জানানো হয়।

এই কর্মসূচিতে জেলার রাজনৈতিক, সামাজিক-সাংস্কৃতিক, ক্রীড়া সংগঠন, সাংবাদিক ও বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ এবং নিহত হাসান আলীর স্ত্রী বিথি বেগম, ছোট ছেলে হেদায়েতুল ইসলাম শাফিন অংশ নেন। মানববন্ধন ও সমাবেশ শেষে বিক্ষুব্ধ লোকজন মিছিল নিয়ে এসপি অফিস ঘেরাও করেন। এ সময় ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দের সঙ্গে পুলিশ সুপার মুহাম্মদ তৌহিদুল ইসলাম মতবিনিময় করেন। ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ ২৪ ঘণ্টার মধ্যে উলেস্নখিত দাবিসমূহ বাস্তবায়নের দাবি জানান। অন্যথায় হরতালসহ লাগাতার নানা কর্মসূচি পালনের আল্টিমেটাম দেন। পুলিশ সুপার তাদের বক্তব্য শোনেন এবং তা তদন্তপূর্বক বাস্তবায়নের আশ্বাস দেন। এসময় পুলিশ সুপার নিহত হাসান আলীর পুত্র হেদায়েতুল ইসলাম শাফিনের লেখাপড়ার দায়িত্ব নেয়ার ঘোষণা দেন।

চেম্বার সভাপতি শহিদুল ইসলাম শান্তর সভাপতিত্বে বিক্ষোভ সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, রাজনীতিক আমিনুল ইসলাম গোলাপ, বীর মুক্তিযোদ্ধা শাহ শরিফুল ইসলাম বাবলু, বীর মুক্তিযোদ্ধা ময়নুল ইসলাম রাজা, মিহির ঘোষ, গোলাম মারুফ মনা প্রমুখ।

এদিকে হাসান আলী নিহতের ঘটনার মামলায় দুই পুলিশ সদস্যের গাফিলতির অভিযোগ এনে তিনজনকে আসামি করা হয়েছে। এ মামলায় গ্রেপ্তার আওয়ামী লীগ নেতাকে চারদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে