রোহিঙ্গাদের হামলায় এপিবিএনের ১২ সদস্য আহত

রোহিঙ্গাদের হামলায় এপিবিএনের ১২ সদস্য আহত

কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলার নয়াপাড়ার নিবন্ধিত শরণার্থী শিবিরের রোহিঙ্গারা ক্যাম্পের আমর্ড পুলিশ ব্যাটালিয়নের সদস্যদের ওপর হামলা চালিয়েছে। এতে এপিবিএনের ১২ সদস্য আহত হয়েছেন। রোববার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে ফাঁকা গুলিবর্ষণ করা হয়।

কক্সবাজার ১৬ আমর্ড পুলিশ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক এসপি তারিকুল ইসলাম বলেন, 'বিক্ষোভকারীদের শান্ত করতে গেলে এপিবিএনের ওপর ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে। এতে আমাদের ১২ সদস্য আহত হন। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পাঁচ রাউন্ড ফাঁকা গুলিবর্ষণ করা হয়েছে।'

জানা গেছে, রেশন কার্ড নিয়ে গেল কয়েক দিন ধরে অসন্তোষ বিরাজ করছে কক্সবাজারের টেকনাফের নয়াপাড়া নিবন্ধিত শরণার্থী শিবিরের রোহিঙ্গাদের মাঝে। এ নিয়ে রোববার সকাল থেকে ক্যাম্পে বিক্ষোভ শুরু করে তারা। দুপুরে বিভিন্ন বস্নকে চলমান বিক্ষোভ ঠেকানোর চেষ্টা করেন আমর্ড পুলিশ ব্যাটালিয়নের সদস্যরা। এ সময় রোহিঙ্গারা এপিবিএন সদস্যদের লক্ষ্য করে ইট-পাটকেল ছোড়ে।

জানা গেছে, এসব রোহিঙ্গারা ১৯৯২ সালে মিয়ানমার থেকে বাংলাদেশে আসে। তারা শরণার্থী হিসেবে সরকারি নিবন্ধনপ্রাপ্ত।

২০১৩ সাল থেকে জাতিসংঘের 'বিশ্ব খাদ্য কর্মসূচি' (ওয়ার্ল্ড ফুড প্রোগ্রাম বা ডবিস্নউএফপি) তাদের খাদ্যসহায়তা দিয়ে আসছে। এ জন্য ডবিস্নউএফপির কর্মকর্তারা আলাদা করে তালিকা করেন নিবন্ধিতদের। কিন্তু চলতি জুলাই মাসের শুরু থেকে পুরনো রোহিঙ্গাদের খাদ্যসহায়তার কার্ড নিয়ে নেয় সংস্থাটি। ২০১৭ সালে আসা নতুন রোহিঙ্গাদের সঙ্গে তাদের সংযুক্ত করে আবার কার্ড বিতরণ করা হয়। কিন্তু সে কার্ড নিয়ে আপত্তি জানিয়ে এক মাস ধরে রেশন নিচ্ছে না পুরনো রোহিঙ্গারা।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে