বাংলাদেশ-ভারতের সম্পর্ক বিশ্বে একটা মডেল :পররাষ্ট্রমন্ত্রী

বাংলাদেশ-ভারতের সম্পর্ক বিশ্বে একটা মডেল :পররাষ্ট্রমন্ত্রী

বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যকার সম্পর্ককে 'মডেল' অ্যাখা দিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডক্টর এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, ''ভারতের কারণে '৭১ সালে আমাদের মর্যাদা বেড়েছে। আজও গভীর সম্পর্কের কারণে সারা পৃথিবী আমাদের দিকে তাকিয়ে থাকে। বাংলাদেশ-ভারতের সম্পর্ক বিশ্বে একটা মডেল।''

সোমবার রাজধানীর জাতীয় প্রেস ক্লাবে সেক্টর কমান্ডারস ফোরাম আয়োজিত 'স্বাধীনতার ৫০ বছর' শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ভারতের সঙ্গে আমাদের কূটনৈতিক সম্পর্কের ৫০ বছর হয়েছে। আগামী ৫০ বছরে আমাদের যত ধরনের সমস্যা আছে সবগুলোর সমাধান করব। আমরা ডায়ালগ বা আলোচনার মাধ্যমে সব সমস্যার সমাধান করব। আমি তো সেদিনের আশায় আছি, দুদেশের মানুষের আসা-যাওয়ায় কোনো ভিসা লাগবে না। আমরা সড়ক, রেল ও নৌ-পথে আরও কানেকটিভিটি বাড়াতে চাই।

তিনি বলেন, 'ভারতের সোলজার আমাদের জন্য রক্ত দিয়েছেন। আমরা রক্তের সম্পর্ককে আরও গভীরভাবে উদযাপন করতে চাই। ভারতের সঙ্গে ১৮টি দেশে মৈত্রী দিবস পালন করছি। আমরা আশা করব, আগামীতে বাংলাদেশের যত মিশন আছে যৌথভাবে (ভারত ও বাংলাদেশ) আমরা মৈত্রী দিবস পালন করব। এক্ষেত্রে আমি ভারতীয় সরকারের সাহায্য চাই।'

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, 'ভারত, ভুটান, শ্রীলঙ্কার সঙ্গে কানেকটিভিটি নিয়ে আমাদের প্রধানমন্ত্রী আলাপ করেছেন। আমরা ভারতের সঙ্গে কানেকটিভিটিতে এমন উন্নয়ন চাই, সারাবিশ্ব যেন আমাদের দিকে তাকিয়ে থাকে। ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে কাজ করার মতো অনেক সুযোগ আছে। আমরা কানেকটিভিটির ক্ষেত্রে ভুটানের সঙ্গে দুটা বন্দর খুলে দিয়েছি। যাতে বাংলাদেশ, ভারত ও ভুটান নদীপথ ব্যবহার করতে পারি। ভারতও এতে রাজি হয়েছে।'

ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন, বঙ্গবন্ধু না থাকলে এ দেশ নয় মাসে স্বাধীনতা অর্জন করতে পারত না। এটা ভুলে গেলে চলবে না যে কত সময় ধরে দেশটাকে স্বাধীনতা এনে দিতে তিনি লড়াই করে গেছেন। এখন বাইরে কোথাও আর বাংলাদেশকে পরিচয় করিয়ে দিতে হয় না, এটা মর্যাদার।'

অনুষ্ঠানে ভারতের হাইকমিশনার বিক্রম দোরাইস্বামী বলেন, 'বাংলাদেশ স্বাধীন হওয়ায় দক্ষিণ এশিয়ার মানচিত্রই শুধু পরিবর্তন হয়নি, বদলে গেছে এ অঞ্চলের ভূ-রাজনৈতিক অবস্থা ও অর্থনৈতিক কর্মকান্ড। দুদেশের মধ্যে বিদ্যমান সমস্যার সমাধান করে, নতুন প্রজন্মকে অনুপ্রাণিত করে আমাদের সম্পর্ককে আরও এগিয়ে নিতে হবে। এক্ষেত্রে আমাদের সবার দায়িত্ব রয়েছে।'

সেক্টর কমান্ডারস ফোরামের কার্যকরী সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা মোহাম্মদ নুরুল আলমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য রাখেন ঢাকায় নিযুক্ত ভুটানের রাষ্ট্রদূত রিনচেন কুইনসিল প্রমুখ।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

সকল ফিচার

ক্যাম্পাস
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
আইন ও বিচার
হাট্টি মা টিম টিম
কৃষি ও সম্ভাবনা
রঙ বেরঙ

Copyright JaiJaiDin ©2022

Design and developed by Orangebd


উপরে