দুর্বার গণআন্দোলন গড়ে তুলতে হবে :ফখরুল

দুর্বার গণআন্দোলন গড়ে তুলতে হবে :ফখরুল
মির্জা ফখরুল

দেশ যাবে কোন পথে ফায়সালা হবে রাজপথে- মন্তব্য করে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, 'আমরা চাই অবিলম্বে এই সরকার পদত্যাগ করুক। পদত্যাগ করে একটা নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তর করতে হবে। নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশনের মাধ্যমে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচন করতে হবে। এই জন্য বিএনপির নেতাকর্মীদের দুর্বার গণআন্দোলন গড়ে তুলতে হবে।'

শনিবার স্থানীয় ইনস্টিটিউট মাঠ প্রাঙ্গণে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী-বিএনপি দিনাজপুর জেলার দ্বি-বার্ষিক সম্মেলন ও কাউন্সিল-২০২২ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তার বক্তব্যে তিনি

এসব কথা বলেন।

জেলা বিএনপির ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক মিসেস রেজিনা ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানের শুরুতে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর অন্যান্য অতিথিদের সঙ্গে নিয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন করেন এবং বেলুন উড়িয়ে সম্মেলন ও কাউন্সিলের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন।

মির্জা ফখরুল আরও বলেন, 'আওয়ামী লীগ আজকে বিচার বিভাগকে ধ্বংস করেছে, প্রশাসনকে ধ্বংস করেছে, সংবাদ মাধ্যমকে দলীয়করণ করেছে। সমগ্র দেশটা তাদের মনে করে ধ্বংসের পথে নিয়ে যাচ্ছে। আমাদের স্বপ্ন ছিল একটা সুখী সমৃদ্ধ বাংলাদেশ গড়ব। আজ ৫০ বছর পরে এসেও বেদনা হতাশ হয়ে পড়েছি। যারা সবসময় স্বাধীনতা ও গণতন্ত্রের কথা বলে, তারাই আজ গণতন্ত্রকে হত্যা করে স্বাধীনতার স্বপ্নকে ধ্বংস করে দিয়েছে।'

মির্জা ফখরুল আরও বলেন, 'আমাদের নতুন বাংলাদেশ ও সমৃদ্ধ বাংলাদেশ তৈরি করতে হবে। এ জন্য বিএনপির তরুণ নেতাকর্মীদের এগিয়ে আসতে হবে। কারণ তাদের ঐতিহ্য রয়েছে, তারা আন্দোলন করেছে, কারাগারে গিয়েছে। তাই তাদের এগিয়ে আসতে হবে। তিনি এই সম্মেলন সফল করার জন্য দলীয় নেতাকর্মীদের ধন্যবাদ জানান।'

সম্মেলন ও কাউন্সিলে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন দলের জাতীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু। বিশেষ বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির ভাইস চেয়ারম্যান ও জেলা বিএনপির সম্মেলনের প্রধান সমন্বয়কারী ডা. এজেডএম জাহিদ হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক অধ্যক্ষ আসাদুল হাবিব দুলু, রংপুর বিভাগীয় কমিটির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক আব্দুল খালেক, রংপুর বিভাগীয় কমিটির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ও দিনাজপুর পৌরসভার মেয়র সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলম, জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য এজেডএম রেজওয়ানুল হক, আখতারুজ্জামান মিঞা, মো. মকশেদ আলী মঙ্গলিয়া ও জেলা বিএনপির সম্মেলন ও কাউন্সিল প্রস্তুতি কমিটির সদস্য সচিব অ্যাড. আনিসুর রহমান চৌধুরী। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন জেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক হাসানুজ্জামান উজ্জল। অনুষ্ঠানে জেলা বিএনপির সম্মেলন ও কাউন্সিল প্রস্তুতি কমিটির সব সদস্য উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে সম্মেলন ও কাউন্সিল উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে জেল রোডস্থ দলীয় কার্যালয়ে কাউন্সিলে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। এতে জেলার ১৩টি উপজেলার ২০টি ইউনটের ১ হাজার ৯১৯ জন ভোটার (কাউন্সিলর) ভোট প্রদান করেন।

উলেস্নখ্য, দীর্ঘ ১২ বছর পর দিনাজপুর জেলা বিএনপির কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এর আগে ২০১০ সালের ২৬ জানুয়ারি দিনাজপুর বিএনপির সর্বশেষ কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হয়েছিল। পরে ২০১৬ সালের আগস্ট মাসে ওই কমিটি ভেঙে দিয়ে ১৩১ সদস্যবিশিষ্ট আহ্বায়ক কমিটি গঠন করা হয়। ওই কমিটি দিয়েই এতদিন জেলা বিএনপির কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

সকল ফিচার

ক্যাম্পাস
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
আইন ও বিচার
হাট্টি মা টিম টিম
কৃষি ও সম্ভাবনা
রঙ বেরঙ

Copyright JaiJaiDin ©2022

Design and developed by Orangebd


উপরে