শীর্ষ করদাতার তালিকায় ব্যাংকিং খাতের দাপট

শীর্ষ করদাতার তালিকায় ব্যাংকিং খাতের দাপট

প্রতি বছর দেশের রাজস্ব আয়ের সিংহভাগই আসে এলটিইউ বা বৃহৎ করদাতা গ্রম্নপের ৪৪৩ প্রতিষ্ঠান থেকে। গত অর্থবছরে এর মধ্যে থেকে কেবল ১০ প্রতিষ্ঠান থেকেই এসেছে প্রাপ্ত রাজস্বের প্রায় অর্ধেক। সম্প্রতি গত অর্থবছরের বিভিন্ন খাতের এমন শীর্ষ ৩০ করদাতা প্রতিষ্ঠানকে সম্মাননা দিয়েছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)।

এনবিআর প্রদত্ত তথ্য বিশ্লেষণে দেখা যায়, বৃহৎ করদাতা হিসেবে দেশের ব্যাংকগুলোর দাপট সবচেয়ে বেশি। ৩০টি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে ১৩টিই বিভিন্ন বেসরকারি ব্যাংক। এরপরই রয়েছে ম্যানুফ্যাকচারিং খাত, যেখানে শীর্ষ করদাতার সম্মাননা পেয়েছে ১০টি প্রতিষ্ঠান। এর বাইরে সেবা ও অন্যান্য খাতের তিনটি, নন-ব্যাংকিং ফাইন্যান্সিয়াল ইনস্টিটিউশন (এনবিএফআই) দুটি এবং বিমা খাতের দুটি প্রতিষ্ঠান সেরা করদাতা হিসেবে সম্মাননা পেয়েছে। প্রতিষ্ঠানগুলোকে সম্মাননা প্রদান উপলক্ষে চলতি সপ্তাহে রাজধানীর এক হোটেল অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়, যাতে প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ ব্যাংকের গভর্নর ফজলে কবির।

জানা গেছে, গত অর্থবছর এনবিআরের এলটিইউ বৃহৎ করদাতা প্রতিষ্ঠানগুলোর কাছ থেকে মোট কর আদায় করেছে প্রায় ২৪,০৭১ কোটি টাকা, যা এর আগের অর্থবছরের তুলনায় ১৫ শতাংশ বেশি। তবে কোন প্রতিষ্ঠান কত কর দিয়েছে কিংবা কর প্রদানের র?্যাংকিংয়ে কোন প্রতিষ্ঠানের কী অবস্থান- তা প্রকাশ করা হয়নি।

এ বিষয়ে এলটিইউ কমিশনার ইকবাল হোসেন জানান, এলটিইউতে এককভাবে শীর্ষ করদাতা প্রতিষ্ঠান গ্রামীণফোন। তবে সম্মিলিতভাবে সবচেয়ে বেশি কর আদায় হয় ব্যাংকগুলো থেকে। তবে বর্তমানে এলটিইউর বাইরে অন্যান্য কর অঞ্চলে কিছু প্রতিষ্ঠান রয়েছে, যারা এলটিইউর আওতাধীন প্রতিষ্ঠানের চেয়েও বেশি কর পরিশোধ করছে।

অনুষ্ঠানে এনবিআর চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম বলেন, 'প্রধানমন্ত্রী দেশকে আত্মমর্যাদাশীল জাতি হিসেবে গড়ার কথা বলেন। সেই সাহস এসেছে নিজেদের টাকায় পদ্মা সেতু করার মাধ্যমে। সেই টাকা আসে করদাতাদের কাছ থেকে। এছাড়া গ্রোয়িং ডোমেস্টিক মার্কেটকে টার্গেট করে এগিয়ে গেলে আমরা অনেক দূর এগিয়ে যেতে পারব।

তিনি বলেন, 'আমাদের কনজু্যমার মার্কেট বাড়ছে। এ লক্ষ্যে শিল্পায়নের প্রক্রিয়া আমাদের মাথায় রয়েছে, তাই যতবেশি স্বচ্ছতা ও স্পষ্টতা থাকবে ততবেশি করহার কমানো আর করবান্ধব পরিবেশ তৈরি করা সম্ভব হবে'।

আলোচনায় অংশ নিয়ে এনবিআর সদস্য মো. আলমগীর হোসেনও করবান্ধব পরিবেশ তৈরির উপর গুরুত্ব দেন। তার মতে, করবান্ধব পরিবেশ তৈরি করা ও কর ব্যবস্থাপনায় অটোমেশন এই দুটিতে সবচেয়ে বেশি নজর দেওয়া দরকার।

সম্মাননা পেল যেসব প্রতিষ্ঠান : এলটিইউ কর্তৃক সম্মানিত কোম্পানিগুলোর মধ্যে রয়েছে ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড, স্ট্যান্ডার্ড চার্টার্ড ব্যাংক বাংলাদেশ, এইচএসবিসি, ডাচ-বাংলা ব্যাংক, ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংক, ন্যাশনাল ব্যাংক, ইস্টার্ন ব্যাংক, আল-আরাফাহ ইসলামী ব্যাংক, এক্সপোর্ট ইমপোর্ট ব্যাংক অব বাংলাদেশ লিমিটেড, ট্রাস্ট ব্যাংক, প্রিমিয়ার ব্যাংক, ব্র্যাক ব্যাংক এবং প্রাইম ব্যাংক।

এছাড়া মানুফ্যাচারিং খাতে ব্রিটিশ আমেরিকান টোব্যাকো বাংলাদেশ, স্কয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস, শেখ আকিজ উদ্দিন লিমিটেড, উত্তরা মোটরস, উত্তরা অটোমোবাইলস, পারফেক্ট টোব্যাকো কোম্পানি, নেসলে বাংলাদেশ, হেলথ কেয়ার ফার্মাসিউটিক্যালস, বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস এবং অলিম্পিক ইন্ডাস্ট্রিজ ম্যানুফ্যাকচারিং তথা উৎপাদন খাত থেকে সম্মাননা পেয়েছে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
আইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে