লেবুশেনের সেঞ্চুরিতে অস্ট্রেলিয়ার দিন

লেবুশেনের সেঞ্চুরিতে অস্ট্রেলিয়ার দিন

টেস্টে ১৯৩৩ সালের পর সবচেয়ে অনভিজ্ঞ বোলিং আক্রমণ নিয়ে ভারত খেলতে নেমেছিল ব্রিসবেন ক্রিকেট গ্রাউন্ডে। অস্ট্রেলিয়ার শক্তিশালী ব্যাটিং লাইন আপের বিপক্ষে খুব একটা খারাপ করেনি স্বাগতিকরা। এজন্য ভারতীয় ফিল্ডারদের দোষ দেওয়া যায়। ৩৭ ও ৪৮ রানে জীবন পাওয়া মার্নাস লেবুশেনের ব্যাটে শুক্রবার প্রথম দিন শেষে স্বস্তিতে স্বাগতিকরা। সিরিজের চতুর্থ ও শেষ টেস্টের প্রথম দিন শেষে অস্ট্রেলিয়ার রান ৫ উইকেটে ২৭৪। ক্যামেরুন গ্রিন অপরাজিত আছেন ২৮ রানে। ৩৮ রান নিয়ে খেলছেন অধিনায়ক টিম পেইন। দুইবার জীবন পেয়ে ১০৮ রান করেন লেবুশেন।

চোট জর্জর ভারতের পক্ষে গ্যাবায় টেস্ট অভিষেক হয় দুই বোলার টি নটরাজন ও ওয়াশিংটন সুন্দরের। মোহাম্মদ সিরাজ, শার্দুল ঠাকুর ও নবদীপ সাইনি- এই তিন বোলার মিলে টেস্ট খেলেছেন চারটি। এই অনভিজ্ঞ বোলিং লাইন নিয়ে ১৭ রানের মধ্যে দুই ওপেনারকে ফেরায় সফরকারীরা। ইনিংসের প্রথম ওভারের শেষ বলে সিরাজ মাঠছাড়া করেন ডেভিড ওয়ার্নারকে (১)। দ্বিতীয় সিস্নপে দাঁড়ানো রোহিত শর্মা ডাইভ দিয়ে অবিশ্বাস্য ক্যাচ ধরেন। উইল পুকোভস্কির ইনজুরিতে ডাক পাওয়া আরেক ওপেনার মার্কাস হ্যারিস ক্যাচ হন ওয়াশিংটনের।

আর এই ম্যাচে নিজের প্রথম বলেই উইকেটটি নেন শার্দুল। সিডনির মতো ব্রিসবেনেও এই ধাক্কা সামলানোর দায়িত্ব ভালোভাবে পালন করেন লেবুশেন ও স্টিভেন স্মিথ। লাঞ্চ পর্যন্ত তারা ক্রিজ আঁকড়ে ছিলেন। তবে দ্বিতীয় সেশনের শুরুতে এই জুটি ভাঙেন ওয়াশিংটন। তার টেস্ট ক্যারিয়ারের প্রথম শিকার স্মিথ। তাকে ৩৬ রানে রোহিতের ক্যাচ বানান এই স্পিনার, ভাঙে ৭০ রানের জুটি। পরের ওভারে সাইনির কাছে উইকেট হারাতে বসেছিলেন লেবুশেন। গালিতে ক্যাচ ছাড়েন অধিনায়ক আজিঙ্কা রাহানে। নিজের অষ্টম ওভারের ওই পঞ্চম বলটি করে চোট পান ২৮ বছর বয়সি পেসার। প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে আবার মাঠে ফিরলেও যন্ত্রণা না কমায় মাঠ ছাড়েন সাইনি।

আর ৩৭ রানে জীবন পাওয়া লেবুশেনকে ফের জীবন দেয় ভারত। এবার নটরাজনের ওভারে ফার্স্ট সিস্নপে ক্যাচ ফসকায় চেতেশ্বর পূজারার হাত থেকে। দুইবার জীবন পাওয়ার সুযোগ কাজে লাগিয়ে ১৪৫ বলে টানা তৃতীয় ইনিংসে ফিফটি উদযাপন করেন লেবুশেন। ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান শতাধিক রানের জুটি গড়েন ম্যাথু ওয়েডকে নিয়ে। টানা দুই ওভারে দুজনকে ফিরিয়ে অভিষেক টেস্ট স্মরণীয় করে রাখেন নটরাজন। ১১৩ রানের এই শক্ত জুটি ভাঙেন তিনি ওয়েডকে (৪৫) ফিরিয়ে। ১৯৫ বলে পঞ্চম সেঞ্চুরি করা লেবুশেন পরের ওভারে বিদায় নেন। ২৬ বছর বয়সি ডানহাতি ব্যাটসম্যান ২০৪ বলে ৯ চারে ১০৮ রান করেন।

১৩ রানের ব্যবধানে দুই সেট ব্যাটসম্যানকে আউট করে স্বস্তি ফিরিয়েছিল ভারত। ক্যামেরন গ্রিনকে নিয়ে অধিনায়ক টিম পেইন তাদের এই স্বস্তি কেড়ে নেন। অপরাজিত ৬১ রানের জুটি গড়ে দিন শেষ করেছেন তারা। পেইন ৩৮ ও গ্রিন ২৮ রানে অপরাজিত ছিলেন। ভারতের পক্ষে দুটি উইকেট নেন নটরাজন। একটি করে পেয়েছেন শার্দুল, সিরাজ ও ওয়াশিংটন।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

অস্ট্রেলিয়া প্রথম ইনিংস

৮৭ ওভারে ২৭৪/৫

(ওয়ার্নার ১, হ্যারিস ৫, লেবুশেন ১০৮, স্মিথ ৩৬, ওয়েড ৪৫, গ্রিন ২৮*, পেইন ৩৮*; সিরাজ ১/৫১, নটরাজন ২/৬৩, শার্দুল ১/৬৭, সাইনি ০/২১, ওয়াশিংটন ১/৬৩, রোহিত ০/১)।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে