পিএসজির হোঁচট, রিয়ালের জয়

পিএসজির হোঁচট, রিয়ালের জয়
ইন্টার মিলানের বিপক্ষে গোল করার পর উচ্ছ্বসিত রিয়ালের খেলোয়াড়রা -ওয়েবসাইট

প্রথমবারের মতো লিওনেল মেসি-নেইমার জুনিয়র-কিলিয়ান এমবাপে প্যারিস সেন্ট জার্মেইর (পিএসজি) মূল একাদশে। বিশ্ব সেরা তিন ফুটবলার একসঙ্গে খেলেও ফরাসি ক্লাব পিএসজিকে জেতাতে পারেনি! উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে 'এ' গ্রম্নপের প্রথম ম্যাচ খেলতে নেমেই হোঁচট খেতে হয়েছে মাউরিসিওি পচেত্তিনোর দলকে। বুধবার রাতে বেলজিয়ান ক্লাব ব্রম্নগে ১-১ গোলে রুখে দিয়েছে তারকায় ঠাসা পিএসজিকে। স্প্যানিশ মিডফিল্ডার আন্দার হেরেরার লক্ষ্যভেদে পিএসজি এগিয়ে যাওয়ার পর গোল পারিশোধ করে খেলায় সমতা ফেরান ক্লাব গ্রম্নগের মিডফিল্ডার হান্স ভানাকেন।

অন্যদিকে রাতের অপর ম্যাচটি ড্রয়ের দিকে এগিয়ে যাচ্ছিল, শেষ মুহূর্তে এসে রদ্রিগো দলের ত্রাতা। এই ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ডের লক্ষ্যভেদি গোলে রিয়াল মাদ্রিদ উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের অভিযান জয় দিয়ে শুরু করেছে। এদিন রাতে তারা ১-০ গোলে হারিয়েছে ইন্টার মিলানকে। অন্য ম্যাচে লিভারপুল ৩-২ গোলে এসি মিলানকে, ম্যানচেস্টার সিটি ৬-৩ গোলে জার্মান ক্লাব আর বি লিপিজিগের বিপক্ষে বড় জয় পেয়েছে।

ইয়ান ব্রেডেল স্টেডিয়ামে বল দখলে বেশ এগিয়ে ছিল পিএসজি। আক্রমণও হয়েছে। তবে নিজেদের মাঠে গ্যালারিভর্তি দর্শকের সামনে ক্লাব ব্রম্নগে পাল্টা জবাব দিয়েছে। শুরুতে পিএসজি গোল করলেও সমতায় ফিরতে সময় বেশি সময় নেয়নি স্বাগতিকরা। ম্যাচে ঘড়ির ১৫ মিনিটের মাথায় পিএসজি প্রথমে এগিয়ে যায়। বাঁ-প্রান্ত থেকে এক ডিফেন্ডারকে কাটিয়ে এমবাপের দারুণ নিচু ক্রসে আন্দের হেরেরা বক্সের ভেতরে থেকে পা চালিয়ে দিয়েছেন অনায়াসে। আর ২৭ মিনিটে ক্লাব ব্রম্নগে সমতায় ফেরে। সবলের মাপা নিচু ক্রসে ভানাকেন পেস্নসিং করে দিয়ে সমর্থকদের মুখে হাসি ফোটান। আর ৪৪ মিনিটে ব্রম্নগের কেটেলারের ক্রসে পা ছোঁয়াতে পারেননি ভানাকান। বিরতির পরও পিএসজির বিপক্ষে লড়াই করেছে ব্রম্নগেরা। পাল্টা-পাল্টি আক্রমণ হয়েছে। ৪৯ মিনিটে ক্লাব ব্রম্নগের হেন্ড্রির প্রচেষ্টা এক ডিফেন্ডারের গায়ে লেগে প্রতিহত হয়। ২ মিনিট পর এমবাপ্পের জায়গায় ইকার্দি মাঠে নামেন। ৫৩ মিনিটে এই আর্জেন্টাইন সুযোগ পেয়েও লক্ষ্যে শট নিতে পারেননি। তার আগেই এক ডিফেন্ডার ক্লিয়ার করেন। ৭০ মিনিটে মেসির শট গোলকিপার প্রতিহত করেন। ২ মিনিট পর ফাউল করে হলুদ কার্ড দেখেন মেসি। ৭৪ মিনিটে ব্রম্নগের ল্যাংয়ের ভলি পোস্টের বাইরে দিয়ে গেলে আবারও গোলবঞ্চিত থাকতে হয়েছে। আর শেষের দিকে মেসি ও ইকার্দির প্রচেষ্টা চালিয়েও পিএসজিকে জেতাতে পারেনি। উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগের শুরুতেই পয়েন্ট হারাতে হলো অন্যতম ধনী এই ক্লাবটিকে। পিএসজির সঙ্গে ড্র করে মাঠ ছাড়াটাও ব্রম্নগের জন্য অনেক কিছু।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
আইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে