কুমিলস্না ভিক্টোরিয়ান্সের পরামর্শক

মুস্তাফিজ এখন ভালো বোলার

আমরা সবাই জানি ফিজ কী করতে পারে। তবে আমি যখন এখানে ছিলাম, সেই সময় থেকে এখন ওর মধ্যে পার্থক্য দেখছি। সে এখন আরও ভালো বোলার, কারণ ওয়ানডে ক্রিকেটের জন্য সে কিছু ব্যাপারে উন্নতি করেছে।
মুস্তাফিজ এখন ভালো বোলার

বাংলাদেশের কোচ থাকার সময়টায় মুস্তাফিজুর রহমানকে খুব কাছ থেকে দেখেছেন স্টিভ রোডস। এখন তিনি এই বাঁহাতি পেসারকে আবার নিবিড়ভাবে দেখার সুযোগ পাচ্ছেন কুমিলস্না ভিক্টোরিয়ান্সের পরামর্শক হিসেবে। দুই সময়ের মধ্যে কিছু পার্থক্যও তিনি দেখতে পাচ্ছেন। এখনকার মুস্তাফিজের বোলিংয়ে নতুন অনেক কিছু যোগ হয়েছে বলে মনে করেন এই ইংলিশ কোচ।

বোলিংয়ে নতুন অস্ত্র যোগ করা নিয়ে অনেক দিন ধরেই কাজ করছিলেন মুস্তাফিজ। বিশেষ করে, ডানহাতি ব্যাটসম্যানদের জন্য বল ভেতরে আনা পুরোপুরি রপ্ত করতে কাজ করছেন কোর্টনি ওয়ালশ বাংলাদেশ দলের বোলিং কোচ থাকার সময় থেকেই। রোডস তখন ছিলেন প্রধান। আর সেই সময় মুস্তাফিজ পেরে ওঠেননি খুব একটা। তবে এই ডেলিভারিতে তার উন্নতি দেখা গেছে ওটিস গিবসন বোলিং কোচের দায়িত্ব পাওয়ার পর। রোডস আর ততদিনে বাংলাদেশের কোচ নেই। গিবসনের সঙ্গে কাজ করে মুস্তফিজের বোলিংয়ে উন্নতির ছাপ দেখা যায় স্পষ্টই।

যদিও তার বোলিংয়ে উইকেটে সহায়তা পাওয়া এখনও গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার। নিষ্প্রাণ ও ব্যাটিং সহায়ক উইকেটে তার কার্যকারিতা প্রশ্নবিদ্ধ। তবে বোলিংয়ে নতুন অস্ত্র যোগ হওয়াও দৃশ্যমান। বিশেষ করে, ওভার দ্য উইকেট ও রাউন্ড দ্য উইকেট, দুই অ্যাঙ্গেল থেকে ডানহাতি ব্যাটসম্যানদের জন্য বল ভেতরে আনতে পারছেন তিনি এখন।

এবারের বিপিএলে কুমিলস্নার প্রথম ম্যাচেই যেমন, রাউন্ড দ্য উইকেটে করা তার একটি ডেলিভারি অফ স্টাম্পের অনেক বাইরে পিচ করে তীক্ষ্নভাবে অনেকটা ভেতরে ঢুকে উড়িয়ে দেয় মুক্তার আলির বেলস।

মুস্তাফিজের বোলিং এখন আরও সমৃদ্ধ মনে হচ্ছে তার কাছে। দুই ম্যাচে কুমিলস্নার দুই জয়ের পর এমনটাই বললেন রোডস, 'আমরা সবাই জানি ফিজ কী করতে পারে। তবে আমি যখন এখানে ছিলাম, সেই সময় থেকে এখন ওর মধ্যে পার্থক্য দেখছি। সে এখন আরও ভালো বোলার, কারণ ওয়ানডে ক্রিকেটের জন্য সে কিছু ব্যাপারে উন্নতি করেছে।'

এদিকে ইমরুল কায়েসের নেতৃত্বে একবার বিপিএলে ট্রফি জিতেছে কুমিলস্না ভিক্টোরিয়ান্স। এবারও তারকাসমৃদ্ধ দলের নেতৃত্বভার তারই কাঁধে। যদিও দেশের ক্রিকেটে অধিনায়ক হিসেবে তেমন পরিচিতি তিনি গড়ে তুলতে পারেননি, তার নেতৃত্ব নিয়ে চর্চাও কম। তবে এবার বিপিএলে দলের প্রথম দুই ম্যাচে তার অধিনায়কত্ব নজর কেড়েছে দলের পরামর্শক স্টিভ রোডসের কাছে।

২০১৯ বিপিএলে তামিম ইকবাল, শহিদ আফ্রিদিরা থাকার পরও কুমিলস্নার অধিনায়ক ছিলেন ইমরুল। সেবার বিপিএলে নিজেদের দ্বিতীয় ট্রফির দেখা পেয়েছিল কুমিলস্না। এবার দুই ম্যাচে দুই জয় নিয়ে কুমিলস্না টুর্নামেন্টের শুরুটা করেছে দুর্দান্ত। টুর্নামেন্টের আরেক ফেবারিট ফরচুন বরিশালকে উড়িয়ে দেওয়ার পর কুমিলস্নার পরার্শক রোডস উচ্ছ্বসিত প্রতিক্রিয়া জানালেন ইমরুলের অধিনায়কত্ব নিয়ে।

তিনি বলেন, 'ইমরুল দলকে খুব, খুব ভালো নেতৃত্ব দিয়েছে। প্রথম ম্যাচেও তার অধিনায়কত্ব ছিল দারুণ। আমার মনে হয়, অধিনায়ক হিসেবে সে পরিণত হয়ে উঠছে। এটা ভালো ইঙ্গিত, সত্যিই ভালো ইঙ্গিত।'

প্রথম ম্যাচে সিলেট সানরাইজার্সের ৯৬ রান তাড়ায়ও অনেক কষ্টে কেবল ২ উইকেটে জিতেছিল কুমিলস্না। দ্বিতীয় ম্যাচে সাকিব আল হাসানের বরিশালকে বলা যায় বিধ্বস্ত করে দেয় ইমরুলরা। ২০ ওভারে ১৫৮ রানের পুঁজি যদিও খুব নিরাপদ ছিল না বিপিএলের রাতের ম্যাচের ধারা অনুযায়ী, তবে বোলাররা স্রেফ ৯৫ রানেই গুটিয়ে দেয় বরিশালকে।

আর এই ম্যাচের অলরাউন্ড পারফরম্যান্স তৃপ্তি দিয়েছে কুমিলস্নার পরামর্শক ও বাংলাদেশ জাতীয় দলের সাবেক প্রধান কোচ রোডসকে, 'শুরুটা ভালো হয়েছে, দুই ম্যাচে দুই জয়। আজকে তুলনামূলকভাবে বেশি পেশাদার অলরাউন্ড পারফরম্যান্স ছিল। আজকে পারফরম্যান্সের সব দিক থেকেই আমি উচ্ছ্বসিত। একটা স্কোর গড়তে পেরেছি শুরুতে, যেটা আমাদের মনে হয়েছে লড়ার মতো রান। এদিন আমাদের বোলিং ছিল অসাধারণ। বিশেষ এরকম কঠিন কন্ডিশনে, শিশির ভেজা বলে, স্পিনাররা দারুণ করেছে। বোলারদের সবাই নিজেদের ভূমিকা পালন করেছে। সঙ্গে দু-একটি দুর্দান্ত ক্যাচও হয়েছে, বিশেষ করে ফাফ ডু পেস্নসিসের ক্যাচটি। আমি ও আমাদের সব কোচিং স্টাফই খুশি এদিনের পারফরম্যান্সে।'

ঢাকায় টুর্নামেন্টের প্রথম পর্ব শেষে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে কুমিলস্না। তবে টুর্নামেন্টের যে কেবলই শুরু। সেটা মনে করিয়ে দিলেন রোডস, 'এখনো অনেক পথ পাড়ি দেওয়ার বাকি আছে, দল ও সমর্থকদের জন্য এটিই গুরুত্বপূর্ণ বার্তা। মাটিতে পা রাখতে হবে। এখনও অনেক দূর যেতে হবে এই প্রতিযোগিতায়।'

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

সকল ফিচার

ক্যাম্পাস
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
আইন ও বিচার
হাট্টি মা টিম টিম
কৃষি ও সম্ভাবনা
রঙ বেরঙ

Copyright JaiJaiDin ©2022

Design and developed by Orangebd


উপরে