বাংলাদেশ-শ্রীলংকা টেস্ট সিরিজ

৬৩ বছরের রেকর্ড ভেঙে মুশফিক-লিটনের বিরল কীর্তি

৬৩ বছরের রেকর্ড ভেঙে মুশফিক-লিটনের বিরল কীর্তি
ঢাকা টেস্টের প্রথম দিনে সোমবার লংকান দুই পেসারের সামনে দিশেহারা বাংলাদেশের ব্যাটাররা। মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামের স্পিন সহায়ক উইকেটে পেসারদের দাপটে ছন্নছড়া বাংলাদেশের টপ-অর্ডার। সমর্থকদের হতাশ করে এভাবেই ফিরছেন মাহমুদুল হাসান জয় -ওয়েবসাইট

দিনের শুরুটা ভালো হলে বাকিটা সময় এমনিতেই ভালো কাটে। এমন ভাবনা অধিকাংশ মানুষই বলে থাকেন। কিন্তু শুরুটা খারাপ হলে? মিরপুর শেরেবাংলায় সোমবার মুমিনুল হকদের দিনের শুরুটা দেখে অনেকেই অপেক্ষায় ছিলেন কখন অলআউট হবে তারা। সব হিসাব-নিকাশ পাল্টে দিয়েছেন মুশফিকুর রহিম-লিটন দাস!

এই যেন রূপকথার গল্পকেও হার মানাবে। ঠিক মহাপ্রলয় সামলে মুশফিকুর রহিম-লিটন দাস লিখেছেন প্রতিরোধের গল্প। তাতেই রেকর্ড ভেঙে চুরমার। ২৪ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে পথ ভোলা বাংলাদেশকে আলো দেখিয়েছেন এই দুই ডানহাতি ব্যাটসম্যান। তাতেই হয়ে যায় ষষ্ঠ উইকেটে প্রথম ডাবল সেঞ্চুরির জুটি।

সোমবার শ্রীলংকার বিপক্ষে ঢাকা টেস্টের প্রথম দিন এই রেকর্ড গড়েন মুশফিক-লিটন। এর আগে এতদিন সর্বোচ্চ জুটির রেকর্ড দখলে ছিল মুশফিক-আশরাফুলের। প্রথম দিন শেষে বাংলাদেশ সংগ্রহ করেছে ৮৫ ওভারে ৫ উইকেটে ২৭৭। মুশফিকুর রহিম ১১৫ ও লিটন দাস ১৩৫ রানে অপরাজিত রয়েছেন। প্রথমবার ষষ্ঠ উইকেটে দুইশ রান ছোঁয়া এই জুটি করেছে ২৫৩ রান।

২০১৪ সালে গল টেস্টে ষষ্ঠ উইকেটের জুটিতে ১৯১ রানের জুটি গড়েছিলেন তারা। এবারও আছেন মুশফিক, তবে বদলেছেন সঙ্গী। ৩৫৮ বলে ২০০ রান করেন তারা। তাতে মুশফিকের অবদান ৮০ আর লিটনের ১১৬। কিন্তু তাদের এই পথচলা এতটা সহজ ছিল না। ১১২ বলে প্রথম ফিফটির জুটির পর শতরান পেরোয় ২০৬ বলে। ২৯৯ বলে দেড়'শ পেরোনোর ২০০ হতে লাগে মাত্র ৫৯ বল!

শুধু তাই নয়, দুজনে গড়েছেন বিশ্বরেকর্ডও। টেস্ট ইতিহাসে কোনো দল ২৫ কিংবা এর কম রানে ৫ উইকেট হারানোর পর সেরা জুটি এটি। এর আগের সেরা ছিল শতরানের নিচে, ৮৬! ১৯৫৯ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ২২ রানে ৫ উইকেট হারানোর পর ৮৬ রান যোগ করেছিলেন পাকিস্তানের ওয়ালিস ম্যাথিয়াস ও সুজাউদ্দিন জুটি। সেটিও হয়েছিল ঢাকার মাটিতেই।

হয়তো এমন কিছু কল্পনাও করেননি তারা, মুশফিক-লিটন করেছেন কী না তা হয়তো জানা যাবে পরে। দিনের দ্বিতীয় বল থেকে পতনের শুরু, একে একে ফেরেন প্রথম সারির ৫ ব্যাটসম্যান। হতভম্ব শেরেবাংলায় উপস্থিত দর্শক-গণমাধ্যমকর্মী হতে শুরু করে ক্রীড়াপাগল ভক্তরা। সামাজিক মাধ্যমে একের পর এক পোস্ট হচ্ছে স্বাগতিকদের এ কেমন সকাল!

ধ্বংসস্তুপ থেকে বাংলাদেশকে লড়াইয়ে ফিরিয়েছেন মুশফিক। যেন খাদের কিনারা থেকে ধীরে ধীরে নিয়ে যাচ্ছেন পাহাড়ের চূড়ায়। সেই মুশফিক-লিটন গড়ে ফেললেন এক বিরল কীর্তি। ভেঙে ফেলেছেন বহু বছর আগের রেকর্ড। বিশ-ত্রিশ নয়, ৬৩ বছর আগের রেকর্ড।

২৪ রানে ৫ উইকেট হারানোর মুশফিক-লিটনের জুটি শতরান পেরিয়ে ছুঁয়ে ফেলে তিনশ'র কাছাকাছি নিয়ে গেছেন। টেস্ট ইতিহাসে কোনো দল ২৫ কিংবা এর কম রানে ৫ উইকেট হারানোর পর সেরা জুটি এটি। এর আগের সেরা ছিল শতরানের নিচে, ৮৬!

চট্টগ্রাম টেস্টেও দুজন হাল ধরেছিলেন, গড়েছিলেন ১৬৪ রানের জুটি। মুশফিক সেঞ্চুরি করতে পারলেও লিটন থামেন ১২ রানের আক্ষেপ নিয়ে।

ইনিংসের দ্বিতীয় বলেই বোল্ড হয়ে ফিরেছিলেন জয়। তামিম ইকবাল ফেরেন পরের ওভারেই। দুজনে রানের খাতা খুলতে পারেননি। হাল ধরতে পারেননি মুমিনুল হক ও নাজমুল হোসেন শান্ত। দুজনে ফেরেন দুই অঙ্কের ঘর ছোঁয়ার আগেই। ব্যর্থ হয়েছেন সাকিব আল হাসানও। তিনি রানের খাতাই খুলতে পারেননি। তাদের দেওয়া ক্ষতে প্রলেপ দিচ্ছেন যে মুশফিক-লিটন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2022

Design and developed by Orangebd


উপরে