মঙ্গলবার, ০৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৪ মাঘ ১৪২৯
walton1

আক্ষেপে পুড়ে মৌসুম শুরু আবাহনী-রাসেলের

ম ক্রীড়া প্রতিবেদক
  ০৭ ডিসেম্বর ২০২২, ০০:০০
ঘরোয়া মৌসুমের প্রথম আসর স্বাধীনতা কাপ ফুটবল। মৌসুম সূচক টুর্নামেন্টের শিরোপা ঘরে তুলে উৎসবে মেতেছে দেশের ফুটবলের নবশক্তি বসুন্ধরা কিংস। তবে গত আসরের চ্যাম্পিয়ন ঐতিহ্যবাহী ঢাকা আবাহনী ক্লাব এবার খেলতে পারেনি টুর্নামেন্টের ফাইনাল। সেমিফাইনাল থেকেই ছিটকে পড়ে স্থান নির্ধারণী ম্যাচে পুলিশ ফুটবল ক্লাবকে হারিয়ে তারা হয়েছে তৃতীয়। গত কয়েকটি মৌসুম ধরে আবাহনীও বসুন্ধরা এই দুটি দলের মধ্যেই সব থেকে বেশি প্রতিদ্বন্দ্বিতা হয়ে আসছে। তবে স্বাধীনতা কাপে তাদের নামের পাশে আরেকটি নাম যোগ হয়েছে। তারা হলো- শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র। এবারের টুর্নামেন্টে ঢাকা আবাহনীর পাশাপাশি হতাশায় পুড়তে হয়েছে শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রকেও। কারণ শিরোপার একেবারে কাছে গিয়েও শেষ পর্যন্ত সেটি ছুঁয়ে দেখা হয়নি ক্লাবটির। তারা হয়েছে রানার আপ। অথচ ফাইনাল ম্যাচের পুরোটা জুড়ে কি দুর্দান্তই না খেলেছে শেখ রাসেল! সোমবার সুযোগ এসেছিল হারানো শিরোপা পুনরুদ্ধার আর কিংসদের বিপক্ষে প্রতিশোধও নেয়ার। ম্যাচ জিততে পারলে ঘুচতে পারত প্রায় এক যুগের আক্ষেপ। কিন্তু সেটি করে দেখাতে পারল না তারা। এবারের টুর্নামেন্টে ৩২ ম্যাচে গোল হয়েছে ১২৭টি। যার মধ্যে সর্বোচ্চ ৯টি গোল করেছেন বসুন্ধরা কিংসের ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড ডরিয়েলটন। ৬টি করে গোল আছে বসুন্ধরার পরিচিত মুখ ব্রাজিলিয়ান রবসন রবিনহো, শেখ রাসেলের নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড এমফন উদোহ এবং শেখ জামালের সেন্ট ভিনসেন্টিয়ান ফুটবলার কর্নেলিয়াস স্টেওয়ার্ট। ৪টি করে গোল করেছেন ঢাকা আবাহনীর ব্রাজিলিয়ান গেটারসন আলভেজ সান্তোস, পুলিশের স্থানীয় ফুটবলার এমএস বাবলু ও বসুন্ধরা কিংসের রাকিব হোসেন। এবারের মৌসুমের শুরুটা দারুণ হয়েছে রাকিবের। সেরা পারফরম্যান্স করে নজর কাড়ছেন। টুর্নামেন্টে সেরা ফুটবলারও হয়েছেন তিনি। তিনটি করে গোল আছে চট্টগ্রাম আবাহনীর ইয়াকুবা বাম্বা, ঢাকা আবাহনীর কোস্টরিকান ফরোয়ার্ড ড্যানিয়েল কলিন্ড্রেস, পুলিশের ভেনেজুয়েলার ফুটবলার অ্যাডওয়ার্ড মরিলেস্না ও বসুন্ধরা কিংসের ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড মিগুয়েল ফিগুয়েরা। এছাড়া ২টি করে গোল করেছেন ১৫ জন। ১টি করে গোল আছে দেশি বিদেশি ৪১ জনের। আত্মঘাতী গোল আছে চারটি। হ্যাটট্রিক করেছেন তিন ফুটবলার।
  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে