logo
রোববার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ ৫ আশ্বিন ১৪২৭

  ক্রীড়া ডেস্ক   ২৯ ডিসেম্বর ২০১৯, ০০:০০  

কানেরিয়ার ইসু্যতে বিভক্ত পাকিস্তান

দশ বছর পাকিস্তানের হয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলেছেন দানিশ কানেরিয়া। ২০১২ সালে ফিক্সিং-কান্ডে আজীবন নিষিদ্ধ হওয়া ৩৯ বছর বয়সি লেগ স্পিনার আবার আলোচনায়। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান ও ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) কাছে তার সাহায্য চাওয়ার পরপরই এক সময়কার সতীর্থ শোয়েব আখতার বোমা ফাটান 'হিন্দু বলে কানেরিয়ার সঙ্গে পাকিস্তান দলের অনেক খেলোয়াড় একসঙ্গে খেতে চাইতো না'। এই পরিস্থিতিতে পিসিবি 'নিরপেক্ষ' ভূমিকায়। ধর্মীয় বৈষম্যের ইসু্যতে সাবেক অধিনায়ক জাভেদ মিয়াঁদাদ কিন্তু ধুয়ে দিয়েছেন কানেরিয়াকে।

'আমি ভালো নেই'- এভাবেই ইমরান খান ও পিসিবির কাছে সাহায্য চেয়েছেন কানেরিয়া। তার আর্জির পরপরই শোয়েব আখতার পাশে দাঁড়িয়েছেন এই লেগ স্পিনারের। এক টেলিভিশনে কানেরিয়ার পক্ষে সাবেক গতিদানব বলেছেন, 'দলের অনেকে কানেরিয়ার সঙ্গে খারাপ ব্যবহার করত, কারণ সে হিন্দু। এমনকি অনেকে তার সঙ্গে বসে খেতেও চাইত না।'

সাবেক সতীর্থের এই কথাগুলো সাহস জুগিয়েছে কানেরিয়ার। শিগগিরই ওই খেলোয়াড়দের নাম প্রকাশ করার কথা শুনিয়েছেন পাকিস্তানের হয়ে ৬১ টেস্ট খেলা লেগ স্পিনার। এই অবস্থায় পিসিবির ভূমিকা কী? পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) এক মুখপাত্র অবশ্য বল ঠেলে দিয়েছেন ওই সময়কার অধিনায়কদের কোর্টে। তাদের কাছ থেকে এই অভিযোগের জবাব চাইছে বোর্ডের ওই মুখপাত্র।

তার বক্তব্য, 'দেখুন শোয়েব আখতার ও কানেরিয়া দুজনই সাবেক ক্রিকেটার। তাদের সঙ্গে বোর্ডের কোনো চুক্তি নেই, তাই তারা চাইলে যে কোনো কিছুই বলতে পারে। এটা তাদের মতামত। আর তারা কয়েকজন খেলোয়াড়ের ব্যবহার নিয়ে অভিযোগ করেছে, পুরো পাকিস্তান দল কিংবা বোর্ডকে দোষারোপ করেনি।'

কথাটা শেষ করেই এই মুখপাত্র আরও বললেন, 'কানেরিয়া যখন খেলত, তখন পাকিস্তানের অধিনায়ক ছিলেন ইনজামাম-উল-হক, রশিদ লতিফ, ইউনিস খান, মোহাম্মদ ইউসুফ। শোয়েব আখতার ও কানেরিয়ার মন্তব্যের জবাব দেওয়া উচিত তাদের। এখানে বোর্ড কেন জড়াবে?'

অধিনায়কদের জবাব না এলেও কানেরিয়ার খেলোয়াড়ি জীবনে কোচের দায়িত্ব সামলানো জাভেদ মিয়াঁদাদ কিন্তু ধুয়ে দিয়েছেন এই লেগ স্পিনারকে। ধর্ম নিয়ে সমস্যা থাকলে কানেরিয়া ১০ বছর পাকিস্তান দলে খেলল কিভাবে, এই প্রশ্ন সাবেক পাকিস্তানি ব্যাটসম্যানের, 'পাকিস্তান তাকে (কানেরিয়া) অনেক সুযোগ দিয়েছে এবং সে ১০ বছর টেস্ট খেলেছে। তার ধর্ম নিয়ে কোনো সমস্যা থাকলে কি সে এতদিন খেলতে পারত?'

টাকার জন্য কানেরিয়া ধর্মীয় বৈষম্যের নাটক সাজিয়েছেন বলে মন্তব্য মিয়াঁদাদের, 'পাকিস্তান ক্রিকেটে ধর্ম নিয়ে কোনো পক্ষপাত নেই। জানি না কেন তারা এসব বলছে। কানেরিয়া প্রসঙ্গে বলব যেহেতু সে নির্বাসিত, ক্রিকেটকে তার দেওয়ার আর কিছুই নেই, তাই টাকার জন্য সে এসব করছে।'
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
আইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
close

উপরে