ব্রাহ্মণবাড়িয়ার পর্যটন স্পটগুলোতে মানুষের ভীড় : ২৫জনকে জরিমানা

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার পর্যটন স্পটগুলোতে মানুষের ভীড় : ২৫জনকে জরিমানা

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় লকডাউন উপেক্ষা করে পর্যটন স্পটগুলোতে বাড়ছে মানুষের ভীড়। এতে করে করোনা সংক্রমন ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে। ঈদ-উল আযহা শেষে গত শুক্রবার থেকে দেশব্যাপী শুরু হয়েছে কঠোর লকডাউন।

কঠোর লক ডাউনকে উপেক্ষা করেই গত শুক্রবার বিকেলে বিজয়নগর উপজেলার হরষপুর ইউনিয়নের এক্তারপুর মাঠে অনুষ্ঠিত হয় উপজেলার বুধন্তি ও এক্তারপুর একাদশের মধ্যে প্রীতি ফুটবল ম্যাচ। হবিগঞ্জ জেলার মাধবপুর উপজেলার এবং বিজয়নগর উপজেলার কয়েক হাজার মানুষ এই ফুটবল খেলা উপভোগ করে।

এছাড়া শুক্রবার দুপুরের পর থেকেই কসবা উপজেলার কাঠেরপুল এলাকায় অবস্থিত “ কিং অব কসবা” রিসোর্টে ভ্রমন পিয়াসুদেরভ ভীড় জমতে থাকে। একই অবস্থা হয় সদর উপজেলার বাসুদেব ইউনিয়নের বরিশল গ্রামের বিলের পানির উপর নির্মিত একটি পর্যটন স্পটে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, সরকার ঘোষিত স্বাস্থ্যবিধির তোয়াক্কা না করে বিজয়নগর উপজেলার হরষপুর ইউনিয়নের এক্তারপুর মাঠে গত শুক্রবার বিকেলে অনুষ্ঠিত হয় উপজেলার বুধন্তি ও এক্তারপুর একাদশের মধ্যে প্রীতি ফুটবল ম্যাচ। খেলা দেখতে সেখানে ভীড় জমায় হাজারো ফুটবলপ্রেমি।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর উপজেলার বাসুদেব ইউনিয়নের বরিশল গ্রামে আখাউড়া-পঞ্চবটি সড়কের দু’পাশের জমি এখন বর্ষার পানিতে পরিপূর্ণ। বর্ষার এই পানির উপর স্থানীয় কয়েকজন যুবক গড়ে তুলেছেন “বরিশল ক্যাফে রেস্টুরেন্ট”। শুক্রবার বিকেলে ওই এলাকায় ভীড় জমে হাজারো ভ্রমন পিয়াসুর।

সেখানে বেড়াতে যাওয়া খলিলুর রহমান নামক এক ব্যক্তি জানান, প্রতি বছরই ঈদের পর পরিবার পরিজন নিয়ে একটু ঘুরতে বের হই। এবার ঈদের একদিন পরই লকডাউন দেওয়ায় পরিবারের সদস্যদের নিয়ে এখানে ঘুরতে এসেছি।

হাফিজ ভূইয়া নামে অপর এক ব্যবসায়ী বলেন, লকডাউনে দোকান বন্ধ থাকায় একটু বিনোদনের জন্য এখানে ঘুরতে এসেছি। এ ব্যাপারে বরিশল ক্যাফে রেস্টুরেন্টের কেউ কথা বলতে রাজী হননি।

এ ব্যাপারে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এমরানুল ইসলাম বলেন, বিষয়টি আমার জানা নেই। খোঁজ নিয়ে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

অপরদিকে শুক্রবার দুপুরের পর থেকেই লকডাউন উপেক্ষা করে কসবা উপজেলার কাঠেরপুল এলাকায় অবস্থিত “ কিং অব কসবা” রিসোর্টে ঘুরতে যান ভ্রমন পিয়াসুরা। বিকেল নাগাদ সেখানে মানুষের ভীড় জমে।

খবর পেয়ে উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট হাসিবা খান সেখানে উপস্থিত হয়ে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে ২৫জনকে ৬ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

এ ব্যাপারে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনাকারী নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) হাসিবা খান বলেন, সরকার ঘোষিত “সবচেয়ে কঠোর” লকডাউন উপেক্ষা করে শুক্রবার দুপুরে উপজেলার কাঠেরপুল এলাকায় “কিং অফ কসবা রিসোর্টে” অনেকেই ঘুরাফেরা করতে আসেন। খবর পেয়ে দুপুরে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করে ২৫ জনকে ৬ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। তিনি বলেন, জনস্বার্থে আমাদের অভিযান অব্যাহত থাকবে।

যাযাদি/ এস

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে