বুধবার, ৩০ নভেম্বর ২০২২, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৯

টানা তিন দিনের ছুটিতে পাহাড়ে পর্যটকের ঢল

নানিয়ারচর(রাঙ্গামাটি)প্রতিনিধি
  ০৮ অক্টোবর ২০২২, ০৯:৪২

টানা তিন দিনের ছুটিতে পর্যটকে মুখর হয়ে উঠেছে রাঙ্গামাটি। শহরে যান্ত্রিক জীবনের অবসাদ দুর করতে রাঙ্গামাটি অপরূপ সৌন্দর্য্য উপভোগ করতে ছুটে আসছেন আসছেন পর্যটকরা পর্যটকের আনাগোনা বাড়ায় খুশি এখানকার পর্যটন সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীরা।

শুক্রবার (৭ অক্টোবর) সকাল থেকে প্রচুর পর্যটকবাহী যানবাহন প্রবেশ করতে শুরু করে শহরে। এতে পর্যটন সংশ্লিষ্ট এলাকাগুলোতে মানুষের পদচারণায় মুখর হয়ে উঠে। যে যার যার মতো করে বিভিন্ন জায়গা ঘুরে বেড়াতে দেখা গেছে। 

শহরের বাসস্ট্যান্ড রিজার্ভ বাজারে দেখা যায়, সড়কে পর্যটকবাহী গাড়ির দীর্ঘ সারি। অনেকে দলগতভাবে বাস নিয়ে আবার অনেকে ব্যক্তিগত গাড়ি নিয়ে বেড়াতে এসেছেন রাঙ্গামাটিতে। এসময় কিছুটা যানজটও তৈরি হয় শহরের এই প্রাণকেন্দ্রে। 
রিজার্ভ বাজার খাজা হোটেল অ্যান্ড রেস্টুরেন্টের ব্যবস্থাপক মো. রুবেল বলেন, আজ থেকে টানা ছুটি শুরু হওয়ায় সকাল থেকেই প্রচুর পর্যটক শহরে প্রবেশ করেছেন। আর এটা গাড়ির শেষ গন্তব্য হওয়াতে সবাই নেমে আমাদের এবং আশপাশের রেস্টুরেন্টগুলোতে নাস্তার জন্য ভিড় করছেন।

বেড়াতে আসা পর্যটক নাহিদুল ইসলাম ও আরেক পর্যটক মো. কামাল বলেন, রাঙ্গামাটি বেড়াতে এসে খুবই ভালো লাগছে। হ্রদ পাহাড়ের এই মিশেল আর কোথাও দেখা যায় না। এখানে প্রকৃতিকে দারুণভাবে উপভোগ করা যায়। আমরা ঢাকা থেকে বন্ধুরা মিলে বাইক রাইড করে এসেছি। রাঙ্গামাটির পরিবেশ আসরেই অতুলনীয়। দূর থেকে লেক দেখতে খুব ভালো লাগে। এক পাশে পাহাড় আর এক পাশে কাপ্তাই হ্রদ মিলে দারুণ এক পরিবেশ।

রাঙ্গামাটি পর্যটন কমপ্লেক্সের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সৃজন কান্তি বড়ুয়া বলেন, দুর্গাপূজার বিজয়া দশমী, সাপ্তাহিক ছুটি এবং ঈদে মিলাদুন্নবীর ছুটি মিলিয়ে আমরা বেশ কদিন ছুটি পেয়েছি। রাঙ্গামাটিতে পর্যটক সমাগত বেশ ভালো লক্ষ্য করা যাচ্ছে। আমাদের প্রায় ৬০-৮০ শতাংশ আবাসিক কক্ষগুলো বুকিং রয়েছে।

রাঙ্গামাটির জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মিজানুর রহমান বলেন, রাঙ্গামাটি পর্যটকবান্ধব শহর। পর্যটকরা রাঙ্গামাটি বেড়াতে এসে যাতে কোনো রকম হয়রানির শিকার না হয়, সে ব্যাপারে আমরা সবসময় তৎপর রয়েছি। রাঙ্গামাটি জেলা পুলিশ ট্যুরিস্ট পুলিশের সঙ্গে সমন্বয় করে পর্যটকদের সার্বিক নিরাপত্তার দিকটি দেখভাল করছে।

রাঙ্গামাটি ট্যুরিস্ট পুলিশের সহকারী উপ-পরিদর্শক মো. জাহাঙ্গীর আলম বলেন, টানা ছুটিতে অসংখ্য পর্যটক রাঙ্গামাটি এসেছেন। রাঙ্গামাটির প্রায় সব পর্যটন স্পটে আমরা আমাদের টহল জোরদার করেছি এবং আমাদের মোবাইল টিম সর্বক্ষণ জায়গাগুলো পরিদর্শন করছে। ট্যুরিস্টদের নিরাপত্তা দিতে আমরা সচেষ্ট রয়েছি।

যাযাদি/ সোহেল

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়

উপরে