টিফিনের টাকায় বৃদ্ধের রিকশা মেরামত!

টিফিনের টাকায় বৃদ্ধের রিকশা মেরামত!

করোনা মুহুর্তে স্কুল বন্ধ থাকায় গাজীপুর জেলার শ্রীপুরের ৩৪ জন ছাত্রের বেঁচে যাওয়া টিফিনের টাকায় রিকশা চালক ষাটোর্ধ ফালু মিয়ার ভাঙা রিকশা মেরামত ও শীতবস্ত্রসহ এক মাসের খাবারের ব্যবস্থা করে দিলেন বরমী স্টুডেন্ট এসোসিয়েশন (বি এস এ)।

এ ছাত্র সংগঠনের সদস্যদের প্রতিদিনের জনপ্রতি ২০ টাকা করে চাঁদার জমানো অর্থ দিয়ে শুক্রবার (২২ জানুয়ারি) সকালে ফালু মিয়ার রিকশা মেরামত করে দেয়া হয়। একই সাথে আগামী এক মাসের খাবারের ব্যবস্থাও করেন তারা। যার মধ্যে রয়েছে,চাল,ডাল,তৈল,আলু,লবন,মুড়ি, পিঁয়াজ, রসুন, মরিচ, সাবানসহ নিত্য প্রয়োজনীয় একাধিক পন্য। এসময় শীতের কম্বল ও একটি চাদরও দেয়া হয় ফালু মিয়াকে।

জানা যায়, উপজেলার বরমী ইউনিয়নের বরমী গ্রামের মৃত একবর আলীর ছেলে হতদরিদ্র ফালু মিয়া দীর্ঘ ৫০ বছর ধরে রিকশা চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করে আসছেন। এক ছেলে ও এক মেয়ে থাকলেও তাদের বিয়ের পর থেকেই আলাদা করে দেয়া হয় ফালু মিয়াকে। এখন এ বাড়ি ও বাড়ির উঠানেই মাথা গুজার ঠাঁই হয় ফালুর। আর দীর্ঘদিনের রিকশাটিও হয়ে উঠেছে জীর্ণশীর্ণ।

কেমন আছেন, জানতে চাওয়া হলেই হাউমাউ করে কেঁদে ফালু মিয়া বলেন, "বাহে- রিশকা চালাইবার কাম আর করতে পারতেছি না। বয়স তো কম অ্যইছে না। পুলাপাইন ডাংগর কইরা লাভ নাই"। তিনি আরও বলেন, "আরেক জনের ছোট ছোট ছাউয়ালরা আমার লাইগ্যা যেইত্তা করছে তা বাহের কাম। হেগর লাইগ্যা দোয়া করলাম। আল্লা তাগোরে অনেক বড় করবো"।

বিএসএ-র প্রতিষ্ঠাতা নাসিরুল ইসলাম (রনি) জানান, ছাত্র জীবন থেকেই মানবতার কল্যানে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করার প্রত্যয় নিয়ে আমাদের এ ক্ষুদ্র প্রয়াস। প্রতি সপ্তাহে সকল সদস্যদের কাছ থেকে ২০ টাকা করে তুলে ফান্ড গঠন করা হয়।এছাড়াও কোনো উদ্যোগ নেয়ার আগে এলাকার বড় ভাই ও বিত্তবানদের কাছ থেকে সাহায্য চাওয়া হয়। উনারা কোনোদিন আমাদেরকে ফিরিয়ে দেননি। ভবিষ্যতে সহযোগিতা পেলে সমাজে পিছিয়ে পড়া মানুষদের নিয়ে কাজ করার চেষ্টা করবে আমাদের এই সংগঠনটি। সেবার মনমানসিকতা নিয়ে সবসময়ই আমাদের পাশে থাকেন সংগঠনটির সহ-প্রতিষ্ঠাতা সাজিদ ইসলাম (স্বাধীন)।

তিনি আরও বলেন, আমরা সাধ্য অনুযায়ী শীতার্তদের মধ্যে শীতবস্ত্র বিতরণ করে থাকি। এসকল কাজে আমার সহযোদ্ধারা হলেন, সাব্বির আহমেদ, হিমেল,শাকিল,প্রিন্স,সীমান্স, সাজিন,তৌহিদ, রনি, স্বাধীন,শাফিন, সাবিত, নিরব, রিজন, সিফাত, ফয়সাল, দীপু, নাজমুল, সাকিব, এমারুল, সাজ্জাদ, জয়, অপু, নিমাই, রিফাত, ইমরান কোষাদিয়া, মিতুল, সাবির, আদনান রিফাত, ইমরান খান, সৌরভ,জাহিদ,

নাঈম,আকিফ।

সমাজসেবক মোস্তাফিজুর রহমান যায়যায়দিনকে বলেন , ছাত্রদের টিফিনের টাকায় বৃদ্ধের রিকশা মেরামত ও শীতবস্ত্রসহ খাবারের ব্যবস্থা মানবতার পরিচয় বটে। আজকের দিনের এসকল ছাত্ররাই আগামীর মানবসেবক হয়ে উঠবে বলে আমার বিশ্বাস। সংগঠনটির পাশে থেকে সহযোগিতা করে ছাত্রদের উৎসাহিত করা সমাজের বিত্তবান সকলের নৈতিক দায়িত্ব। তাদের সকলের জন্য দোয়া ও শুভ কামনা করছি।

যাযাদি/এসএইচ

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে