ঘর পেয়ে খুশি ঝিনাইদহের হতদরিদ্ররা

ঘর পেয়ে খুশি ঝিনাইদহের হতদরিদ্ররা

ঝিনাইদহে মুজিববর্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দেওয়া পাকাঘর ও জমি পেয়ে আনন্দে আত্মহারা হতদরিদ্র পরিবারের সদস্যরা। শনিবার বেলা ১১টার দিকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ঘর বিতরণ উপলক্ষে ঝিনাইদহ জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

এ সময় সংসদ সদস্য আব্দুল হাই, সংসদ সদস্য তাহজীব আলম সিদ্দিকী, সংসদ সদস্য খালেদা খানম, জেলা প্রশাসক সরোজ কুমার নাথসহ প্রশাসনিক কর্মকর্তা, হতদরিদ্র পরিবারের সদস্যসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ উপস্থিত ছিলেন।

সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভা শেষে একে একে ২৪৯টি দরিদ্র পরিবারের হাতে ঘরসহ দুই শতক জমির দলিল তুলে দেওয়া হয়। এ সময় ঘর ও জমির দলিল হাতে পেয়ে খুশি দেখা যায় হতদরিদ্র পরিবারের সদস্যদের।

নতুন ঘর পেয়ে নিজের আনন্দের কথা জানান সদর উপজেলার কয়েরগাছী গ্রামের শামসু শেখ। তিনি বলেন, আমার দুই সন্তান আমাদের খেতে-পরতে দেয় না। অন্যের জায়গায় ঝুপড়ি ঘর বানিয়ে থাকতাম। ঝড়বৃষ্টিতে খুবই কষ্ট করেছি। সাপ ও পোকামাকড়ের ভয় নিয়ে ছিল বসবাস। এই বয়সে এসে দুই শতক জমি ও একটি পাকা বাড়ির মালিক হতে পেরে খুবই আনন্দিত। কখনো স্বপ্নেও ভাবিনি আমার পাকা ঘর হবে, জমি হবে। প্রধানমন্ত্রীকে উপহার দেওয়ার জন্য বার বার ধন্যবাদ জানান এই হতদরিদ্র শামসু শেখ।

ঘর ও জমি পাওয়া শামসুন্নাহার ও হবা বেগম জানান, আগে ক্যানালের পাশে একটি খাসজমিতে কুঁড়েঘর তুলে বসবাস করতাম। সব সময় ভয় আর আতঙ্কের মধ্যে বসবাস করে এসেছি। একটু ঝড়বৃষ্টি হলেই উড়ে যেত ঘরের ছাউনি। পাকা ঘরে ঘুমাতে পারব স্বপ্নেও ভাবতে পারিনি।

যাযাদি/এস

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে