কেশবপুর পৌ নির্বাচনে মেয়র পদে আ’লীগের মনোনয়নপত্র জমা দিলেন রফিক-মিলন

কেশবপুর পৌ নির্বাচনে মেয়র পদে আ’লীগের মনোনয়নপত্র জমা দিলেন রফিক-মিলন

কেশবপুর পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়নপ্রত্যাশী হিসেবে মনোনয়ন পত্র সংগ্রহ করে বুধবার দুপুরে জমা দিলেন পৌর আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট মিলন মিত্র। এর আগে মঙ্গলবার অপর দলীয় মনোনয়নপ্রত্যাশী পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বর্তমান মেয়র রফিকুল ইসলাম তার মনোনয়নপত্রও জমা দিয়েছেন। আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় দফতরে দলীয় মনোনয়নপ্রত্যাশী দু’জনই নেতৃবৃন্দ ও সমর্থকদের নিয়ে ওই মনোনয়নপত্র জমা দেন।

এদিকে কেশবপুর পৌর নির্বাচনে মেয়র পদে আর যে সকল নেতাদের নাম শোনা যাচ্ছিল তাদের মধ্যে কেউ এখনও মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেননি। এমনকি উপজেলা আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির সভায় যে ৩ জনের নাম প্রস্তাব করে মনোনয়নের জন্য কেন্দ্রে পাঠানো হয়েছিল তাদের মধ্যে শুধুমাত্র রফিকুল ইসলাম মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করা জমা দিয়েছেন। অন্যদের ব্যাপারে কিছু জানা যায়নি।

মেয়র পদে আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়নপ্রত্যাশী রফিকুল ইসলাম ও অ্যাডভোকেট মিলন মিত্রকে নিয়ে কেশবপুর পৌরশহরসহ উপজেলাব্যাপী চলছে ব্যাপক আলোচনা। এ দুই মনোনয়প্রত্যাশীর মধ্যে কে নৌকার টিকিট নিয়ে ঢাকা থেকে ফিরবেন সেটিই এখন সকল স্থানে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছে। একারণে কেশবপুরের রাজনৈতিক অঙ্গনের নেতৃবৃন্দসহ সর্বমহলের দৃষ্টি এখন কেন্দ্রের দিকে।

আওয়ামী লীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ ও কর্মী সমর্থকদের সাথে কথা বলে জানা যায়, যাকেই দল থেকে মনোনয়ন দিয়ে নৌকার মাঝি করা হবে তাকে বিজয়ী করতে সকলে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করে যাবেন। দলীয় মনোনয়নপত্র জমা দেওয়া কেশবপুর পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি রফিকুল ইসলাম ও সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক অ্যাডভোকেট মিলন মিত্র দু’জনই দলের নিবেদিত প্রাণ বলে জানান তারা।

নির্বাচন কমিশন থেকে ঘোষিত তফশিল অনুযায়ী, কেশবপুর পৌরসভার নির্বাচনে মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন আগামী ২ ফেব্রুয়ারি, বাছাই ৪ ফেব্রুয়ারি, মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার ১১ ফেব্রুয়ারি ও প্রতীক বরাদ্দ করা হবে ১২ ফেব্রুয়ারি। পঞ্চম ধাপের এ নির্বাচনে ইভিএমের মাধ্যমে ভোটগ্রহণ করা হবে।

উপজেলা নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে, বর্তমানে কেশবপুর পৌরসভার ভোটার সংখ্যা ২০ হাজার ৭২৫ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১০ হাজার ১৮৫ জন ও মহিলা ভোটার রয়েছেন ১০ হাজার ৫৪০ জন।

যাযাদি/এস

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে