গাজীপুরে মাদ্রাসা ছাত্র খুন

গাজীপুরে মাদ্রাসা ছাত্র খুন

গাজীপুর সদর উপজেলার পিরুজালী গ্রামের আকন্দপাড়া এলাকার রাস্তার পাশ থেকে এক মাদ্রাসা ছাত্রের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (৯ মার্চ) সকালে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহত মো. বিপ্লব হোসেন (১৪), স্থানীয় আকন্দ পাড়া এলাকার বাবুল হোসেনের ছেলে। বিল্পব নারায়নগঞ্জে আব্দুর রাজ্জাক বিন ইউসুফ প্রতিষ্ঠিত এক হাফেজিয়া মাদ্রাসায় হেফজ শাখার ছাত্র ছিল।

পিরুজালী ইউনিয়ন পরিষদের ৭নং ওয়ার্ডের সদস্য ও নিহতের চাচা মো. ইজ্জত আলী আকন্দ জানান, বাবুল হোসেনের দুই স্ত্রী রয়েছে। প্রথম স্ত্রীকে নিয়ে তিনি আকন্দ পাড়ায় থাকেন। আর দ্বিতীয় স্ত্রী সন্তান নিয়ে থাকেন টাঙ্গাইলে। বিপ্লব হলো প্রথম পক্ষের সন্তান। বিল্পব নারায়নগঞ্জের রূপগঞ্জ থানা এলাকার আব্দুর রাজ্জাক বিন ইউসুফ প্রতিষ্ঠিত আল জামিয়া আস সালাফিয়া মাদ্রাসায় হেফজ শাখায় লেখাপড়া করতো। দুইদিন আগে শুক্রবার সে ওই মাদ্রাসা থেকে গ্রামের বাড়িতে বেড়াতে আসে।

সোমবার সন্ধ্যায় এশার নামাজ পড়ার উদ্দেশ্যে বাড়ি থেকে বের হয়ে নিখোঁজ হয় বিপ্লব। পরদিন মঙ্গলবার সকাল ৭টার দিকে স্থানীয় আকন্দপাড়া এলাকায় এক রাস্তার পাশে বিপ্লবের লাশ পড়ে থাকতে দেখে এলাকাবাসী তার স্বজনদের খবর দেয়। পরে জয়দেবপুর থানা পুলিশ গিয়ে তার লাশ উদ্ধার করে।

নিহতের বাবা বাবুল হোসেন জানান, তার ও প্রথম স্ত্রী ও দ্বিতীয় স্ত্রী জুলিয়ার বনিবনা হচ্ছিল না বিধায় জুলিয়া দুই মেয়ে নিয়ে টাঙ্গাইলে বাস করতেন। বিভিন্ন সময়ে সেখান থেকে ফোনে বাবুলকে দেখে নেয়ারও হুমকি দিত জুলিয়া। সোমবার সন্ধ্যায় এলাকাবাসী জুলিয়াকে এক ব্যক্তির সঙ্গে মোটর সাইকেলে পিরুজালী ঘুরতে দেখে। তার বাবার সন্দেহ বিপ্লবের খুনের সঙ্গে তার দ্বিতীয় স্ত্রীর হাত রয়েছে।

জয়দেবপুর থানার এসআই রাকিবুল ইসলাম জানান, সকাল ৮টার দিকে বিপ্লবের লাশ উদ্ধার করা হয়। তার গলার নিচে, ডান কানের কাছে, থুতনীর নিচে ও মুখে ধারালো অস্ত্রে কোঁপানোর চিহ্ন রয়েছে। এছাড়া বুকের বাম পাশে ক্ষত চিহ্ন রয়েছে। লাশ ময়না তদন্তের জন্য শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

যাযাদি/এসএইচ

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে