ফুলবাড়ীর ধরলায় নিখোঁজ যুবকের লাশ উদ্ধার

ফুলবাড়ীর ধরলায় নিখোঁজ যুবকের লাশ উদ্ধার

কুড়িগ্রামের ফুলবাড়ী উপজেলার উপর দিয়ে প্রবাহমান ধরলা নদীতে বন্ধুদের সাথে গোসল করতে নেমে রাকীব হাসান (২০) নামের এক যুবক নিখোঁজ হয়েছে।

তাকে স্থানীয় পর্যায়ে ও ফায়ার সার্ভিসের ডুবরি দলের দীর্ঘ ৫ ঘন্টার উদ্ধার অভিযানের পর অবশেষে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬ টার পরেই মৃত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে।

নিহত যুবক রাকীব হাসান লালমনিরহাট জেলা সদরের পূর্ব সাপটানা সুখানদিঘীর পাড় গ্রামের বুদু মিয়ার ছেলে। সে লালমনিরহাট শহরের স্বর্ণপট্টীর জননী জুয়েলার্সে কর্মরত ছিল।

জানা গেছে, বৃহস্পতিবার দুপুর ১২ টার দিকে রাকীব হাসানসহ তার ৯ বন্ধু ধরলা নদীর উপর নির্মিত ফুলবাড়ী সেতুর নিচে গোসল করতে যায়। এ সময় তারা ধরলা নদীর চরে হা-ডু-ডু খেলে।

দুপুর ১টার দিকে তার বন্ধুরা ধরলা নদীতে গোসল করতে নামে। রাকীব সাঁতার জানতোনা বলেই সে প্রথম দিকে ধরলা নদীতে নামতে চায়নি। অন্যান্য বন্ধুরা ধরলা নদীতে গোসল করতে নেমে আনন্দ-ফূর্তী শুরু করলে রাকীব হাসানেরও নদীতে নেমে গোসল করার ইচ্ছা জাগে।

সেই ইচ্ছা থেকে সে সাহস করে ধরলা নদীতে বন্ধুদের সাথে গোসলে নামে। নদীর পানি কম থাকলেও স্রোতের কারনে রাকীব ডুবে যায়। তার বন্ধুরা গোসল শেষ করে রাকীবকে দেখতে না পেয়ে চিৎকার শুরু করে। পরে স্থানীয় সাইফুল ইসলামের নেতৃত্বে স্থানীয়রা নৌকা দিয়ে রাকীবকে উদ্ধারের চেষ্টা চালায়।

স্থানীয়রা ব্যর্থ হলে কুড়িগ্রাম এবং নাগেশ^রী ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের ডুবরি দল দীর্ঘ অভিযান চালিয়ে এই সন্ধ্যায় নিখোঁজ রাকীবের মরদেহ উদ্ধার করে। এর নেতৃত্ব দেন কুড়িগ্রাম ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের এসও রফিকুল ইসলাম ও নাগেশ^রী ফায়ার সার্ভিস স্টেশনের এসও ইমন।

রাকীবের বাবা বুদু মিয়া বলেন, রাকীব হাসান আমার দুই ছেলের মধ্যে ছোট ছিল। ও আমারে আদরের সন্তান। ও খুবেই ভালো ছিল। আমি রাকীবকে ছাড়া কিভাবে বাঁচবো। আমি বাঁচতে পারবোনা। এই আর্তনাদ করেন।

এ ব্যাপারে ফুুলবাড়ী থানার ওসি রাজীব কুমার রায় নিখোঁজ যুবকের লাশ উদ্ধারের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

যাযাদি/এস

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে