বাজার দখল বেদখল নিয়ে পেকুয়া-বাঁশখালীর মানুষের মধ্যে উত্তেজনা

বাজার দখল বেদখল নিয়ে পেকুয়া-বাঁশখালীর মানুষের মধ্যে উত্তেজনা

কক্সবাজারের পেকুয়া উপজেলার রাজাখালী ইউপির আরবশাহ বাজার দখল বেদখল নিয়ে পেকুয়া-বাঁশখালীর লোকজনের মধ্যে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত পেকুয়া থানার একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হলে বড় ধরণের সংঘর্ষ থেকে সাময়িকভাবে রক্ষা পেয়েছে দুই পক্ষের লোকজন।

পেকুয়া আরবশাহ বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি মাওলানা আবদুল করিম বলেন, গতকাল বাঁশখালীস্থ পুঁইছড়ি এলাকার লোকজন বাজারের এসে অস্ত্রসহ মহড়া দেন। মাস্ক বিতরণের কথা বলে আরবশাহ বাজারের খুঁচরা ব্যবসায়ীদের জায়গা ছেড়ে দেয়ার জন্য বলেন। রাতে জানতে পারি আজ (শনিবার) সকালে আ'লীগ নেতা এরশাদুর রহমান চৌধুরীর নেতৃত্বে পুঁইছড়ির লোকজন আরবশাহ বাজার দখল করতে আসবে। এরপর আমরা পেকুয়া থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করি।

এদিকে আজ সকাল থেকে এরশাদুল রহমান চৌধুরীর নেতৃত্বে পুঁইছড়ির লোকজন বাজারে অবস্থান নেয়ার চেষ্টা করে। প্রতিরোধ করে রাজাখালীর লোকজন। এরই মাঝে পেকুয়া থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে দুই পক্ষকে সরিয়ে দেন। সর্বশেষ পুলিশের কথা অগ্রাহ্য করে পুঁইছড়ির লোকজন বাজারে অবস্থান নিতে চেষ্টা করলে রাজাখালীর লোকজনের ধাওয়ায় তারা পালিয়ে যায়।

স্থানীয় ব্যবসায়ী আবুল বশর ও আকতার হোসেন বলেন, জমি পাওয়ার কথা বলে সন্ত্রাসী কায়দায় বাজারটি দখল করার চেষ্টা করে পুঁইছড়ির লোকজন। পুলিশ প্রশাসনের বাধা ও স্থানীয় ব্যবসায়ীদের প্রতিরোধের মুখে তারা পালিয়ে যেতে বাধ্য হয়। যেকোন মূহর্তে তারা আবারো দখল চেষ্টা চালাবে বলে আমাদের কাছে বার্তা পাঠিয়েছেন। ধন্যবাদ পেকুয়া থানা প্রশাসনের প্রতি তাদের কঠোর অবস্থানে বাজারটি জবর দখল থেকে রক্ষা পেয়েছে।

ঘটনাস্থলে উপস্থিত পেকুয়া থানার এসআই ছিদ্দিক আহমদ বলেন, মাস্ক বিতরণের কথা বলে বাঁশাখালীর কিছু লোক আরবশাহ বাজারে আসতে চেয়েছিল। দুই পক্ষে সংঘর্ষে আশঙ্খা দেখা দেয়ায় মাস্ক বিতরণের অনুষ্ঠান করতে দেয়নি। আইনশৃঙ্খলা যাতে অবনতি না হয় সেদিকে নজর রয়েছে পুলিশের।

যাযাদি/ এস

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে