​বরিশালে ছিন্নমূল শিশুদের পাশে খাবার নিয়ে গণমাধ্যমকর্মীরা

​বরিশালে ছিন্নমূল শিশুদের পাশে খাবার নিয়ে গণমাধ্যমকর্মীরা

বরিশালে করোনায় কর্মহীন ও অসহায় মানুষের পাশে খাবার নিয়ে আবারও দাঁড়িয়েছেন গণমাধ্যমকর্মীরা। মঙ্গলবার রাতে বরিশাল নদীবন্দরে এই কর্মসূচির ভার্চুয়ালি উদ্বোধন করেন সিটি করপোরেশনের মেয়র সেরনিয়াবাত সাদিক আবদুল্লাহ। গত বছর করোনায় লকডাউন শুরু হলে বরিশালের গণমাধ্যমকর্মীরা নদীবন্দরে থাকা দুই শতাধিক ছিন্নমূল শিশু ও অসহায়দের খাবারের ব্যবস্থা করেছিল।

জানা গেছে, গত বছর ২৮ মার্চ এই কর্মসূচি নিয়ে প্রথম মাঠে নামেন তখনকার বরিশাল প্রেসক্লাবের নেতৃবৃন্দ। এক পর্যায়ে বরিশালের সব গণমাধ্যমকর্মী এই কর্মসূচির সঙ্গে একাত্মতা ঘোষণা করেন। লকডাউন যতদিন চলেছে ততদিন গণমাধ্যমকর্মীদের এই উদ্যোগ অব্যাহত ছিল। নিজ নিজ গণমাধ্যমের বাইরে অতিরিক্ত দায়িত্ব হিসেবে প্রতিদিন দুই শতাধিক ছিন্নমূল শিশু ও অসহায়দের খাবারের ব্যবস্থা করেছিল বরিশালের গণমাধ্যমকর্মীরা। পরবর্তী সময় কর্মসূচিতে সহযোগী হন বরিশাল সিটি করপোরেশন, জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসনসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ। এ বছর পুনরায় লকডাউন শুরু হলে গণমাধ্যমকর্মীরা আবারও এ কার্যক্রম হাতে নেয়। মঙ্গলবার রাতে আনুষ্ঠানিকভাবে মেয়র ওই কর্মসূচির সূচনা করেন। বরিশালের সকল গণমাধ্যম সংগঠনের কর্মীরা একজোট হয়ে ওই দায়িত্ব পালন করছেন। করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত এই খাবার সরবরাহ অব্যাহত থাকবে বলেও জানিয়েছেন তারা। এই কর্মসূচির মূল উদ্যোক্তা শহীদ আবদুর রব সেরনিয়াবাত বরিশাল প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি এসএম জাকির হোসেন বলেন, গণমাধ্যমকর্মীরা সব দুর্যোগে মানুষের পাশে দাঁড়ায়। গত বছর প্রায় দেড় মাসেরও বেশি সময় ধরে খাদ্য সহায়তা নিয়ে ছিন্নমূল শিশু ও অসহায়দের পাশে থেকে কাজ করেছে। আমরা বরিশাল নদী বন্দরে থাকা ছিন্নমূল শিশু ও অসহায়দের জন্য রাতের খাবার ব্যবস্থা করার চেষ্টা করছি। কর্মসূচি উদ্বোধন করতে গিয়ে মেয়র সাদিক আবদুল্লাহ বলেন, গণমাধ্যমকর্মীদের এটা একটা ব্যতিক্রমী উদ্যোগ। কর্মহীন এবং অসহায় মানুষের পাশে তারা খাবার নিয়ে সহযোগী হয়েছেন। তাদের এই উদ্যোগ অব্যাহত থাকুক। আমরা সবাই মিলে উদ্যোগ নিলে যেকোনো কঠিন কাজও সহজ হয়ে যাবে।

যাযাদি/ এস

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে