ঝিনাইগাতীতে করোনায় আরও দুজনের মৃত্যু : রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি ভাবিয়ে তুলেছে উপজেলাবাসীকে

ঝিনাইগাতীতে করোনায় আরও দুজনের মৃত্যু : রোগীর  সংখ্যা বৃদ্ধি ভাবিয়ে তুলেছে উপজেলাবাসীকে

শেরপুর জেলার ঝিনাইগাতী উপজেলায় নতুন করে করোনায় আক্রান্ত একই দিনে দুজনের মৃত্যু হয়ে মৃত্যুর সংখ্যা ৬ জনে দাঁড়িয়েছে। প্রতিদিন রোগীর সংখ্যা পরীক্ষার হারে ৭০ থেকে ৮০ পার্সেন্ট বৃদ্ধির ফলে উপজেলাবাসীকে ভাবিয়ে তুলেছে। ঝিনাইগাতী উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান আমিনূল ইসলাম বাদশার ২য় ছেলে আবু নাছের আরজু (৩২) গত ২৭ জুলাই করোনার উপসর্গ নিয়ে ঝিনাইগাতী সদর হাসপাতালে ভর্তি হয়ে করোনার ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রোববার বিকাল ৫টার সময় ইন্তেকাল করেন । তার মা করোনায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। মাকে ছেড়ে চিরদিনের জন্যে বিদায় নিয়েছে আরজু। সে তার ফেসবুকে তার মায়ের জন্যে সবার কাছে দোয়া চেয়ে পোস্ট করেছে । অথচ সে নিজেই চিরতরে শেষ বিদায় নিল।

অপর দিকে, করোনায় আক্রান্ত একই দিনে মানিককুড়া নিবাসী ইয়াকুব আলী (৫২) শেরপুর সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইন্তেকাল করেন । রাত দশটায় একই সময়ে তাদের জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন করা হয়। এর আগে তামাগাঁও ঈদগাঁ মাঠে আরজুর জানাজা নামাজে সাবেক সংসদ সদস্য ও বর্তমান শেরপুর জেলা বিএনপির সভাপতি মাহমূদুল হক রুবেল, উপজেলা চেয়ারম্যান এস, এম, এ ওয়ারেজ নাইম, জেলা পরিষদের সদস্য আবু তাহের, বণিক সমিতির সভাপতি মোখলেছুর রহমান মুক্কু ও সাধারণ সম্পাদক ফারুক আহাম্মেদসহ শত শত মুসল্লি অংশগ্রহণ করে তার অকাল মৃত্যুতে শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান। মরহুমের পিতা আমিনূল ইসলাম বাদশা জানান, আমার পরিবারের স্ত্রীসহ পাঁচজন করোনায় আক্রান্ত ৩ জন সুস্থ হয়েছে, ছেলে আর মা হাসপাতালে ছিলেন। ছেলে চিরবিদায় নিয়েছে আর স্ত্রী চিকিৎসাধীন রয়েছে সবার কাছে দোয়া চেয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েন ।

যাযাদি/এস

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে