​ তালতলীতে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান

​ তালতলীতে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান

বরগুনার তালতলীতে কচুপাত্রা বাজারের সংযোগ সড়কের দুই পাশে সরকারি খাল দখল করে অবৈধভাবে বসবাসরতদের উচ্ছেদে অভিযান শুরু করেছে বরগুনা জেলা প্রশাসন। এ সময় ওই এলাকার রাস্তার পাশে গড়ে ওঠা পাকা-আধাপাকা ১২৩টি অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়।

বুধবার (০৮ সেপ্টম্বর) বেলা ১১টা থেকে শুরু হওয়া এই অভিযান বিকেল ৫টা পর্যন্ত চলমান থাকবে। অভিযান পরিচালনা করেন তালতলী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. কাওসার হোসেন ও উচ্ছেদে অভিযানে নিয়োগ করা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. তানভীর অহম্মদ।

জানা যায়, উপজেলার শারিকখালী ইউনিয়নের কচুপাত্রা খালের পাড়ে প্রতি রোববার বাজার বসে। এই বাজারে হাজার হাজার লোকের সমাগম হয়। গত ৫ বছর ধরে ধীরে ধীরে এই বাজারের পাশে কচুপাত্রা খালের দু’পাড় স্থানীয় প্রভাবশালীরা দখল করে নেয়। খালের দু’পাড়ে দু’শতাধিক দোকান ঘর নির্মাণ করেছে তারা। দোকান ও ইমারত নির্মাণ করায় একাধারে খাল সংকুচিত হচ্ছে, অন্যদিকে নাব্য কমে ভরাট হয়ে যাচ্ছে খালটি। এতে খালে নৌকা চলাচল করতে পারছে না। খালটি এখন মরা খালে পরিণত হয়েছে। এতে নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য বাজারে নিয়ে আসতে সমস্যা হচ্ছে। খালটির অবৈধ দখল উচ্ছেদ করে সংস্কারের দাবি জানান এলাকাবাসী। বিভিন্ন সময়ে স্থানীয়দের দাবিতে গত বছরের ১৬ নভেম্বর জেলা প্রশাসন থেকে খালের পাড়ে থাকা ১২৩টি অবৈধ স্থায়ী ও অস্থায়ী স্থাপনা ৭দিনের মধ্যে সরিয়ে নিতে নোটিশ দেওয়া হয়। সরিয়ে নেওয়া তো দূরের কথা, দখলদাররা নোটিশের তোয়াক্কা না করে দখল টিকিয়ে রাখার জন্য করেছিলেন প্রতিরোধ কমিটি। এতেও শেষ রক্ষা হয়নি অবৈধ দখলদারদের। এই অভিযানে এলাকার সচেতন মহল বলছে কচুপাত্রা বাজারটি তার প্রাণ ফিরে পাবে।

এ বিষয়ে তালতলী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. কাওসার হোসেন বলেন, উচ্ছেদের আগে অবৈধ স্থাপনা সরিয়ে নেওয়ার জন্য বার বার দখলদারদের নোটিশ করা হলেও অবৈধভাবে গড়ে তোলা স্থাপনা সরিয়ে না নেওয়ায় বেকু দিয়ে এসব অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করা হয়। আমাদের অভিযান চলমান থাকবে।

যাযাদি/এস

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

Copyright JaiJaiDin ©2022

Design and developed by Orangebd


উপরে