পূর্বধলা-নেত্রকোনা সড়ক উন্নয়ন কাজ শেষ না হতেই ধসে যাচ্ছে নদীতে

পূর্বধলা-নেত্রকোনা সড়ক উন্নয়ন কাজ শেষ না হতেই ধসে যাচ্ছে নদীতে

নেত্রকোনা-পূর্বধলা সড়ক উন্নয়ন কাজে ব্যাপক অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে। স্থানীয়দের অভিযোগ দুর্বল তদারকি ও নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহারের কারণে নির্মাণ কাজ শেষ না হতেই এই সড়কের নারায়ণডহর অংশে নদীতে ধসে পড়ছে। তাছাড়া কাজের ধীরগতির কারণে এ সড়কে চলাচলকারীদের দুর্ভোগ কমছে না। তবে কর্তৃপক্ষের দাবি কাজে নিম্নমাণের সামগ্রী ব্যবহারের কোনো সুযোগ নেই।

নেত্রকোনার জেলা সদরের সঙ্গে যোগাযোগের একমাত্র সড়কটি এক যুগেরও বেশি সময় ধরে চলাচলে অনুপযোগী ছিল। এতে পূর্বধলা ও সীমান্তবর্তী দুর্গাপুর উপজেলার লাখ লাখ মানুষকে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হয়। দীর্ঘ ভোগান্তির পর ২০১৯ সালের ২৪ সেপ্টেম্বর এই সড়ক উন্নয়নের কার্যাদেশ দেয় সড়ক ও জনপথ বিভাগ। নেত্রকোনা থেকে পূর্বধলা পর্যন্ত ১৫ কিমি সড়ক উন্নয়নে নির্মাণ ব্যয় বরাদ্দ ধরা হয় ৪৮ কোটি ২৩ লাখ টাকা। রানা বিল্ডার্স নামে একটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান এই সড়ক উন্নয়নের কাজ পায়। ২০২২ সালের ৩০ জুন কাজ শেষ হওয়ার কথা রয়েছে। রাস্তার উভয় পাশে ৩ ফুট বাড়িয়ে ১৮ ফুটে উন্নীত করে রাস্তার উন্নয়নের কাজ চলমান আছে। এই রাস্তার নারায়নডহর বাজার সংলগ্ন ধলাই নদীর ভাঙন থেকে রাস্তা রক্ষার জন্য ব্লক বসানোর কাজ করা হয়। কিন্তু সম্প্রতি ব্লকগুলোর বিরাট একটা অংশ ওপর থেকে ধসে গিয়ে নদীতে মিশে যাচ্ছে। এতে ভাঙন সৃষ্টি হয়ে রাস্তা হুমকির মাঝে পড়ে। কাজ শেষ হতে না হতেই নির্মিত ব্লক ধসে যাওয়ায় এলাকাবাসীর মাঝে ক্ষোভ দেখা দিয়েছে। তারা বলছেন, কর্তৃপক্ষের দুর্বল তদারকি ও নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহার করায় রাস্তা নির্মাণের আগেই ধসে যাচ্ছে।

তারা জানান, ব্লক বসানোর সময় মাটি ঠিকমতো না বসানোয় এমনটি হয়েছে। এই রাস্তায় পূর্বধলা থানা রোড হয়ে পূর্বধলা বাজার পর্যন্ত অংশের কাজ থেমে আছে দীর্ঘদিন ধরে। কাজের প্রথমদিকে এই অংশে পিচ ঢালাইয়ের উদ্দেশে কাজ শুরু করলে উপজেলার সদরের কয়েকটি সামাজিক সংগঠন আরসিসি ঢালাইয়ের দাবিতে মানববন্ধন করে। তারপর বাজারের ভিতর দুই পাশে ৩ ফুট গর্ত করে সুরকি বালু দিয়ে রাস্তা ১৮ ফুট প্রশস্ত করে ফেলে রাখা হয়। এতে রাস্তার পাশে ড্রেন এই বর্ধিত অংশে পড়ায় তা বন্ধ হয়ে যায়। ফলে বাজারের পানি চলাচলের রাস্তা বন্ধ হয়ে যাওয়ায় দুর্ভোগে পড়ে পূর্বধলা বাজারবাসী। রাস্তার পাশে স্থাপনা সরিয়ে ড্রেন নির্মাণ ও পথচারী চলাচলের রাস্তা রাখার কোনো কার্যকরী উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে না। এতে ভবিষ্যতে যানজটসহ দুর্ভোগের আশঙ্কা থাকায় পূর্বধলা বাজারবাসীর মাঝে অসন্তোষ বিরাজ করছে।

পূর্বধলা বাজার ব্যবসায়ী আব্দুল মোমেন জুয়েল, স্বপন চন্দ্র সরকার জানান, রাস্তার পাশে পানি চলাচলের ড্রেনের ব্যবস্থা ও পথচারী চলাচলের ব্যবস্থা না রাখলে ভবিষ্যতে এই রাস্তায় যানজটসহ নানা দুর্ভোগ দেখা দিবে।

নেত্রকোনা সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. হামিদুল ইসলাম জানান, এই সড়কের ইতোমধ্যে ৫০ ভাগ কাজ শেষ হয়েছে। নির্ধারিত সময়ের মধ্যেই কাজ শেষ হবে।’ কাজে দুর্বল তদারকি ও নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহারের কথা অস্বীকার করে তিনি জানান, নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহারের কোনো সুযোগ নেই। অফিসের জনবলের সীমাবদ্ধতা থাকলেও এ কাজে যথাযথ তদারকি করা হচ্ছে। দেবে যাওয়া ব্লকের বিষয়ে তিনি জানান, এই অংশে নদীর বাঁক ও গভীরতা বেশি থাকায় এমনটা হয়েছে। তবে দেবে যাওয়া অংশ পুনরায় মেরামত করে দেওয়া হবে। পূর্বধলা উপজেলা সদরের স্থাপনা সরানো ও ড্রেন নির্মাণের বিষয়ে বলেন, ‘স্থাপনা সরানোর বিষয়টি আমাদের আওতাধীন নয়। রাস্তার পাশে অতিরিক্ত জায়গা থাকলে ড্রেন নির্মাণ করা হবে। আর পূর্বধলায় বাজার অংশে আরসিসি ঢালাইয়ের বিষয়টি প্রত্রিয়াধীন আছে।’

যাযাদি/ এস

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
আইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে