গাজীপুরে তিন মন্দিরে প্রতিমা ভাঙচুর, আটক ২০

গাজীপুরে তিন মন্দিরে প্রতিমা ভাঙচুর, আটক ২০

গাজীপুর মহানগরের কাশিমপুর বাজার এলাকায় বৃহস্পতিবার সকালে দূর্বৃত্তরা তিনটি মন্দিরে হামলা চালিয়ে প্রতিমা ভাঙচুর করেছে। এ ঘটনার প্রতিবাদে স্থানীয় হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে মানববন্ধন করেছে। এতে ২০ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

কাশিমপুর বাজারের পালপাড়া শ্রী শ্রী রাধা গোবিন্দ মন্দির পরিচালনা কমিটির সভাপতি ও কাশিমপুর পুজা উদযাপন কমিটির সভাপতি বাবুল রুদ্র জানান, বৃহস্পতিবার সকালে পূজারীরা মন্দিরে পূজা-অর্চনা করছিলেন। সকাল ৭টার কিছু সময় পরে কিছু বুঝে ওঠার আগেই কয়েক শ’ লোক লাঠিসোটা নিয়ে শ্রী শ্রী রাধা গোবিন্দ মন্দিরে ঢুকে হামলা চালায়। তারা লক্ষী ও অসুরের প্রতিমা ভাঙচুর করে চলে যায়। এতে এলাকায় আতঙ্কের সৃষ্টি হয়।

একইদিন সকাল সাড়ে ৬টার দিকে তিন শতাধিক লোক কাশিমপুর পশ্চিমপাড়া এলাকার ব্যবসায়ী সুবল দাসের পারিবারিক মন্দিরে এবং স্থানীয় পালপাড়া নামাবাজার সার্বজনীন মন্দিরে হামলা চালায়। এ সময় হামলা কারীরা মন্দিরে থাকা সকল প্রতিমা ভাঙচুর করে উল্টে ফেলে দেয়। হামলার সময় ২০ হামলকারীকে ধরে পুলিশে হস্তান্তর করা হয়।

এ ঘটনার প্রতিবাদে সকাল সাড়ে ৯টার দিকে স্থানীয় ও জেলার হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজন গাজীপুর জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে হামলাকারীদের গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবিতে মানববন্ধন ও সমাবেশ করেছে। খবর পেয়ে গাজীপুরের জেলা প্রশাসক এসএম তরিকুল ইসলাম ও গাজীপুর মহানগর পুলিশের উপ-কমিশনার ঘটনাস্থল পরিদর্শনে যান।

জেলা প্রশাসক এসএম তরিকুল ইসলাম বলেন, এ ঘটনার আগেই বুধবার রাতে মন্দিরের নিরাপত্তা ও আইন শৃঙ্খলা রক্ষার্থে পুলিশের পাশাপাশি সার্বক্ষণিক আনসার সদস্য মোতায়েনের জন্য আনসার বাহিনীর জেলা কর্মকর্তাকে চিঠি দেয়া হয়। ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে জানতে পেরেছি আনুমানিক ৪ থেকে ৫শ’ লোক ওই মন্দিরে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করেছে। ইতোমধ্যে পুলিশ ওই ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে ২০জনের মতো লোককে আটক করেছে।

গাজীপুর মহানগর পুলিশের উপ-কমিশনার (অপরাধ) মো. জাকির হাসান জানান, হামলাকারীরা তিনটি মন্দিরে হামলা চালিয়ে প্রতিমা ভাঙচুর করেছে। এরমধ্যে একটি মন্দিরের সবগুলো প্রতিমা ভেঙ্গে ফেলেছে। অন্য দুইটির আংশিক প্রতিমা ভাঙচুর করেছে। পুলিশ সদস্য উপস্থিত থাকলেও হামলাকারীদের চেয়ে সংখ্যায় নগন্য থাকায় তারা সামাল দিতে পারেনি। শতাধিক হামলাকারী লাঠি-সোটা নিয়ে মন্দিরে হামলা চালিয়ে প্রতিমা ভাঙচুর করেছে।

কোনাবাড়ি জোনের সহকারি পুলিশ কমিশনার মো. বেলাল হোসেন জানান, সকাল ১১টা পর্যন্ত অভিযান চালিয়ে ১৬জনকে আটক করা হয়েছে। অভিযান অব্যহত আছে। তবে হামলার কারণ এখন জানা যায়নি।

যাযাদি/ এমডি

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

সকল ফিচার

রঙ বেরঙ
উনিশ বিশ
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
আইন ও বিচার
ক্যাম্পাস
হাট্টি মা টিম টিম
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
কৃষি ও সম্ভাবনা
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

Copyright JaiJaiDin ©2021

Design and developed by Orangebd


উপরে