​ঈশ্বরদীতে ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে জামাই-শ্বশুড়ের জয়

​ঈশ্বরদীতে ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে জামাই-শ্বশুড়ের জয়

পাবনার ঈশ্বরদীতে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে জামাই-শ্বশুড়ের জয় হয়েছে। এ ঘটনায় উপজেলা জুড়ে চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে। রোববার রাতে উপজেলা নির্বাচন অফিস থেকে পৃথক দুই ইউনিয়নে শশুর জামাইকে বিজয়ী ঘোষণা করা হয়। নির্বাচনে দুটি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান নির্বাচিতদের মধ্যে শ্বশুর লড়েছেন মুলাডুলি ইউনিয়ন পরিষদে আর জামাই সাহাপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে।

ঈশ্বরদী উপজেলা নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা গেছে, ঈশ্বরদীর মুলাডুলি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান পদে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন মুলাডুলি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল খালেক মালিথা। তিনি নৌকা প্রতীক নিয়ে নির্বাচনে অংশ নেন। অন্যদিকে সাহাপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে জয়লাভ করেন আব্দুল খালেক মালিথার জামাই এমলাক হোসেন বাবু। তিনি আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী ছিলেন। মোটরযান প্রতীক নিয়ে বেসরকারিভাবে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন তিনি।

মুলাডুলি ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি আব্দুল খালেক মালিথা বলেন, জননেত্রী আমাকে মনোনয়ন দিয়ে এলাকায় নৌকার মাঝি করে পাঠালে আমার প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার মত কেউ না থাকলে আমাকে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় বিজয়ী ঘোষণা করে নির্বাচন অফিস। আমার প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার জন্য কয়েকজনকে উৎসাহিত করেছিলাম কিন্তু তারা শেষ পর্যন্ত রাজি হননি। শ্বশুর জামাই নির্বাচিত হওয়ার ব্যাপারে তিনি বলেন, আসলে এই নির্বাচন এলাকা ভিত্তিক হয়ে থাকে। এলাকায় যার জনপ্রিয়তা বেশি থাকে তাকেই জনসাধারণ ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করেন। জামাইয়ের যোগ্যতায় জামাই চেয়ারম্যান হয়েছেন। এটা আমার জন্য খুশির খবর।

সাহাপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নব নির্বাচিত চেয়ারম্যান এমলাক হোসেন বাবু বলেন, জনগণ নৌকার বিরুদ্ধে ভোট দেয়নি। তারা দিয়েছে ব্যক্তির বিরুদ্ধে ভোট। বর্তমান চেয়ারম্যানের প্রতি অতিষ্ঠ হয়ে এলাকাবাসী স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে আমাকে বিপুল ভোটে জয়যুক্ত করেছে। তিনি আরও বলেন, আমার শ্বশুর তিনি ত্যাগী আওয়ামী লীগ নেতা। দলে তার ত্যাগ অনস্বীকার্য। তার আদর্শে নিজেকে গড়ে তোলার জন্য চেষ্টা করছি। তিনি যেই আদর্শে বিশ্বাসী সেটা যথাযথ মেনে চলার চেষ্টা করি। তাকে মেনে চলি সব সময়।

ঈশ্বরদী উপজেলা নির্বাচন ও রিটার্নিং কর্মকর্তা মো. আশরাফুল হক জানান, ঈশ্বরদীর ৭ ইউনিয়নে শান্তিপূর্ণ ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়েছে। ৬ টিতে আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা জয়ী হয়েছে। আর মাত্র একটিতে স্বতন্ত্র প্রার্থী জয়লাভ করেছে। মুলাডুলি ও সাহাপুরে নির্বাচিত দুইজন সম্পর্কে জামাই-শ্বশুর এটা আমার কনফার্ম জানা নেই। তবে এটা আমি লোকমুখে শুনেছি।

যাযাদি/এসআই

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

আরও খবর

সকল ফিচার

ক্যাম্পাস
তারার মেলা
সাহিত্য
সুস্বাস্থ্য
বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
জেজেডি ফ্রেন্ডস ফোরাম
নন্দিনী
আইন ও বিচার
হাট্টি মা টিম টিম
কৃষি ও সম্ভাবনা
রঙ বেরঙ

Copyright JaiJaiDin ©2022

Design and developed by Orangebd


উপরে